বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে মৃত্যু ১১ হাজার ছাড়ালো

ঢাকা অফিস ॥ চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী নভেল কারোনাভাইরাসের সংক্রমণে বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর সংখ্যা ১১ হাজার ছাড়িযেছে। শনিবার জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) দেওয়া তথ্যানুযায়ী, ১৬৬টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসটির সংক্রমণে সৃষ্ট রোগ কভিড-১৯ এ মৃতের সংখ্যা ১১ হাজার ৫৭২ এবং আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ৭৮ হাজার ৬৫৫ জনে দাঁড়িয়েছে। টানা তৃতীয় দিনের মতো চীনে স্থানীয়ভাবে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত কাউকে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন (এনএইচসি), কিন্তু তারপরও শুক্রবার দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ জন বেড়েছে; বিদেশ থেকে ফেরার পর এদের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে বলে এনএইচসি জানিয়েছে। এতে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮১ হাজার ৩০৩ জনে দাঁড়িয়েছে যাদের ৭১ হাজার ৮৫৭ জন চিকিৎসার পর রোগ মুক্ত হয়েছেন। সিএনএন জানিয়েছে, এ দিন দেশটিতে কভিড-১৯ এ আরও সাত জনের মৃত্যু হয়েছে, এতে শুক্রবার দিন শেষে চীনে রোগটিতে মৃতের মোট সংখ্যা দাড়াচ্ছে তিন হাজার ২৫৫ জনে। কভিড-১৯ এ মৃত্যুর সংখ্যায় ইতোমধ্যে চীনকে ছাড়িয়ে যাওয়া ইতালিতে একদিনে আরও ৬২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার হাজার ৩২ জনে। রোগটিতে কোনো দেশে একদিনে মৃত্যুর এটিই সর্বোচ্চ সংখ্যা, ব্যাপকভাবে সংক্রমণের সময়ও চীনে একদিনে মৃত্যুর সংখ্যা ১৫০ এর বেশি হয়নি। ইতালির পর আক্রান্তের সংখ্যা স্পেনে ও জার্মানিতে সবচেয়ে বেশি হলেও মৃত্যুর সংখ্যা বেশি ইরানে। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে এক হাজার ৫৫৬ জন হয়েছে এবং আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজার ৬১০ জনে দাঁড়িয়েছে বলে ইরানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কিয়ানুশ জাহানপুর জানিয়েছেন। ইউরোপের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ প্রাদুর্ভাব ছড়ানো দেশ স্পেনে আক্রান্তের সংখ্যা শনিবার নাগাদ ২১ হাজার ৫৭১ জনে দাঁড়িয়েছে এবং মারা গেছেন এক হাজার ৯৩ জন। দেশটি রাজধানীর মাদ্রিদ কনফারেন্স সেন্টারকে করোনাভাইরাস রোগীদের চিকিৎসার জন্য বিশাল একটি হাসপাতালে রূপান্তর করেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে। ফ্রান্সে আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ৬৩২ জন এবং মৃতের সংখ্যা ৪৫০ জনের দাঁড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ৬২৪ এবং মৃতের সংখ্যা ২৬০। যুক্তরাজ্যের আক্রান্ত ৪ হাজার ১৪ জন আর মৃতের সংখ্যা ১৭৮ জন। জার্মানিতে আক্রান্ত ১৯ হাজার ৮৪৮ আর মৃতের সংখ্যা ৭০ জন। নেদারল্যান্ডে আক্রান্ত ৩০০৩ জন, মৃত ১০৭ জন। এশিয়ার দক্ষিণ কোরিয়ায় আক্রান্ত ৮ হাজার ৬৫২ জন আর মৃত্যুর সংখ্যা ১০২। মালয়েশিয়ায় আক্রান্ত ১০৩০ জন আর মৃত্যু হয়েছে চার জনের। সৌদি আরবে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪৪ জন।

আরো খবর...