বিতর্কে অভিনেত্রী তুষ্টি

বিনোদন বাজার ॥ কুকুর-কা-ে অনভিপ্রেত মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন অভিনেত্রী তুষ্টি। সম্প্রতি রাজধানী থেকে প্রায় ৩০ হাজার বেওয়ারিশ কুকুর অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। পশুপ্রেমীরা এ সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। শোবিজ অঙ্গনের অনেক তারকা বিষয়টিকে ‘অমানবিক’ বলে সোচ্চার হয়েছেন। অভিনেত্রী শামীমা তুষ্টিও শুরু থেকেই ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বিষয়টির প্রতিবাদ করেছেন। তার দেওয়া তেমনই একটি পোস্ট থেকে বিতর্কের সূচনা। গত মঙ্গলবার শামীমা তুষ্টি বেশ কিছু ছবি পোস্ট করেন। তাতে দেখা যায়Ñ শিশুরা পথের কুকুরদের খাওয়াচ্ছে। অনেক শিশু কুকুরকে কোলে তুলে আদর করছে। এ অভিনেত্রী ছবিগুলোর ক্যাপশনে লিখেছেন: ‘ফেরেস্তাদের সাথে ফেরেস্তারাই থাকে।’ এই ক্যাপশনের কারণে বিতর্কের মুখে পড়েছেন তুষ্টি। নেটিজেনদের অভিযোগÑ ফেরেশতার সঙ্গে কেন কুকুরকে তুলনা করা হলো? এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে নানা সমালোচনা। এ প্রসঙ্গে জানতে শামীমা তুষ্টির মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি  বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে যারা সমালোচনা করছেন তারা কেন করছেন আমি জানি না। আল্লাহ তা’আলা আছেনÑ এ কথা আমরা ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা বিশ্বাস করি। আশরাফুল মাখলুকাতের শ্রেষ্ঠ জীব মানুষ। কিন্তু আশপাশে যা ঘটছে, যা দেখছি, তা আমাকে খুব মর্মাহত করে। আল্লাহ সবার বিচার করবেন। মানুষ আমার বিচার করতে পারবে না। সুতরাং মানুষ আমাকে কীভাবে বিচার করলো তাতে আমার কিছু যায়-আসে না।’ কুকুর অবলা প্রাণী। কুকুরও আল্লাহ’র সৃষ্টি। আল্লাহ’র সৃষ্টি সব জীবকে আমাদের সম্মান করতে হবে জানিয়ে তুষ্টি বলেন, ‘আল্লাহ বলেছেনÑ জীবে দয়া করো, আমি জীবের প্রতি দয়া করেছি। ক্যাপশনে যা লিখেছি, সেটা প্রতীকী আকারে বলেছি। এখানে আমি কোনো কিছু তুলনা করতে চাইনি। ফলে কুকুরকে দিয়ে ফেরেশতাকে অপমান করেছি সেটা ঠিক নয়।’ তুষ্টি উদাহরণ টেনে বলেন, ‘একটি কুকুরকে পানি পান করানোর জন্যও কিন্তু একজন সাহাবী বেহেশতে গিয়েছেন। এটা তো আমাদের বিশ্বাসের জায়গা। আমি কাউকে ছোট করার জন্য, কষ্ট দেওয়ার জন্য এটা লিখিনি। আমি চাই, সবাই নেয়ামতের মধ্যে থাকুক।’ করোনার কারণে মানুষ কর্মহীন হয়ে একপ্রকার হতাশার মধ্যে আছে। অনেক পরিবারে দুঃখ, কষ্ট, অশান্তি লেগেই আছে। তুষ্টি মনে করেন, ইসলাম যদি পালন করতে হয়, তাহলে ইসলামের সব মানতে হবে। ইসলামে বলা আছে, কাউকে ছোট করা, কটূকথা বলা যাবে না। ফেসবুকে তার পোস্টে প্রথম যিনি বিরূপ মন্তব্য করেছেন তার প্রতি তুষ্টি প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘তিনি ইসলামের কী কী মানেন?’ করোনা প্রকোপের শুরু থেকেই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেখা গিয়েছে তুষ্টিকে। বিষয়টি উল্লেখ করে এ অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি শুধু কুকুর নিধনের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছি তাই নয়, বরং করোনাকালে প্রায় ১০ হাজার মানুষকে সহযোগিতা করেছি। এখন পর্যন্ত ৪০টি পরিবারকে সহযোগিতা করে যাচ্ছি। আমার এলাকার ৫০টির অধিক কুকুরকে নিয়মিত খেতে দিই। আমার বাসায় যারা কাজ করেন তারা ছুটিতে থাকলেও আমি ঠিক সময়ে তাদের বেতন বাসায় পৌঁছে দিয়েছি। আরো ৪০টি বাচ্চার পড়াশোনার দায়িত্ব নিয়েছি।’ লোকনাট্য দলের পিপলস লিটল থিয়েটারের মাধ্যমে অভিনয়ে হাতেখড়ি তুষ্টির। এই থিয়েটারে প্রথম অভিনয় করেন ‘সিন্ডারেলা’ নাটকে। টিভি নাটকের পাশাপাশি তুষ্টি নাম লিখিয়েছেন বড় পর্দায়। ‘নন্দিত নরকে’, ‘লাল সবুজ’, ‘স্বপ্ন ডানায়’ তুষ্টি অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র

 

 

আরো খবর...