বছররে যকেোনো সময় করলা লাগানো যায়

কৃষি প্রতবিদেক ॥ উচ্ছে ও করলা ততিা বলে অনকেইে খতেে পছন্দ করনে না। তবে এর ঔষধগিুণ অনকে বশে।ি ডায়াবটেসি, র্চমরোগ ও কৃমি সারাতে এগুলো ওস্তাদসবজ।ি ভটিামনি ও আয়রন-সমৃদ্ধ এই সবজরি অন্যান্য পুষ্টমিূল্যও কম নয়। উচ্ছে ও করলা এ দশেরে প্রায় সব জলোতইে চাষ হয়। আগে শুধু গরমকালে উচ্ছ-েকরলা উৎপাদতি হলওে এখন জাতরে গুণে প্রায় সারা বছরই চাষ করা যায়। যগেুলো অপক্ষোকৃত ছোট, গোলাকার, বশেি ততিা, সগেুলোকে বলা হয় উচ্ছ।ে বড়, লম্বা ও কছিুটা কম ততিা স্বাদরে ফলকে বলা হয় করলা। উচ্ছগোছ ছোট ও কম লতানো হয়। করলাগাছ বশেি লতানো ও লম্বা লতাবশিষ্টি, পাতাও বড়। উচ্ছে ও করলা ততিা বলে অনকেইে খতেে পছন্দ করনে না। তবে এর ঔষধমিূল্য অনকে বশে।ি ডায়াবটেসি, র্চমরোগ ও কৃমি সারাতে এগুলো এক ওস্তাদসবজ।ি ভটিামনি ও আয়রন-সমৃদ্ধ এই সবজরি অন্যান্য পুষ্টমিূল্যও কম নয়। মাটি ঃ প্রায় সব রকমরে মাটতিে ও পানি জমে না এমন জায়গায় উচ্ছ-েকরলার চাষ করা যায়। তবে জবৈ পর্দাথসমৃদ্ধ দো-আঁশ ও বলেে দো-আঁশ মাটতিে ভালো হয়। ছায়া জায়গায় ভালো হয় না। জাত ঃ উচ্ছে ও করলা পরপরাগায়তি সবজি হওয়ায় এর জাত বচৈত্রিরে শষে নইে। এক জাত লাগালওে পররে বছর সে জাত থকেে রাখা বীজ লাগয়িে হুবহু একই বশৈষ্ট্যিরে ফল পাওয়া যায় না। তাই প্রতি মৌসুমইে বশ্বিস্ত উৎস থকেে ভালো জাতরে ভালো বীজ সংগ্রহ করে এর চাষ করা উচতি। উচ্ছরে প্রায় সব জাতই দশেী বা স্থানীয় । চাষরিাই এগুলোর বীজ রাখনে ও লাগান। এ দশেে করলার যসেব জাত রয়ছেে সগেুলো হলো- উচ্চফলনশীল জাত বারি করলা ১। বাংলাদশে কৃষি গবষেণা ইনস্টটিউিট এ জাত উদ্ভাবন করছে।ে এ জাতরে একটি গাছে ২৫ থকেে ৩০টি করলা ধর।ে হক্টেরপ্রতি ফলন ২৫ থকেে ৩০ টন (প্রতি শতকে ১০০ থকেে ১২০ কজে)ি। বএিডসিরি ‘গজ করলা’ নামে আর একটি জাত আছ।ে এ জাতও ভালো, গাছপ্রতি ১৫  থকেে ২০টি করলা ধর।ে ফলন ২০  থকেে ২৫ টন (প্রতি শতকে ৮০ থকেে ১০০  কজে)ি। হাইব্রডি জাত বুলবুল,ি টয়িা, প্যারট, কাকল,ি প্রাইম-এক্সএল, টাইড, গ্রনি স্টার, গৌরব, প্রাইড ১, প্রাইড ২, গ্রনি রকটে, হীরা ৩০৪, মনি,ি গুডবয়, ওয়াইজম্যান, জাম্বো, গজন,ি ইউরকো, হীরক, মানকি, মণ,ি জয়, কোড-বএিসবডিি ২০০২, কোড-বএিসবডিি ২০০৫, পন্টোগ্রনি, ভভিাক, পয়িা, এনএসসি ৫, এনএসসি ৬, রাজা, প্রাচী ইত্যাদ।ি জমি ও মাদা তরৈি ঃ জমি ভালোভাবে চাষ দয়িে আগাছা পরষ্কিার করে প্রতি শতাংশে জমি তরৈরি সময় ৪০ কজেি পচা গোবর সার মশিয়িে দতিে হব।ে মই দয়িে সমান করার পর ১ মটিার চওড়া বডে করে তার মাঝে ৩০  সন্টেমিটিার চওড়া করে নালা কাটতে হব।ে জমি যতটুকু লম্বা ততটুকুই লম্বা বডে হতে পার।ে খুব  বশেি লম্বা হলে মাঝখানে খন্ড করা যতেে পার।ে উচ্ছরে ক্ষত্রেে ১ মটিার ও করলা ক্ষত্রেে ১.৫ মটিার দূরে দূরে মাদা তরৈি করতে হব।ে সব দকিে ৪০ সন্টেমিটিার করে মাদা তরৈি করতে হব।ে বীজ  বোনার ৭ থকেে ১০ দনি আগে মাদায় পচা গোবর ও সার মাদার মাটরি সাথে মশিয়িে দতিে হব।ে বীজ বোনা ঃ বছররে যকেোনো সময় এখন করলা লাগানো যায়। তবে খরপি বা গ্রীষ্ম-র্বষা মৌসুমে সবচয়েে ভালো হয়। এ মৌসুমে চাষ করতে হলে ফব্রে“য়ারি থকেে মে মাসরে মধ্যে বীজ বুনতে হব।ে আগাম ফলন পতেে চাইলে ফব্রে“য়াররি মাঝামাঝি সময়ে বীজ বোনা ভালো। তবে উচ্ছে বসন্ত-গ্রীষ্মইে ভালো হয়। উচ্ছে চাষ করতে চাইলে জানুয়ারি থকেে র্মাচ মাসরে মধ্যে বীজ বুনতে হব।ে করলার বীজ র্মাচ থকেে জুন র্পযন্ত  বোনা যতেে পার।ে প্রতি মাদায় দু’টি করে বীজ বুনতে হব।ে বীজরে খোসা শক্ত বলে বোনার আগরে দনি রাতে পানতিে বীজ ভজিয়িে রাখতে হব,ে তাহলে ভালো গজাব।ে তবে মাদায় সরাসরি বীজ না বুনে কলার ঠোঙা বা পলব্যিাগওে চারা তরৈি করে সসেব চারা মাদায় রোপণ করা যতেে পার।ে সাধারণত ১০০ গ্রাম বীজে ৬০০ থকেে ৭০০টি চারা হয়। প্রতি শতকে ১২-১৫ গ্রাম উচ্ছে ও ২৫ থকেে ৩০ গ্রাম করলার বীজ লাগ।ে সাররে পরমিাণ ঃ করলা চাষে জবৈসার খুব দরকার। মোট জবৈসাররে র্অধকে জমি চাষরে সময় ও বাকি র্অধকে বীজ বোনা বা চারা লাগানোর ১০ দনি আগে মাদায় দতিে হব।ে অন্যান্য সার নচিরে ছক অনুযায়ী দতিে হব।ে বাউনি দয়ো ঃ চারা ২০ থকেে ২৫ সন্টেমিটিার লম্বা হয়ে গলেে চারার সাথে কাঠি পুঁতে বাউনি দয়োর ব্যবস্থা করতে হব।ে পাশাপাশি মাটি থকেে এক থকেে দড়ে মটিার উঁচু করে মাচা তরৈি করতে হব।ে যহেতেু বডে ১ মটিার চওড়া, সে জন্য মাচাও অনুরূপ চওড়া রাখলে ভালো হয়। এতে করলা তোলা ও পরর্চিযার কাজ সহজ হয়। বাঁশরে শক্ত খুঁটি পুঁতে তার মাথায় জআিই তার, রশি ইত্যাদি বঁেধে খাঁচা তরৈি করে তার উপর দয়িে পাটকাঠি বা বাঁশরে সরু কাঠি ফাঁকা করে বছিয়িে মাচা তরৈি করা যতেে পার।ে মাটতিে লতয়িে দয়োর চয়েে  মাচায় লতয়িে দলিে করলার ফলন ২৫ থকেে ৩০ শতাংশ বশেি হয়। সচে ও আগাছা পরষ্কিার  ঃ মাদায় জো রখেে বীজ বুনতে হব।ে চারা গজানোর পর মাদা শুকয়িে গলেে সচে দতিে হব।ে সচে দয়োর পর মাটি চটা বঁেধে  গলেে তা নড়িানি দয়িে আগাছা পরষ্কিার করে  ভঙেে দতিে হব।ে পানরি অভাবে গাছরে বাড়বাড়তি কমে যায়, ফুল ও কচি ফল ঝরে যায়, ফল ছোট হয়। সে জন্য খরা হলে বা জমি শুকয়িে গলেে  সচে দতিে হব।ে প্রতবিার সার প্রয়োগরে পর সচে দতিে হব।ে গাছরে গোড়া থকেে ছোট  ছোট কছিু ডগা বরে হয়।  সগেুলো ছঁেটে দলিে ফলন ভালো হয়। জমতিে যনে পানি জমতে না পারে সে দকিে খয়োল রাখতে হব।ে করলা তোলা ঃ চারা গজানোর ৪০ থকেে ৫০ দনি পর থকেইে উচ্ছগোছ ফল দয়ো শুরু কর।ে করলাগাছ ফল দয়ো শুরু করে ৬০ দনি পর। ফল আসা শুরু হলে গাছ থকেে প্রায় দু’মাস ফল তোলা যায়।

আরো খবর...