বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য উদ্বোধনে মুক্তিযোদ্ধা সাংগঠনিক কমান্ডের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অংশ গ্রহণ

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া জেলা কালেক্টরেট চত্বরে উদ্বোধন হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর নব নির্মিত ভাস্কর্য। গত ১৩ আগষ্ট মঙ্গলবার সকালে নব নির্মিত ভাস্কর্যের শুভ উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর-১ আসনের সাংসদ আ.ক.ম. সরোয়ার জাহান বাদশা, কুমারখালি-খোকসা-৪ আসনের সাংসদ ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন সহ প্রশাসন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বিভিন্ন সংগঠনের ব্যাক্তিবর্গ। জেলা প্রশাসনের আমন্ত্রণে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক, সাংগঠনিক কমান্ডের কমান্ডার ও মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ডের সাবেক জেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মানিক কুমার ঘোষের নেতৃত্বে কুষ্টিয়ার বীর মুক্তিযোদ্ধারা। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আদর্শিত রনাঙ্গন -৭১ এর বীর সেনানী মুক্তিযোদ্ধা মানিক কুমার ঘোষ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বক্তৃতায় স্বাধীনতা বিরোধীদের সকল প্রকার চক্রান্ত প্রতিহত করে বাংলাদেশের উন্নয়নে মুক্তিযোদ্ধা ও জনগণের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালি করার আহবান জানান লক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধাসহ সকলকে একতাবদ্ধ থাকার আহবান জানান। মানিক কুমার ঘোষ ভাস্কর্য নির্মাণে জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেনর ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। এর আগে মানিক কুমার ঘোষ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ, দৌলতপুর-১ আসনের সাংসদ আ.ক.ম. সরোয়ার জাহান বাদশা, কুমারখালি-খোকসা-৪ আসনের সাংসদ ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেনসহ গন্যমান্য সকলের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা ও কুশল বিনিময় করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন, ডেপুটি কমান্ডার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকবাল মাসুদ, সদর উপজেলা কমান্ডের সাবেক উপজেলা কমান্ডার শহিদুল হক, সাবেক সহকারী কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান, সাবেক সহকারী কমান্ডার হাজী শেখ আবু হানিফ, কুমারখালী উপজেলা কমান্ডের সাবেক উপজেলা কমান্ডার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম (নুরু), বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহিদ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাডঃ শামসুল আলম দুদু, বীর মুক্তিযোদ্ধা রবীন্দ্রনাথ সেন প্রমুখ মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ। অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আহসান হাবিব দুলাল, এমদাদুল হক, মহিউদ্দিন, মঈন উদ্দিন, হাজী আতিয়ার রহমান, আবু সাঈদ, আবুল হোসেন, সার্জেন্ট (অব:) সোলাইমান হোসেন, তাইবুর রহমান, আব্দুল মজিদ, খন্দকার লিয়াকত আলী, রিয়াজুল ইসলাম, দুঃখী মন্ডল, নুরুজ্জামান, আব্দুল করিম, বিল¬াল মাস্টার, দেলোয়ার হোসেন, আব্দুল আলিম, নজরুল ইসলাম, শেখ মনির উদ্দিন, শহিদুল ইসলাম মনির, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা জহুরুল হক, শহিদুল ইসলাম, আক্কাস আলী, ডাক্তার মতিয়ার রহমান, উম্মত আলী, ইয়াছিন আলী, ওমর আলী, শাকের আলী, আবু বকর, শমসের আলী, মহিউদ্দিন, সার্জেন্ট আব্দুল খালেক ও সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম কুষ্টিয়ার সেক্রেটারী সাইদুল ইসলাম সিরাজুল এবং মৃত মুক্তিযোদ্ধাদের পৌষ্যগণসহ প্রায় দুই শত মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত ছিলেন।

আরো খবর...