ফখরুলসহ ২৩ জনের আগাম জামিন

মটরসাইকেলে আগুন

ঢাকা অফিস ॥ সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় তিনটি মটরসাইকেল আগুনে পোড়ার ঘটনায় শাহবাগ থানায় দায়ের করা দুই মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ২৩ নেতাকর্মী আগাম জামিন পেয়েছেন। দুর্নীতির মামলায় দন্ডিত খালেদা জিয়ার জামিন শুনানির আগের দিনের ঘটনায় করা এই মামলায় রোববার সকালে তারা আগাম জামিন চাইলে হাই কোর্টের দুটি বেঞ্চ তাদের ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন দেয়। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, মাহবুব উদ্দিন খোকন, রুহুল কুদ্দুস কাজল। তাদের সঙ্গে ছিলেন, সগীর হোসেন লিয়ন, একেএম এহসানুর রহমান ও তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ। আইনজীবী এহসানুর পরে সাংবাদিকদের বলেন, “মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ২৩ নেতা-কর্মীর ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে তাদের নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে।” খালেদা জিয়ার জামিন শুনানির আগের দিন বুধবার কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই সুপ্রিম কোর্ট এলাকার কেন্দ্রীয় ঈদগাঁর সামনের ফটকে একটি মটরসাইকেলে আগুন দেয় সন্ত্রাসীরা। এদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি জয়নুল আবেদীন ও বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ও সমিতির সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন সকালে বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাই কোর্ট বেঞ্চ থেকে জামিন পান। আর বিকেলে বিচারপতি বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি রিয়াজউদ্দিন খানের হাই কোর্ট বেঞ্চ থেকে জামিন নেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, দলটির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, হাফিজ উদ্দিন, যুগ্ম মহাসচিব হাবীব উন নবী খান সোহেল, খায়রুল কবির খোকন ও মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, জাতীয় কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী ও শাহ আবু জাফর, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালা উদ্দিন টুকু, খন্দকার আবু আশফাক ও ইশতিয়াক আজিজ উলফতসহ ২১ জন। দুর্নীতির মামলায় দন্ডিত খালেদা জিয়ার জামিন শুনানির আগের দিন গত বুধবার সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় তিনটি মটরসাইকেল আগুনে পুড়ে। এ ঘটনায় শাহবাগ থানার এসআই ছামসুল রহমান ও এসআই ইদ্রিস আলী বাদী হয়ে রাতেই দুটি মামলা দায়ের করেন। একটি মামলায় আসামির সংখ্যা ৭০ জন এবং অন্যটিতে ৬৫ জন।

আরো খবর...