প্রোটিয়াদের রেকর্ড ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ ভারতের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসেও সেই একই চিত্র। ভেঙে পড়ল টপ ও মিডল অর্ডার। প্রথম ইনিংসের মতো কেশভ মহারাজ ও ভার্নন ফিল্যান্ডার এবারও প্রতিরোধের চেষ্টা করলেন বটে; তবে পারলেন না। ফাফ দু প্লেসির দলকে ইনিংস ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ ঘরে তুলেছে স্বাগতিকরা। দ্বিতীয় ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৮৯ রানে গুটিয়ে দিয়ে পুনে টেস্ট ইনিংস ও ১৩৭ রানে জিতেছে ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্টে এটিই তাদের সবচেয়ে বড় জয়। নয় বছরের মধ্যে এই প্রথম পাঁচ দিনের ক্রিকেটে ইনিংস ব্যবধানে হারের তেতো স্বাদ পেল প্রোটিয়ারা। এর আগে তাদের সবশেষ ইনিংস ব্যবধানে পরাজয়ও ছিল ভারতের মাটিতেই। ২০১০ এর ফেব্র“য়ারিতে কলকাতা টেস্টে ইনিংস ও ৫৭ রানের ব্যবধানে হেরেছিল গ্রায়েম স্মিথের দল। আগের দিন প্রথম ইনিংসে ২৭৫ রানে গুটিয়ে যাওয়া সফরকারীদের রোববার আবারও ব্যাটিংয়ে নামানোর সিদ্ধান্ত নেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এই প্রথম দক্ষিণ আফ্রিকাকে ফলোঅন করালো ভারত। সব মিলে ২০০৮ সালে লর্ডস টেস্টের পর প্রথমবার ফলো-অনে ব্যাট করতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। শুরুটা হয় আগের মতোই, বাজে। দিনের প্রথম ওভারে ইশান্ত শর্মার আঘাতে আবারও শূন্য রানে ফেরেন ওপেনার এইডেন মারক্রাম। উমেশ যাদবের বলে বাম দিকে ঝাঁপিয়ে দারুণ এক ক্যাচে টিউনিস ডি ব্র“ইনকে ফেরান ঋদ্ধিমান সাহা। তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক দু প্লেসির সঙ্গে প্রতিরোধের আভাস দিয়েছিলেন ডিন এলগার। কিন্তু দু প্লেসির বিদায়ে ভাঙে ৪৯ রানের জুটি। প্রোটিয়া অধিনায়কের ব্যাটের কানায় লাগা বল চারবারের চেষ্টায় মুঠোবন্দি করেন উইকেটকিপার ঋদ্ধিমান। পরের ওভারে অশ্বিন ফিরিয়ে দেন একপ্রান্ত আগলে রাখা এলগারকেও। ৭২ বলে আট চারে তার করা ৪৮ রানই শেষ পর্যন্ত হয়ে থাকে ইনিংসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ। খানিক বাদে রবীন্দ্র জাদেজার বলে কুইন্টন ডি কক বোল্ড হয়ে যান। ষষ্ঠ উইকেটে টেম্বা বাভুমা ও সেনুরান মুথুসামি মিলে যোগ করেন ৪৬ রান। চার রানের ব্যবধানে এই দুজন ফিরলে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর দাঁড়ায় ১২৯/৭। তখন তাদের পরাজয় কেবলই সময়ের ব্যাপার। অষ্টম উইকেটে মহারাজ ও ফিল্যান্ডারের ৫৬ রানের জুটিতে ভারতের অপেক্ষাই যা একটু বাড়ে। শেষ সেশনের শুরুতে অল্প সময়ের মধ্যে শেষ তিনটি উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচ ও সিরিজ জয়ের আনন্দে ভাসে ভারত। তিনটি করে উইকেট নেন ভারতের উমেশ যাদব ও রবীন্দ্র জাদেজা। ভারতের একমাত্র ইনিংসে অপরাজিত ২৫৪ রানের ইনিংস খেলা বিরাট কোহলি পান ম্যাচ সেরার পুরস্কার। সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ ভারত ১ম ইনিংসঃ ৬০১/৫ (ইনিংস ঘোষণা)। দক্ষিণ আফ্রিকা ১ম ইনিংসঃ ২৭৫/১০। দক্ষিণ আফ্রিকা ২য় ইনিংসঃ ৬৭.২ ওভারে ১৮৯/১০ (মারক্রাম ০, এলগার ৪৮, ডি ব্র“ইন ৮, দু প্লেসি ৫, বাভুমা ৩৮, ডি কক ৫, মুথুসামি ৯, ফিল্যান্ডার ৩৭, মহারাজ ২২, রাবাদা ৪, নরকিয়া ০; ইশান্ত ৫-২-১৭-১, উমেশ ৮-৩-২২-৩, শামি ৯-২-৩৪-১, অশ্বিন ২১-৬-৪৫-২, জাদেজা ২১.২-৪-৫২-৩, রোহিত ২-০-৪-০, কোহলি ১-০-৪-০)। ফলঃ ভারত ইনিংস ও ১৩৭ রানে জয়ী। ম্যাচ সেরাঃ বিরাট কোহলি।

আরো খবর...