প্রকাশিত সংবাদে জলিল মন্ডলের প্রতিবাদ

গত ৬ মে ২০২০ বুধবার কুষ্টিয়া হতে প্রকাশিত দৈনিক আন্দোলনের বাজার পত্রিকার প্রথম পৃষ্ঠায় “কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ঝাউদিয়ায় বিএনপি নেতার ভাইয়ের দাপটে ঘুম হারাম সাধারণ মানুষের” “ধরা পড়ার পর মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পাওয়ার পরও বেপরোয়া জলিল মন্ডল” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। স¤পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াটে ও অসত্য সংবাটির আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। কারণ মারামারি হয়েছে ঝাউদিয়া ইউনিয়নের উদয়পুর গ্রামে। সেখান হতে বৈদ্যনাথপুরের দুরত্ব পাঁচ কিলোমিটার। ওই মারামারির সাথে আমার ও আমার লোকজন জড়িত নয়। আমি একজন আওয়ামীলীগ কর্মী, আমার নামে কোন খারাপ রিপোর্ট নাই। যারা আমার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা অভিযোগ করেছে তারা এলাকার খারাপ মানুষ, চিটারি-বাটপারি করে তারা চলে। আমার এক চাচাতো ভাই মুক্তিযোদ্ধা (অবসরপ্রাপ্ত) নুরুল ইসলাম, আর এক চাচতো ভাইয়ের ছেলে সাইদুল ইসলাম নিরব কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক। যারা সংবাদটি পরিবেশন করিয়েছে তাদের মধ্যে বৈদ্যনাথপুর গ্রামের আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতার আপন চাচাতো দুই ভাই একজন জামায়াত-শিবির করে আর একজন করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র শিবিরের সাথী এবং আইন বিভাগের ছাত্র। এলাকাবাসী সবাই জানে আমি ছাড়া নৌকায়  ভোট করার লোক নাই। আর অনেকেই আওয়ামীলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে সমস্ত দূর্নীতি করছে। তারা হাট বাজার খালবিল দখল, থানা ক্যাম্পে দালালী করে দলকে ডুবাচ্ছে।

মোঃ জলিল মন্ডল

পিতা মৃত রোজদার আলী মন্ডল

বৈদ্যনাথপুর, ঝাউদিয়া, কুষ্টিয়া।

আরো খবর...