পৈত্রিক সম্পত্তি জবর দখল হয়ে যাবে এটা সভ্য সমাজে হতে পারে না

কুষ্টিয়ায় ভূ-সম্পত্তি জবরদখলের বিষয়ে তদন্ত ও মনিটরিং কমিটির জরুরি সভায় ডিসি আসলাম হোসেন

জমি জালিয়াতির ঘটনা খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নিতে তিন সদস্যের কমিটি

নিজ সংবাদ ॥ গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর ভূ-সম্পত্তি জবর দখলের বিষয়ে তদন্ত ও মনিটরিং জেলা কমিটির এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল তিনটায় জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন তার কার্যালয়ে এ সভা করেন। সেখানে পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মুহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, সরকারি কৌশুলি (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী, কুষ্টিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র মতিয়ার রহমানসহ সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফের নির্দেশে এ জরুরি সভা ডাকা হয়েছে। তিনি নির্দেশ ও পরামর্শ দিয়েছেন এই জমি জালিয়াতি বিষয়ে জেলায় যত রকম অভিযোগ আছে তা যেন গ্রহণ করা হয়। এবং যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেনকে প্রধান করে পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত ও সরকারি কৌশুলি অনুপ কুমার নন্দীকে নিয়ে তিন সদস্য কমিটি ঘোষণা করা হয়। জমি জালিয়াতির কোন অভিযোগ পেলে দ্রুত এই কমিটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

সভায় জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নরেন্দ্রনাথ সাহা বলেন, জেলার খোকসা উপজেলায় ৭০ ভাগ হিন্দু বাসিন্দা ভূমি দস্যুদের অত্যাচারে ভারতে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে। এরকম অভিযোগ এই কমিটির কাছে তথ্য উপাত্ত দিয়ে সহযোগিতা করা হবে। কিন্তু অ্যাকশন দেখতে চান।

সরকারি কৌশুলি (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী বলেন, জমি জবর দখল জেলায় দীর্ঘদিন ধরে হয়ে আসছে। সরকারি জমিও দখল হয়ে যাচ্ছে। মোহিনী মিল এলাকা গ্রাস করে ফেলা হয়েছে।

পৌরসভার প্যানেল মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, যাদের নাম বেরিয়ে আসছে তাদের সবাইকে ধরা হোক।

পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত তার বক্তব্যে আবারও বলেন, ‘সম্প্রতি সময়ে জমি জালিয়াতিতে যাদের নাম আসছে তদন্ত করে তাদের প্রত্যেককে আইনের আওতায় নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে সদরের সাংসদ মাহবুবউল আলম হানিফ তাকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন। এই ঘটনায় যে বা যার যত বড়ই ক্ষমতাধর হোন যেন কেউ ছাড় না পায়।’

জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ‘পৈত্রিক সম্পত্তি জবর দখল হয়ে যাবে এটা সভ্য সমাজে হতে পারে না। গণমাধ্যমে আসা খবর আমাদের চোখ কান খুলে দিয়েছে। প্রভাবশালী ও ক্ষমতাধরকে ধরা হবে।’

 

আরো খবর...