পেছাল কোপা আমেরিকাও

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে যে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, এর ধারাবাহিকতায় এবার পিছিয়ে গেল কোপা আমেরিকা-২০২০। আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ায় ১২ দলের অংশগ্রহণে আগামী ১২ জুন থেকে ১২ জুলাইয়ে হওয়ার কথা ছিল লাতিন আমেরিকা ফুটবলের সর্বোচ্চ এই প্রতিযোগিতা। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে মঙ্গলবার নিজেদের ওয়েবসাইটে আসরটি এক বছর পিছিয়ে নেওয়ার খবরটি নিশ্চিত করে মহাদেশটির শীর্ষ ফুটবল সংস্থা কনমেবল। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে টুর্নামেন্টটি পেছানোর কথা জানান কনমেবল সভাপতি আলেহান্দ্রো দমিনগেস। নতুন সূচিতে আগামী বছর ১১ জুন প্রতিযোগিতাটি শুরু হবে বলেও জানান তিনি, চলবে ১১ জুলাই পর্যন্ত। “এই সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ ছিল না। তবে সবসময় আমাদের খেলোয়াড় ও দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবল পরিবারের সব সদস্যের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ব্যবস্থা নিতে হবে। বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাটি যে ২০২১ সালে আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরবে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।” কোপা আমেরিকা ফুটবল ক্যালেন্ডারের অনেক বড় একটা ইভেন্ট। এই প্রতিযোগিতায় লিওনেল মেসি, নেইমার, সের্হিও আগুয়েরো, লুইস সুয়ারেস, হামেস রদ্রিগেসদের মতো তারকাদের অংশ নেওয়ার সম্ভাবনা আছে। একই সময়ে ইউরোপের সর্বোচ্চ প্রতিযোগিতা ইউরো-২০২০ হওয়ার কথাও ছিল। তবে একই কারণে সেটিও এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। লাতিন আমেরিকার ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ প্রতিযোগিতা কোপা লিবের্তাদোরেসও করোনাভাইরাসে সংক্রমণ বৃদ্ধি এড়াতে সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে।

আরো খবর...