পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উপাদন করতে হবে

মিরপুরে মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে বক্তারা

কাঞ্চন কুমার ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে “পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন প্রকল্পের আওতায় কৃষক/কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পাহাড়পুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা কৃষি অফিস আয়োজনে এক মাঠ দিবস অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শ্যমল কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. ওবাইদুর রহমান। এসময় তিনি বলেন, আমরা সকলের জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে চাই। এজন্য আমাদের উচিৎ নিরাপদ ফসল উৎপাদন। এজন্য পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বেকার ও শিক্ষিত যুবকদের প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দেশের কল্যানে কাজ করার জন্য উদ্বুদ্ধ করতে হবে। কৃষকদের প্রশিক্ষনের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদনে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকা খামারবাড়ীর পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক সালাউদ্দিন সরদার, মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম জামাল আহম্মেদ, যুদ্ধকালীন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা আফতাব উদ্দিন খাঁন, ভাইস-চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জোয়ার্দ্দার, কৃষি কর্মকর্তা রমেশ চন্দ্র ঘোষ, সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সাবিহা সুলতানা, চিথলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন পিস্তল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আল মতিন লোটাস প্রমুখ। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, আমরা কৃষি অফিসের উদ্যোগে কৃষকদের নিরাপদ ফসল উৎপাদনে উদ্বুদ্ধ করছি। এজন্য তাদের বিভিন্ন উপকরণ ও পরামর্শ প্রদানসহ “পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন” প্রকল্পের আওতায় আইপিএম কৃষক মাঠ স্কুলের মাধ্যমে প্রশিক্ষন প্রদান করছি। আমরা ২০১৮-১৯ অর্থবছর থেকে আমরা কৃষক মাঠ স্কুলের মাধ্যমে ২০০জন কৃষক কৃষাণীকে প্রশিক্ষণ দিয়েছি। ১৪ সপ্তাহব্যাপি এ প্রশিক্ষনে আমরা পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদনে বিভিন্ন দিক নিয়ে প্রশিক্ষন দিয়ে আসছি। এছাড়া মাঠ দিবসের মাধ্যমে তাদের উদ্বুদ্ধ করছি। পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক সালাউদ্দিন সরদার বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে কৃষকরা নিরাপদ উপায়ে কম খরচে নিরাপদ ফসল উৎপাদন করছে। এতে কৃষকরা যেমন উপকৃত হচ্ছে তেমনি নিরাপদ খাদ্য পাওয়া যাচ্ছে। কুষ্টিয়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শ্যমল কুমার বলেন, বর্তমানে নিরাপদ ফসল ও নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনকে আমরা চ্যালেঞ্জ হিসাবে নিয়েছি। আমরা কৃষকদের শতভাগ নিরাপদ উপায়ে ফসল উৎপাদনের জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। জেলাব্যাপি কৃষকরা নিরাপদ ফসল ও খাদ্য উৎপাদনে দিনদিন অগ্রসর হচ্ছে। মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রায় ৫ শতাধিক কৃষকদের বালাইনাশক স্প্রে করার সর্তকতা এবং এর সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে সচেতন করতে আইপিএম কৃষক স্কুলের শিক্ষার্থীরা মঞ্চ নাটক পরিবেশন করেন। শেষে অতিথিবৃন্দরা ১৪ সপ্তাহব্যাপী “পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন” প্রকেল্পর আওতায় প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী ২৫জন কৃষক-কৃষানীর মাঝে সনদপ্রত্র নগদ অর্থ তুলে দেয়।

আরো খবর...