পরবর্তী প্রজন্মকে একটি বসবাস উপযোগী পৃথিবী উপহার দেওয়া আমাদের দায়িত্ব

কুষ্টিয়ায় বৃক্ষ রোপণে উদ্বুদ্ধকালে আতাউর রহমান আতা

সুজন কর্মকার ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা বলেছেন, পরবর্তী প্রজন্মকে একটি বসবাস উপযোগী পৃথিবী উপহার দেওয়া আমাদের দায়িত্ব। আর গাছ লাগানো ছাড়া এর কোনো বিকল্প উপায় নেই। তাই প্রত্যোকের বাড়ির আঙ্গিনায় কমপক্ষে একটি করে বনজ, ফলজ ও ওষধি গাছ লাগান, নিজেদের বাড়িকে একেকটি বৃক্ষ খামারে রূপান্তরিত করুন, গড়ে তুলুন অক্সিজেনের ভান্ডার হিসেবে’। কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা আরো বলেন, জলবায়ু ও মাটির  গুনে প্রাচীন কাল থেকেই বাংলাদেশ সবুজের সমারহের জন্য সুপ্রসিদ্ধ। আর এ সমারহ শুধুমাত্র গাছের জন্য সংখ্যাধিক্যে সীমাবদ্ধ ছিলনা প্রজাতীর বৈচিত্রও সমৃদ্ধ ছিল। পরিবেশগত  ভারসাম্য রক্ষার্থে একটি দেশে  যে পরিমাণ বনভূমী থাকা প্রয়োজন রয়েছে, আমাদের দেশে সে পরিমাণ বৃক্ষ নেই। সরকারি উদ্যোগ ও বিভিন্ন বেসরকারি পরিবেশবাদী সংগঠনের কার্যক্রমের ফলে এবং ব্যাপক গণসচেতনতা সৃষ্টির কারণে এখন বৃক্ষের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা আরো বলেন, গাছকে বলা হয় অক্সিজেনের ফ্যাক্টরি। মানুষ, গাছ, প্রাণিকুল সব মিলে একটি বায়বীয় গ্যাসীয় সম্পর্ক বিদ্যমান রয়েছে, যার মাধ্যমে একে অপরের উপকারার্থে নিবেদিত। কাজেই পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষরোপণের কোনো বিকল্প নেই। আর সে বৃক্ষরোপণের সবচেয়ে উপযুক্ত সময় হল এ বর্ষাকাল। গতকাল ৯ আগষ্ট শুক্রবার বেলা ১১ টায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ’র কুষ্টিয়া শহরের পিটিআই রোডস্থ বাস ভবন প্রাঙ্গনে উপস্থিতিদেরকে বৃক্ষরোপণে উদ্বুদ্ধ করে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা এসব কথা বলেন।

এ সময় লেখক-কলামিস্ট ও পরিবেশ ব্যাক্তিত্ব গৌতম কুমার রায়, কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মানজিয়ার রহমান চঞ্চল, মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন লাবলু, কোষাধ্যক্ষ আমিরুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা ডাঃ আফিল উদ্দিন, জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবি, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জহুরুল হক, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য সাংবাদিক সুজন কুমার কর্মকার সহ বিভিন্ন পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

আরো খবর...