নেটদুনিয়ায় ভাইরাল নুসরাতের ছবি

বিনোদন বাজার ॥ টলিউড অভিনেত্রী ও তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান। এ অভিনেত্রীর ছবি একটি ডেটিং অ্যাপে তার অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা হয়েছে। যা এরইমধ্যে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল। অনুমতি ছাড়া ছবিটি ব্যবহার করার কারণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করেছেন এই সাংসদ। নুসরাত জাহান ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে বলেনÑএ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। প্রথম জেনেছি, এটি ফেসবুকে স্পনসর বিজ্ঞাপন। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি, এটি একটি ডেটিং অ্যাপ। অনুমতি না নিয়ে সেখানে আমার ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মাকে বিষয়টি জানিয়েছি। আমার সঙ্গে কলকাতা পুলিশের সাইবার সেল যোগাযোগ করেছে। আমি ওই অ্যাপ কোম্পানির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছি। ফ্যান্সি ইউ ভিডিও চ্যাট নামে একটি ডেটিং অ্যাপের বিজ্ঞাপনে শোভা পাচ্ছে লাল পোশাক পরা নুসরাত জাহানের ছবি। তার পাশে আরো এক মেয়ের ছবিও রয়েছে। কিন্তু সাংসদের ছবি একটি ডেটিং অ্যাপে তার অনুমতি ছাড়া কীভাবে ব্যবহার করতে পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন এক ব্যক্তি। শুধু তাই নয়, ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে নুসরাতকে ট্যাগ করেন তিনি। এরপর বিষয়টি নুসরাতের নজরে আসে।  নুসরাত আইনি ব্যবস্থা নিয়েছেন। কিন্তু এ বিষয়ে ভারতীয় আইন কতটা কঠোর? এ প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন সাইবার বিশেষজ্ঞ বিভাস চ্যাটার্জি। সংবাদমাধ্যটিকে তিনি বলেনÑকারো অনুমতি ছাড়া তার ছবি যদি কোথাও ব্যবহার করা হয়, তা হলে সেটা আইনত দ-নীয় অপরাধ। পুলিশ আইনি ব্যবস্থা নিতে পারে। তবে আমাদের দেশে এ বিষয়ে কড়া আইনের বিধান নেই। এই ধরনের অপকর্ম রুখতে আরো কঠোর আইন আনা প্রয়োজন। তিনি আরো বলেনÑযে কেউ অ্যাপ তৈরি করতেই পারেন। অ্যান্ড্রুয়েড বা আইওএস প্ল্যাটফর্মে তা দিতেও পারেন। এজন্য কোনো প্রশাসনিক বা আইনি অনুমতি নিতে হয় না। ওই প্ল্যাটফর্মগুলোর নিজস্ব নিয়মবিধি মানলেই হয়। আর তারই ফাঁক গলে অনেক অ্যাপের মাধ্যমে ভুল তথ্য ছড়ানো হয়। এজন্য অবিলম্বে এ বিষয়ে কড়া আইন আনা উচিত। সম্প্রতি ‘স্বস্তিক সংকেত’ নামে একটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন নুসরাত জাহান। সায়ন্তন ঘোষাল পরিচালিত এ সিনেমায় তার বিপরীতে অভিনয় করবেন গৌরব চক্রবর্তী। গত জুলাই মাসে ‘এসওএস কলকাতা’ নামে একটি সিনেমায় নাম লিখিয়েছেন নুসরাত জাহান। এতে প্রথমবার একসঙ্গে অভিনয় করছেন যশ দাশগুপ্ত, নুসরাত জাহান ও মিমি চক্রবর্তী। অংশুমান প্রত্যুষ পরিচালিত এ সিনেমার শুটিং গত ৮ জুলাই শুরু হয়েছে। লকডাউনের পর এ সিনেমার মাধ্যমে শুটিংয়ে ফিরেন নুসরাত। এছাড়া ‘ডিকশনারি’ নামে আরেকটি সিনেমার কাজ নুসরাতের হাতে রয়েছে। ব্রাত্য বসু পরিচালিত এ সিনেমার শুটিং বাকি রয়েছে।

 

আরো খবর...