নিয়মিত আদালত চালুর আবেদন আইনজীবীদের

ঢাকা অফিস ॥ করোনাভাইরাস রোধে দেশে ভার্চুয়াল আদালত চলছে। ভার্চুয়াল আদালত চলা অবস্থায় অনেক আইনজীবী করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আবার অনেকে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ অবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঢাকা আইনজীবী সমিতি নিয়মিত আদালত চালু কারার জন্য প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন করেছেন। আইনজীবী সমিতি বলছেন, দীর্ঘদিন ভার্চুয়াল আদালত চালু থাকায় অনেক আইনজীবী শুনানি থেকে বিরত রয়েছেন। এ অবস্থায় অনেক আইনজীবী আর্থিকভাবে জর্জরিত হয়ে পড়েছেন। ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী খান হাসান নিয়মিত আদালত খুলে দেয়ার জন্য প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা আইনজীবী সমিতির দফতর সম্পাদক এইচ এম মাসুম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গত বুধবার ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী খান হাসান নিয়মিত আদালত খুলে দেয়ার জন্য প্রধান বিচারপতির কাছে আবেদন করেছেন। আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ঢাকা আইনজীবী সমিতি বিশ্বের সর্ববৃহৎ আইনজীবী সমিতি। বর্তমানে সমিতির সদস্য সংখ্যা ২৫ হাজারের বেশি। করোনাভাইরাসের বর্তমানে পরিস্থিতির কারণে করোনা উপসর্গ নিয়ে ইতোমধ্যেই ঢাকা আইনজীবী সমিতির কয়েকজন সদস্য মৃত্যুবরণ করেছেন এবং অনেকে আক্রান্ত হয়েছেন। দীর্ঘদিন আদালতের নিয়মিত কার্যক্রম বন্ধ থাকার ফলে সমিতির বিপুল সংখ্যক আইনজীবী ভার্চুয়াল আদালতের শুনানি থেকে বিরত থাকায় আইন পেশা স্থবির হয়ে পড়েছে। কিছু বিচারপ্রার্থী জনগণ ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। বিপুল সংখ্যক আইনজীবী আর্থিক সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়েছেন। আবেদনে আরও বলা হয়, ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সদস্যবৃন্দ ও বিভিন্ন আইনজীবী সংগঠন নিয়মিতি আদালত খুলে দেয়ার দাবিতে সমিতি প্রাঙ্গণে সভা সমাবেশ করে যাচ্ছেন ও স্মারকলিপি প্রদান করছেন। এমতাবস্থায় আইনজীবীবৃন্দ ও বিচারপ্রার্থী জনগণের কথা চিন্তা করে ঢাকার সংশ্লিষ্ট সকল আদালতের স্বাভাবিক বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য আপনার সদয় আদেশ দান অত্যন্ত জরুরি ও মানবিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। অতএব মহাত্মনের নিকট বিনীত প্রার্থনা ঢাকা আইনজীবী সমিতি তথা দেশের বিপুল সংখ্যক আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী জনগণের স্বার্থে এবং করোনা দুর্যোগকালীন মানবিক বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঢাকার সংশ্লিষ্ট সকল আদালতসমুহ খুলে দেয়ার জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি।

আরো খবর...