নিখোঁজের একদিন পর দৌলতপুরে মাথাভাঙ্গা নদী থেকে স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে মাথাভাঙ্গা নদীতে ডুবে জাকির হোসেন (১৩) নামে এক স্কুলছাত্র নিখোঁজ হওয়ার একদিন পর তার লাশ উদ্ধার হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে মাথাভাঙ্গা নদীতে তল্লাশী অভিযান চালিয়ে ডুবুরি দল তার লাশ উদ্ধার করে। রবিবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের ধর্মদহ গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া মাথাভাঙ্গা নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে সে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ স্কুলছাত্র জাকির হোসেন ধর্মদহ ফরাজিপাড়া গ্রামের সাহারুল ইসলামের ছেলে এবং ডিজিটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্র। স্থানীয়রা জানায়, স্কুলছাত্র জাকির হোসেন বাড়ির পাশের মাথাভাঙ্গা নদীতে গোসল করার সময় প্রবল স্রোতে সে তলিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী নদীতে সন্ধান চালিয়ে তার খোঁজ না পেয়ে ডুবুরি দলকে খবর দেয়। ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে গতকাল সোমবার সকাল থেকে নিখোঁজ স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার অভিযান চালায়। পরে দুপুর সোয়া ১টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করে। নদীতে ডুবে নিখোঁজ স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধারের বিষয়ে দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমান জানান, ডুবুরি উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ২৪ ঘন্টা পর তার লাশ উদ্ধার করেছে।

আরো খবর...