দৌলতপুর সীমান্তে অস্ত্র ও গুলিসহ শীর্ষ মাদক চোরাকারবারী জনি আটক : পলাতক-৪

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে অস্ত্র ও গুলিসহ জনি বিশ^াস (৩০) নামে শীর্ষ এক মাদক চোরাকারবারী আটক হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের সীমান্ত সংলগ্ন জামালপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে একটি বিদেশী পিস্তুল, একটি ম্যাগাজিন ও ৪ রাউন্ড গুলিসহ তাকে আটক করে সীমান্ত রক্ষী বিজিবি। সে একই গ্রামের মৃত জাকির বিশ^াসের ছেলে। তার বিরুদ্ধে মাদক চোরাকারবারী ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডসহ বিভিন্ন অপরাধের একাধিক মামলা হয়েছে। বিজিবি সূত্র জানায়, অস্ত্র ও মাদক পাচারের গোপন সংবাদ পেয়ে ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ জামালপুর বিওপি’র টহল কমান্ডার হাবিলদার সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে বিজিবি’র টহল দল জামালপুর গ্রামের আকিকুজ্জামানের বাড়িতে তল্লাশী অভিযান চালিয়ে অস্ত্র ও গুলিসহ মাদক চোরাকারবারী ও সন্ত্রাসী জনি বিশ^াসকে আটক করে। এ সময় একই এলাকার হাবুল মন্ডলের ছেলে ডাবু মন্ডল (৪০), গাফফার মন্ডলের ছেলে ভুট্টু মন্ডল (৪০), আবুল মন্ডলের ছেলে বেনজু (৩৫) ও আমিরুল মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (৩০) নামে ৪ জন মাদক চোরাকারবারী পালিয়ে যায়। আটক মাদক চোরাকারবারী জনি বিশ^াস সীমান্ত এলাকার শীর্ষ মাদক ও অস্ত্র চোরাকারবারী বলে বিজিবি সূত্র জানিয়েছে। শুক্রবার দুপুরে আটক মাদক চোরাকারবারী ও পলাতক ৪জনসহ ৫জনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দিয়ে দৌলতপুর থানায় সোপর্দ করেছে বিজিবি।

আরো খবর...