দৌলতপুরে বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ

শরীফুল ইসলাম ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে স্যাক মেথড বা বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ করে সাফল্য পেয়েছেন কুলসুম আরা নামে এক কৃষাণী। এই পদ্ধতিতে আদা চাষ করে মাত্র ৭ থেকে ৮ মাসে বস্তা প্রতি ৫ থেকে ৬ কেজি আদা সংগ্রহ করা সম্ভব। আর এ পদ্ধতিতে আদা চাষ করতে আলাদা কোন জমির প্রয়োজন হয় না। বাড়ির আঙিনা বা বাড়ি ভেতর উঠোনের চারপাশ দিয়ে এই পদ্ধতিতে আদা চাষ করা সম্ভব। যেমনটি করেছেন দৌলতপুরের পিয়ারপুর ইউনিয়নের শেরপুর গ্রামের কৃষাণী কুলসুম আরা। তিনি বাড়ির ভেতর উঠানের চারপাশ দিয়ে বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ করে সাফল্য পেয়ে এলাকায় চমক সৃষ্টি করেছেন। দৌলতপুর কৃষি কর্মকর্তা এ কে এম কামাংজ্জামান জানান, কুষ্টিয়া তথা দৌলতপুরের মাটি আদা চাষের উপযোগী না হওয়ায় বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ করে সাফল্য পাওয়া সম্ভব। আর এরজন্য প্রয়োজন একটি বস্তার অর্ধেক অংশ যার মধ্যে বেলে দোয়াঁস মাটি ৫কেজি, এটেল মাটি ৫কেজি, ধানের তুষ ৫কেজি, ভার্মি কম্পোষ্ট ৫কেজি এবং জীবানু নাশক মেহগনি ফলের গুড়ো ৫০গ্রাম। এগুলো একত্রে মিশিয়ে তার ভেতর ২০০ গ্রাম আদার বীজ বপন করতে হবে। এর থেকেই ২৪০ দিনে প্রতি বস্তায় ৫ থেকে ৬ কেজি আদা উৎপাদন সম্ভব। যার বাজার মূল্য সর্বনিম্ন ৫’শ থেকে ৬’শ টাকা। নিজ বাড়ির আঙিনা বা বাড়ির উঠোনেই এই পদ্ধতিতে আদা চাষ করে নিজ পরিবারের আদার চাহিদা মিটিয়ে বাজারজাতকরণ করে আর্থিক চাহিদাও মেটানো সম্ভব। যা করে দেখিয়েছে কুলসুম আরা। দৌলতপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এই পদ্ধতিতে আদা চাষ করতে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছেন।

আরো খবর...