থেমে গেল গাউফের স্বপ্নযাত্রা

ক্রীড়া প্রতিবেদক \  গ্র্যান্ড স্ল্যামের কোয়ার্টার-ফাইনালে খেলার অপেক্ষা বাড়ল কোকো গাউফের। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে যুক্তরাষ্ট্রের ১৫ বছরের কিশোরীর চমকপ্রদ পথচলা থেমে গেছে চতুর্থ রাউন্ডে। স্বদেশি সোফিয়া কেনিনের কাছে হেরে গেছেন গাউফ। মেলবোর্ন পার্কে রোববার টাইব্রেকারে প্রথম সেট জিতলেও পরের দুই সেটে তেমন লড়াই করতে পারেননি গাউফ, হেরে যান ৬-৭ (৫-৭), ৬-৩, ৬-০ গেমে।

যুক্তরাষ্ট্রের এই উঠতি তারকা প্রথম রাউন্ডে হারিয়েছিলেন সাতবারের গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী ভেনাস উইলিয়ামসকে। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নওমি ওসাকাকে হারিয়ে পান চতুর্থ রাউন্ডের টিকেট। এবারই অবশ্য প্রথম নয়, গাউফ প্রথমবার সাড়া জাগান গত উইম্বল্ডনে। প্রাতিযোগিতার পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ভেনাসকে হারিয়ে। গত অক্টোবরে ডব্লিউটিএ শিরোপার স্বাদ পান গত ১৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম বয়সী হিসেবে। এবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনেও ছুটছিলেন তার প্রতিভার ঝলক দেখিয়ে।  তবে উইম্বলডনের মতোই থামতে হলো চতুর্থ রাউন্ডে। গাউফকে থামিয়ে সামনে এগিয়েছেন যিনি, সেই কেনিনের জন্যও দিনটি স্মরণীয়। প্রথমবার গ্র্যান্ড স্ল্যামের কোয়ার্টার-ফাইনাল উঠলেন তিনি, যেখানে তার প্রতিপক্ষ তিউনিশিয়ার ওন্স জাবের। গাউফের জন্য দিনটা হতাশার হলেও জাবেরের জন্য দিনটি ছিল ইতিহাস রচনার। সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে উঠেছিলেন যিনি, সেই ওয়াং কিয়াংকে হারিয়ে শেষ আটে উঠেছেন জাবের। আরব বিশ্বের প্রথম নারী হিসেবে গ্র্যান্ড স্ল্যামের কোয়ার্টার-ফাইনালে পা রাখলেন ২৫ বছর বয়সী এই তিউনিশিয়ান। একই দিন শেষ আট নিশ্চিত করেছেন মেয়েদের এককের এক নম্বর বাছাই অ্যাশলি বার্টি। যুক্তরাষ্ট্রের অ্যালিসন রিস্ককে ৬-৩, ১-৬, ৬-৪ গেমে হারান অস্ট্রেলিয়ার এই তারকা। কোয়ার্টার-ফাইনালে বার্টি লড়বেন সাত নম্বর বাছাই পেত্রা কেভিতোভার বিপক্ষে। একই রাউন্ডে গত আসরে বার্টিকে হারিয়েছিলেন কেভিতোভা। গতবারের ফাইনালিস্ট কেভিতোভা এ দিন হারান গ্রিসের মারিয়া সাকারিকে।

আরো খবর...