ডিসেম্বরেই আসতে পারে করোনার ‘অ্যান্টিডোট’, দাবি চীনের

ঢাকা অফিস ॥ উহানের ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল প্রোডাক্টস এবং বেইজিং ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল প্রোডাক্ট যৌথভাবে করোনাভাইরাসের ‘অ্যান্টিডোট’ আবিষ্কার করেছে, যেটি পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে দুই হাজারের বেশি মানুষের শরীরে। চলতি বছরের ডিসেম্বরেই ভ্যাকসিনটি বাজারে আসতে পারে বলে দাবি করেছে চীন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স তাদের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, উহান ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল প্রোডাক্টস এবং বেইজিং ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল প্রোডাক্টের আবিষ্কৃত অ্যান্টিডোটটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের দ্বিতীয় ধাপে রয়েছে। বছরের শেষের দিকে অথবা ২০২১ সালের শুরুতে এটি বাজারজাত করা যেতে পারে। গত শুক্রবার চীনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উইচ্যাটে দেশটির সরকারি ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি সিনোফার্মের সহযোগী এ দুই প্রতিষ্ঠানের বরাত দিয়ে এ ঘোষণা দেয় এসএএসএসি। এসএএসএসি দাবি করেছে, বছরে ১০ থেকে ১২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন তৈরির সক্ষমতা রয়েছে বেইজিং ইনস্টিটিউট অফ বায়োলজিক্যাল প্রোডাক্টসের।

আরো খবর...