টাকা ছিটিয়ে দিয়ে সমালোচনায় ডিএসসিসি কর্মকর্তা

ঢাকা অফিস ॥ করোনাভাইরাস সঙ্কটে সাহায্য নিতে আসা ছিন্নমূল মানুষের উদ্দেশে টাকা ছুড়ে দিয়ে সমালোচনায় পড়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে গোটা দেশের ঘরবন্দি অবস্থার মধ্যে গত মঙ্গলবার সায়েন্সল্যাব এলাকায় সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে দরিদ্র মানুষের মধ্যে নগদ অর্থ সহায়তা দিতে যান সিইও ইমদাদুল হক। এ সময় লোকজন বেশি জড়ো হয়ে তার উপর হুমড়ি খেয়ে পড়ে। ভিড় এড়াতে গাড়িতে ওঠে পড়েন ডিএসসিসির সিইও। এই ঘটনার বিভিন্ন ছবিতে দেখা যায়, সাহায্য নিতে আসা লোকজন সিইওর গাড়ি ঘিরে রেখেছে। এ সময় তার হাতে থাকা টাকা ছুড়ে দেন বাতাসে। ছড়িয়ে পড়া টাকা নিতে লোকজনের মধ্যে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। নভেল করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে রাজধানীসহ সারাদেশে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েন অনেক মানুষ। কর্মহীন এসব মানুষকে সহায়তার ঘোষণা দেয় দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। এর অংশ হিসেবেই শাহ ইমদাদুল হক সেদিন এলিফ্যান্ট রোড এলাকায় গিয়েছিলেন। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনামুখর হয়েছেন অনেকে। ফারদিন নোটস নামে একজন ফেইসবুকে লেখেন, “ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী অফিসার শাহ মোহাম্মদ ইমদাদুল হক টাকা ছিটিয়ে দিচ্ছেন রাস্তায়। দরিদ্র খেটে-খাওয়া মানুষ সেটা প্রাণপণে কুড়িয়ে নিচ্ছেন। ব্রিটিশ কলোনিয়াল মগজধারী আমাদের এইরূপ সামন্তবাদী ব্যাপার স্যাপার খুবই ভালো লাগছে । আপনার ভালো না লাগলে আপনি মানবতাবিরোধী অমানুষ!” বিষয়টি জানতে শাহ ইমদাদুল হকের মোবাইলে কল করলে তিনি ধরেননি। ডিএসসিসি মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, বিষয়টি তার জানা ছিল না। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসার পর জেনেছেন। তবে মেয়র বলেন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার উদ্দেশ্য খারাপ ছিল না। “তিনি ভালো কাজের জন্যই সেখানে গিয়েছিলেন। কিন্তু এত মানুষ চলে এসেছে তাদের আর ব্যবস্থাপনার আওতায় রাখা যায়নি। এ কারণে এটা হয়ে থাকতে পারে।”

আরো খবর...