জনপ্রশাসনের সহায়তায় সেনাবাহিনী সাধারণ মানুষের মধ্যে সবধরনের সেবা প্রদান করে যাচ্ছে

দৌলতপুরে গর্ভবতী মায়েদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকালে ব্রি. জে. রিয়াজ আহমেদ

শরীফুল ইসলাম ॥ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে গর্ভবতী মায়েদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়েছে। ‘আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ’ এই লক্ষ্য ও প্রতিপাদ্য নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার দিনব্যাপী আল্লারদর্গা নুরুজ্জামান বিশ^াস কলেজ চত্বরে এ স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হয়। ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের নির্দেশনায় ২১ পদাতিক ব্রিগেডের অন্তর্গত ২০ ইষ্ট বেংগল ও ৪১ ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্সের সমন্বয়ে গর্ভবতী মায়েদের চিকিৎসা সেবা ও বিনামূল্যে ঔষুধ বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, যশোর সেনা নিবাসের ২১ পদাতিক ব্রিগেড কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রিয়াজ আহমেদ। সাথে ছিলেন- ২০ ইষ্ট বেংগলের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ইয়াসির সারোয়াত। এছাড়াও দুপুরে মেডিকেল ক্যাম্প পরিদর্শন করেন দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন ও দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার।

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দৌলতপুর উপজেলার ১৪ ইউনিয়নের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের ৩০০জন গর্ভবতী মা’দের আধুনিক চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি বিনামূল্যে ঔষুধ সরবরাহ ও তাদের মাঝে করোনা প্রতিরোধক হ্যান্ড স্যানিটাইজার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। একই সাথে প্রসুতি মায়েদের করোনাকালীন সময়ে নিরাপদ ও সুস্থ থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়াও অস্বচ্ছল ও দরিদ্র গর্ভবতী মা’দের মাঝে ত্রাণ সহায়তাও প্রদান করা হয়। মেডিকেল ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে যশোর সেনা নিবাসের ২১ পদাতিক ব্রিগেড কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রিয়াজ আহমেদ গণমাধ্যম কর্মীদের বলেন, কুষ্টিয়া জেলায় করোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় জনপ্রশাসনের সহায়তায় সেনাবাহিনী সাধারণ মানুষের মধ্যে সব ধরনের সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। গর্ভবতী মায়েদের চিকিৎসা প্রদান এ জেলায় দ্বিতীয় মেডিকেল ক্যাম্পেইন। ভবিষ্যতেও সাধারণ জনগনকে সেবা প্রদানের মহৎ লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বলে তিনি উল্লেখ করেন। এছাড়াও তিনি সকলকে করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে বলেন, করোনা থেকে নিজেকে নিরাপদ ও সুরক্ষিত থাকতে হলে প্রত্যেককে মাস্ক ব্যবহারসহ করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে যতদিন না পর্যন্ত করোনা প্রতিরোধক ভ্যাকসিন পাওয়া যায়। পরম মমতায় এবং সুশৃংখল পরিবেশে গর্ভবতী মা ও তাদের সাথে আসা স্বজনরা সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে এমন চিকিৎসা সেবায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

 

আরো খবর...