চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে সব কিছু বাজি ধরতে নারাজ গুয়ার্দিওলা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ গত মৌসুমে ঘরোয়া ‘ট্রেবল’ জিতলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ অধরাই রয়ে গেছে ম্যানচেস্টার সিটির। তবে ইউরোপ সেরা হতে সব কিছু বাজি ধরতে রাজি নন ইংলিশ দলটির কোচ পেপ গুয়ার্দিওলা। স্প্যানিশ এই কোচের মতে, পুরো মৌসুম জুড়ে চলা ঘরোয়া প্রতিযোগিতার গুরুত্বও কোনো অংশে কম নয়। বার্সেলোনার কোচ হিসেবে দুইবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জিতেছেন গুয়ার্দিওলা। গত মৌসুমে তার অধীনে প্রথম ক্লাব হিসেবে এক মৌসুমে ইংল্যান্ডের তিনটি ঘরোয়া প্রতিযোগিতাতেই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কীর্তি গড়ে সিটি। তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার-ফাইনালে টটেনহ্যাম হটস্পারের কাছে হেরে যায় দলটি। চ্যাম্পিয়ন হয় আরেক ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল। তবে লিভারপুলের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ে সিটির ‘ট্রেবল’ জয়ের মাহাত্ম একটুও কমে নাই বলে মনে করেন গুয়ার্দিওলা। “আমরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে চাইৃচ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা খুব কঠিন, খুব খুব জটিল। এজন্যই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়কে পুরো কৃতিত্ব দেওয়া হয়।” “কিন্তু আমরা ১১ মাস ধরে যা করেছি কেন এটা তার চেয়ে বড়? চ্যাম্পিয়ন্স লিগ একটা গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট। কিন্তু সাত ম্যাচের জন্য আমি ক্যাসিনোতে গিয়ে আমার পকেটে যা কিছু আছে তার সবকিছু বাজি ধরতে চাই না। আমি এটা চাই না।” “আমি ১১ মাস জুড়ে খুশি থাকতে চাই। এটা আমাকে আনন্দ দেয়, প্রিমিয়ার লিগ, প্রতিটি ম্যাচ।” গুয়ার্দিওলা মনে করেন, ১৯৯০ সালের পর আর লিগ শিরোপা জিততে না পারা লিভারপুলও ঘরোয়া সাফল্যের গুরুত্বের ব্যাপারে তার সঙ্গে একমত হবে। “আমি পুরোপুরি নিশ্চিত যে ৩০ বছর প্রিমিয়ার লিগ জিততে না পারা লিভারপুলও গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জিততে চেয়েছিল।” “চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তারা যা করেছে তা অবিশ্বাস্য। কিন্তু আমি মনে করি, প্রিমিয়ার লিগ জেতাটা সত্যি দারুণ কিছু। তারা মাত্র এক পয়েন্ট পিছিয়ে ছিল কিন্তু আমরা তাদের তুলনায় এক পয়েন্ট এগিয়ে ছিলাম।” “গত মৌসুমে দুটি দলই দুর্দান্ত ছিল। কেন আপনাকে বলতেই হবে যে এই দল অন্যটার চেয়ে ভালো ছিল? দুই দলই ভালো ছিল।” গত সপ্তাহে ‘দ্য বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ পুরস্কারের জন্য ১০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করে ফিফা। সেখানে জায়গা পাননি সিটির কোনো খেলোয়াড়। তার শিষ্যরা তাদের অর্জনের যথাযথ স্বীকৃতি পাননি বলেও মনে করেন গুয়ার্দিওলা।

আরো খবর...