চুয়াডাঙ্গায় আওয়ামী লীগের জনসভা উপলক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘ কর্তৃক দুটি পুরস্কার প্রাপ্তি

চুয়াডাঙ্গা অফিস ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘ কর্তৃক টিকাদান কর্মসূচিতে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ এবং যুবকদের দক্ষতা বৃদ্ধির স্বীকৃতি স্বরুপ ‘চ্যাম্পিয়ন অব স্কিল ডেভেলমেন্ট ফর ইয়ুথ’ পুরস্কার লাভ করায় চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের জনসভা উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টায় শহরের জেলা ইটভাটা মালিক সমিতির কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন এবং সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন। সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন আহম্মেদ ও খুসতার জামিল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মহ: শামসুজ্জোহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সী আলমগীর হান্নান ও মাসুদ-উজ্জামান লিটু, চুয়াডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন হেলা ও জেলা পরিষদ ১নং ওয়ার্ড সদস্য শহিদুল ইসলাম সাহান উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য জানানো হয়,  আগামী বৃহস্পতিবার চুয়াডাঙ্গা বড় বাজার শহীদ হাসান চত্বরে বেলা ৩টায় জেলা আওয়ামী লীগের উদ্দ্যোগে জনসভার আয়োজন করা হয়েছে। জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন বক্তব্য রাখবেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর। এছাড়া, জেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখবেন।  এই সমাবেশ থেকে বিএনপি-জামায়াতসহ সকল স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিকে প্রতিরোধ করার লক্ষ্যে জঙ্গিবাদ ও মৌলবাদকে নির্মূল করার জন্য এই সমাবেশ থেকে কর্মসূচি ঘোষনা করা হবে। এছাড়াও দলের অভ্যন্তরে ঘাপটি মেরে থাকা কিছু নেতা দলবিরোধী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে এবং বিএনপি-জামায়াতের আশ্রয়-প্রশ্রয়ের কারণে দলের অভ্যন্তরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দলকে ক্ষতিগ্রস্থ করতে চাই। তারা ইতিমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় কমিটি গঠনের নামে দলকে দ্বিখন্ডিত করতে চাই এবং এইসব নেতারা ইতিমধ্যে অযোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছে। তাই জেলা আওয়ামী লীগ রাজাকারের সন্তানমুক্ত ও অযোগ্য লোকদের আওয়ামী লীগ থেকে বিতাড়িত করতে চাই। সংবাদকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার আরো বলেন, জনসভায় ৩০ হাজার নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ উপস্থিত থাকবে বলে আশা করছি। এজন্য রাস্তায় চলাচলে সাধারণ মানুষের অসুবিধা হবে। এ জন্য পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সাথে আলোচনা করে কিভাবে বিকল্প সড়কে যানবাহন চলাচল করা যায় সেবিষয়ে আলোচনা করা হবে। সাধারণ মানুষ কষ্ট পাবে না। দূর-দূরান্ত থেকে আসা নেতাকর্মীদের পরিবহনগুলো শহরের ৬টি স্পটে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যেমন দৌলতদিয়াড় বিএডিসি গোডাউন, টাউন ফুটবল মাঠ, সরকারি  কলেজ মাঠ, ভিজে স্কুল মাঠ, পুরাতন স্টেডিয়াম ও পৌর কলেজ রোডে গাড়ি পার্কিং থাকবে। তিনি আরো বলেন, জেলা আওয়ামী লীগে সিনিয়র সহসভাপতি পদ বলে গঠনতন্ত্রে কোন পদ নেই। ওই নেতা বিভিন্ন স্থানে কমিটি করে বেড়াচ্ছেন। কেউ যদি গঠনতন্ত্রে বাইরে গিয়ে সাংগঠনিক কর্মকান্ড করেন তার বিরুদ্ধে শোকজ ও কেন্দ্রকে জানানো হবে। ১৫দিন আগে সদর উপজেলার সভাপতি-সম্পাদক পত্রিকায় এবিষয়ে একটি প্রেস রিলিজ দেন। এরপরে তিনি আর করেন নাই। ওই নেতা যাচ্ছেন তার সাথে আওয়ামী লীগের কেউ নেই। স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও কৃষকলীগের কিছু মানুষ যাচ্ছে। চুয়াডাঙ্গা যুবলীগকে ক্যাসিনো যুবলীগ আখ্যা দিয়ে তিনি আরো বলেন, কিভাবে বড়লোক হওয়া যায় সে পথে গিয়ে রাজনীতিকে কুলষিত করেছে। রাজনীতিতে ধাপে ধাপে এগুতো হয়, আর সে পথ পরিহার করে অন্য পথ অবলম্বন করেছে।

আরো খবর...