চিকিৎসক মুসা কবিরের অনন্য উদ্যোগ, হাত ধুয়ে হাসপাতালে প্রবেশ

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল

নিজ সংবাদ ॥ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের বামপাশে সাবান ও পানি রাখা হয়েছে। হাসপাতালে আসা ব্যক্তিরা তাদের হাত দুটো পরিস্কার পরিচ্ছন্নভাবে ধুয়ে তারপর হাসপাতালের প্রবেশের জন্য এ ব্যবস্থা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার বেলা এগারটায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে এসেবা চালু করা হয়েছে।

হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের জেষ্ঠ্য মেডিসিন বিশেষজ্ঞ এ এস এম মুসা কবির নিজ উদ্যোগে এসেবার ব্যবস্থা করেন। মাসব্যাপী এসেবায় কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি স্বপন হোসেন সহযোগিতা করছেন। এসময় সেখানে হাসপাতালের তত্বাবধায়ক নুরুন্নাহার বেগম, আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) তাপস কুমার সরকার, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলু, প্রথম আলোর কুষ্টিয়া প্রতিনিধি তৌহিদী হাসান ও কুষ্টিয়া সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি স্বপন হোসেন উপস্থিত ছিলেন। চিকিৎসক এ এস এম মুসা কবির বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হাত পরিস্কার রাখা প্রয়োজন। হাসপাতালের বিভিন্ন এলাকায় প্রতিদিন প্রচুর মানুষ আসে। তাদের সুবিধার্থে জরুরি বিভাগের সামনে হাত ধোয়ার দুটি বেসিন রাখা হয়েছে। সেখানে সাবান পানি দিয়ে নিজ উদ্যোগে হাত ধুয়ে তারপর হাসপাতালে প্রবেশের জন্য আাহ্বান জানানো হয়েছে।

কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি স্বপন হোসেন বলেন, গত মৌসুমে এই হাসপাতালে ডেঙ্গু প্রতিরোধে ছাত্রলীগ দেড় মাস ধরে স্বেচ্ছা শ্রম দিয়ে ছিল। তারই ধারাবাহিকতায় করোনা প্রতিরোধে যতটুকু সম্ভব এগিয়ে আসা হয়েছে। প্রতিদিন সকালে দুটি বেসিনে সাবান রাখা হবে। হাসপাতাল ব্যবস্থাপনায় পানি রাখা হবে। মানুষকে সচেতন করতে ছাত্রলীগ হাত ধুতে উদ্বুদ্ধ করবে।

হাসপাতালের তত্বাবধায়ক নুরুন্নাহার বেগম বলেন- উদ্যোগ ছোট, কিন্তু এর ফল অনেক বড়। সবাইকে সচেতন হতে এমন উদ্যোগে সবার অংশগ্রহণ প্রয়োজন। নিজে সচেতন হলেই সব কিছু মোকাবিলা সম্ভব।

আরো খবর...