খুলনা ও সাতক্ষীরার বেড়িবাঁধ নির্মাণে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

ঘূর্ণিঝড় আম্পান সৃষ্ট পরিস্থিতি মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের ডাকে সাড়া দিয়ে মাননীয় সেনাবাহিনী প্রধানের সার্বিক দিকনির্দেশনায় দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উপকূলবর্তী মানুষের পাশে থেকে দিন-রাত নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এরই ধারাবাহিকতায় ঘূর্ণিঝড় আম্পান পরবর্তী দুর্যোগ মোকাবেলায় সাতক্ষীরা এবং খুলনার ক্ষতিগ্রস্থ বেড়িবাঁধ মেরামতের সার্বিক দায়িত্ব পায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৫৫ পদাতিক ডিভিশন। সেই দায়িত্বের অংশ হিসেবে ক্ষতিগ্রস্থ বিভিন্ন পয়েন্টের বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু করে যশোর  সেনানিবাসের সেনাসদস্যরা। বর্তমানে সাতক্ষীরার হাজরাখালী ও খুলনার রতনা পয়েন্টের মেরামত কার্যক্রম চলমান রয়েছে। যশোর সেনানিবাস সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা হাজরাখালী এবং খুলনার রতনা পয়েন্টের  মেরামত কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে এবং অনুমোদিত নকশার সকল প্রয়োজনীয় উপকরণের ইতিমধ্যে সংগ্রহ করা হয়েছে। বর্ণিত পয়েন্ট দুটির মেরামত কাজের জন্য বর্তমানে ড্রেজার, পন্টুন, মাটি খননকারী  মেশিন এবং নৌকা সার্বক্ষনিক নিয়োজিত রয়েছে এবং সেনাসদস্যরা নিবিড় পর্যবেক্ষনের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্থ বেড়িবাঁধ দ্রুত মেরামতের নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও বেড়িবাঁধ মেরামতের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ এবং সেনাসদস্যদের দিকনির্দেশনা প্রদানের জন্য প্রায়শই যশোর  সেনানিবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উক্ত মেরামত কার্যক্রম পরিদর্শন করছেন। পাশাপাশি দুর্গত এলাকায় যাতে খাদ্য ও পানির সংকট না হয়  সেজন্য নিয়মিতভাবে ত্রান সহায়তা ও সুপেয় পানি সরবরাহসহ চিকিৎসা  সেবা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। অন্যদিকে করোনা মোকাবেলায় নিয়মিত টহল কার্যক্রমের পাশাপাশি সকল প্রকার জনসচেতনতা সৃষ্টিমূলক কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আরো খবর...