কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের কাছে জেলাবাসীর স্বার্থে ৭ দফা দাবি জানালেন বিএনএফ নেতৃবৃন্দ

জেলাবাসীর স্বার্থে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের কাছে ৭ দফা দাবি জানালেন বিএনএফ নেতৃবৃন্দ। বাংলাদেশ ন্যাশনালিষ্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ) কুষ্টিয়া জেলা শাখার চীফ কো-অডিনেটর বিশিষ্ট সাংবাদিক শামসুল আলম স্বপন, বিএনএফ’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোশাররফ হোসেন হুজুর, বিএনএফ’র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আসাদুল হক, সহ-প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক কাজী সোহান শরীফের নেতৃত্বে বিএনএফ’র একটি  প্রতিনিধি দল গতকাল রবিবার সকালে কুষ্টিয়া সার্কিট হাউজে জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেনের সাথে সাক্ষাৎ করে জেলাবাসীর স্বার্থে ৭ দফা দাবি নামা পেশ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: আজাদ জাহান, ডিডি এলজি মৃণাল কান্তি, এনডিসি এ বি এম আরিফুল ইসলাম। ৭ দফা দাবি পড়ে জেলা প্রশাসক বিএনএফ নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন- প্রতিটি দাবি ন্যায় সংগত । তিনি পর্যায়ক্রমে দাবিগুলো বাস্তবায়ন করার প্রতিশ্র“তি দেন। বিএনএফ নেতৃবৃন্দও জেলা প্রশাসকসহ তার সংশ্লিদের ধন্যবাদ জানান। বিএনএফ’র ৭ দফা দাবি : ১. কুষ্টিয়া ২৫০ বেড হাসপাতালের রুগী ও আগত মানুষের সুপেয় পানির জন্য একটি বিশুদ্ধ পানির “ওয়াটার প্লান্ট” স্থাপন করতে হবে। ২. কুষ্টিয়া জেলখানা মোড়ের পশ্চিম পার্শ্বে হর্টিকালচার সেন্টারের সামনে ভিআইপি সড়ক থেকে ডাষ্টবিন অপসারণ করতে হবে। ৩. অবৈধ কোচিং সেন্টার বন্ধ করতে হবে। ৪. সরকার ইন্টারনেটের বিল অর্ধেক করলেও কুষ্টিয়ার ইন্টারনেট ব্যবসায়ীরা আগের মতই গ্রাহকদের কাছ থেকে জোর পূর্বক পুরা বিল আদায় করছে। জনস্বার্থে ওই সব ইন্টারনেট ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। ৫. সন্ধ্যার পর কোন শিক্ষার্থী যাতে লেখাপড়া ফাঁকি দিয়ে পাড়ায়-মহল্লায় আড্ডা না দিতে পারে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে হবে। ৬. যে সকল ছেলে-মেয়েরা  স্কুল কলেজ ফাঁকি দিয়ে জেলার দর্শনীয় স্থান ও পার্ক সমুহে আড্ডা কিংবা অসামাজিক কাজে লিপ্ত হয় জনস্বার্থে সেই সব ছেলে- মেয়েদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। ৭. কুষ্টিয়াকে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিমুক্ত করতে হবে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আরো খবর...