কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ভূয়া র‌্যাব গ্রেফতার

নিজ সংবাদ ॥ র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জঙ্গী, অস্ত্র, নাশকতা, অপহরণ, ডাকাতি, দস্যুতা, সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র, অর্থ জালিয়াতি ও বড় ধরণের মাদক চোরাচালান সহ চাঞ্চল্যকর ও গুরুত্বপূর্ণ সকল অপরাধ নিয়ে ধারাবাহিকভাবে কাজ করে উপরোক্ত সকল অপরাধ দমনে পারদর্শিতা প্রদর্শন করে জনমনে স্বস্তি আনয়ন ও আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে। কিছু অসাধু ব্যক্তি/সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র এলিট ফোর্স এর মত সু-সজ্জিত ও শৃংখলাপূর্ণ বাহিনীর নামে ভূয়া পরিচয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেয় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এ সকল অসাধু সংঘবদ্ধ চক্রটিকে আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া এর একটি বিশেষ টিম গোয়েন্দা নজরদারী ও টহল অব্যাহত রাখে। এরই ধারাবাহিকতায় গোয়েন্দা তথ্যের সূত্র ধরে র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার স্বজল কুমার সরকার জানতে পারেন যে, একটি অসাধু প্রতারক চক্রের সদস্য কথিত সার্জেন্ট আব্দুস সালাম (৬২), ২৭ বেঙ্গল, রেজিমেন্ট, র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-১২ এর উদ্ধর্তন অফিসার পরিচয়, ভূয়া র‌্যাব আইডিকার্ড প্রদর্শন করে প্রায় ৩০/৪০ জন ব্যক্তির নিকট হতে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন ব্যক্তির/প্রতিষ্ঠানের নিকট থেকে প্রতারণা করে বিকাশের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ এবং মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান’কে ঢেউটিন, সিমেন্ট, ইট, সাইকেল দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করে তাদের নিকট হতে কৌশলে অর্থ হাতিয়ে নেয়। এরইপ্রেক্ষিতে র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্প প্রায় ১০/১৫ টি লিখিত এবং মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল ২৮ ফেব্র“য়ারি কুষ্টিয়ার খোকসা থানাধীন বুজরুক মির্জাপুর গ্রামস্থ জনৈক আব্দুর রব বিশ^াস (বাদশা মাষ্টার) এর নিজ বাড়ীর পশ্চিম অংশে ভাড়াদেয়া টিনশেড বিল্ডিং এর দক্ষিণ দুয়ারি আসামীর নিজ শয়ন কক্ষে সময় অনুমান রাত ২টায় অভিযান পরিচালনা করে ভূয়া র‌্যাব সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান (৬২), পিতা-মৃত আছির উদ্দিন মোল্ল্যা, মাতা-মৃত দুদু বিবি, সাং-আন্দলবাড়ীয়া, থানা-জীবননগর, জেলা-চুয়াডাঙ্গা, বর্তমান ঠিকানা- বুজরুক মির্জাপুর গ্রামস্থ আব্দুর রব বিশ^াস (বাদশা মাস্টার) এর বসত বাড়ীর ভাড়াটিয়া, থানা- খোকসা, জেলা-কুষ্টিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীর দখল হইতে ভূয়া র‌্যাব ভিজিটিং কার্ড ২টি, প্রতারণার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ১টি, সীমকার্ড ২টি, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী রেশন সার্টিফিকেট ১টি, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি ২টি সহ উদ্ধর করা হয়। উদ্ধারকৃত আলামতসহ কুষ্টিয়া জেলার খোকসা থানায় মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

আরো খবর...