কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় শিশুসহ ৪জন নিহত

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ায় পৃথম সড়ক দূর্ঘটনায় শিশুসহ ৪জন নিহত হয়েছে। সকালে কুষ্টিয়া-ঈশ্বরদী মহাসড়কের তালবাড়ীয়া পুলিশ ক্যাম্পের সামনে বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ট্রাকের দুই ড্রাইভার নিহত হয়। এ দূর্ঘটনায় আরো অন্তত ১০জন আহত হয়। স্থানীয় ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়। কুষ্টিয়া ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আলী সাজ্জাদ জানান, কুয়াকাটা থেকে পিকনিকের একটি বাস পাবনা ফিরছিলো। এসময় তালবাড়ীয়া পুলিশ ক্যাম্পের সামনে বগুড়া থেকে নড়াইলগামী একটি ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে করে ট্রাকের চালক নাবিল হোসেন ও হেলপার ইব্রাহিম হোসেন ঘটনাস্থলেই মারা যান। এসময় বাসের কয়েকজন আহত হয়। তাদের কয়েকজনকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি। এছাড়াও কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল এলাকার কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কে গাড়ি চাপায় এক শিশু নিহত হয়। দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে ওই দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুর নাম মীম(৬)। সে বটতৈল নতুন পাড়া এলাকার আব্দুল গফুরের মেয়ে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের এস আই জুলহাস উদ্দিন জানান, শিশুটি রাস্তা পার হওয়ার সময় বেপোরোয়া গতির একটি হায়েস মাইক্রোবাস শিশুটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। তবে ঘাতক গাড়িটি আটক করা সম্ভব হয়নি। নিহত শিশুর লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ। অপর সড়ক দূর্ঘটনায় রাত সাড়ে ৮টার দিকে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের মোল্লাতেঘরিয়া এলাকায় এক মোটরসাইকেল ও যাত্রী বাসের সংঘর্ষে কুষ্টিয়া সদও উপজেলার হররা মেটনের মোঃ লাভলু নামে এক মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়। কুষ্টিয়া মডেল  থানার ওসি(অপারেশন) মামুনুর রশিদ স্থানীয়দেও বরাত দিয়ে জানান, একটি যাত্রীবাহী বাস মোটর সাইকেল আরোহীকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা তার নাম লাভলু জানালেও তার বাবার নাম পরিচয় এখনো জানা সম্ভব হয়নি।

আরো খবর...