কুষ্টিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ এবং আইনী সহায়তা বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

গতকাল নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে কুষ্টিয়া জেলায়  নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ এবং আইনী সহায়তা বিষয়ক কর্মশালা, সকাল ১০টায় চিলিস ফুড পার্কে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মুুুুুুুুুুুুুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা, নির্বাহী পরিচালক, জাতীয় নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ফেরামের সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ আরা বেগম। ধারনাপত্র পাঠ করেন তুহিন সুলতানা, প্রোগাম সমন্বয়কারী, জাতীয় নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ফোরাম। প্রধান অতিথি হিসাবে কর্মশালা উদ্বোধন করেন জেলা আাইনজীবি সমিতির সভাপতি  এ্যাড: অনুপ কুমার নন্দী। অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় মহিলা সংস্থার সভাপতি কুষ্টিয়া ও কলকাকলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জেব-উন- নেসা সবুজ, সাংবাদিক মিজানুর রহমান লাকী, নুরুন নাহার বেগম, সিনিয়ার প্রোগ্রাম অফিসার, এ্যাকশন এইড বাংলাদেশ, আসমা আক্তার মুক্তা, নির্বাহী পরিচালক, রাসিন, ফরিদপুর, মো: আসাদুজ্জামান, নির্বাহী পরিচালক মানব উন্নয়ন কেন্দ্র (মউক), খালেকুজ্জামান, প্রজেক্ট অফিসার, দি ল্যাপ্রসি মিশন বাংলাদেশ, আজাহারুল ইসলাম, আইন কর্মকর্তা, ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার, এ্যাড: আব্দুর রশিদ রানা, জজ কোর্ট, কুষ্টিয়া, এস এম কাদেরী শাকিল, সহ-সভাপতি, কুষ্টিয়া চেম্বার অবকমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি, সালমা সুলতানা, নির্বাহী পরিচালক, নিকুশিমাজ, কুষ্টিয়া, ফেরদৌস আরা রুবী, নির্বাহী পরিচালক নিকুঞ্জ, দিশা সংস্থার  এ্যাড: কামরুন্নাহার ময়না, জেলা প্রতিনিধি, ব্র্যাক, কুষ্টিয়া, মোতাহার হোসেন, সাংবাদিক ইব্রাহিম খলিল, ব্লাস্টের প্রতিনিধি শেখ ইসতিয়াক, আব্দুর রাজ্জাক, সাধারন সম্পাদক মানবাধিকার সংরক্ষন পরিষদ।  আলোচকগন বলেন সকল নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান এবং আইনের সমান আশ্রয় লাভের অধিকারী। ধনী-দরিদ্র নারী-পুরুষ সকলেই সমান। নাগরিকের অধিকার ও কর্তব্য নিরুপন করে আইনী প্রতিকার দেওয়া। পিতৃতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থার কারনে নারী ও কন্যা শিশুর মানবাধিকার লংঘিত হচ্ছে। নারী ও শিশু নির্যাতন এতো ভয়াবহ মাত্রায় আসার একটা অন্যতম কারন বিচার না হওয়া। বিচারিক প্রক্রিয়ার দীর্ঘসুত্রিতা, অপরাধীরা যদি সাজা পেত তাহলে নারীর প্রতি সহিংসতা কমে আসতো নারীর অধিকার রক্ষা করা সম্ভব হতো। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন এ্যাড: শামিমা আক্তার বন্যা, জজ কোর্ট, কুষ্টিয়া, আলো সংস্থার প্রতিনিধি মেঘ,  মানবাধিকার সংরক্ষন পরিষদের সভাপতি উৎপল কুমার সেনগুপ্ত, মুকুল খসরু, সভাপতি, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা, কুষ্টিয়া,  এডিডির প্রতিনিধি কহিনুর খাতুন ও আইনী সহায়তা প্রাপ্ত ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তিগন। সভায় সঞ্চালকের দ্বায়িত্ব পালন করেন মুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার কর্মসূচী সমন্বয়কারী জায়েদুল হক মতিন ও প্রশিক্ষক সমন্বয়কারী কাজী শফি উল্লাহ। সার্বিক সহযোগিতা করেন মুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার আহসান হাবীব রিপন, নুরুন্নাহার বেগম ও শ্যামলী খাতুন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আরো খবর...