কুষ্টিয়ায় নতুন করে আরো ৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত 

এখন পর্যন্ত জেলায় মৃতের সংখ্যা ১৯, পজেটিভ ৮৮৯

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরে ৩৯ জনকে করোনা পজিটিভ বলে সনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে কুষ্টিয়ায় এখন পর্যন্ত ৮৮৯ জন কোভিড রোগী সনাক্ত হল। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সিভিল সার্জন অফিস থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়- কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে বৃৃৃহস্পতিবার ৩২৮ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে কুষ্টিয়ার ১৭৭ টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ৩৯ জনকে করোনা পজিটিভ বলে সনাক্ত করা হয়েছে। এছাড়া কুমারখালীর  ও দৌলতপুরের ১ টি করে নমুনার রিপোর্ট ফলোআপ পজেটিভ। নতুন আক্রান্তের মধ্যে কুষ্টিয়া  জেলার দৌলতপুরে ২ জন, ভেড়ামারায় ১ জন, সদরে ১৬ জন , মিরপুরে ২ জন , কুমারখালী ১৮ জন। কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় আক্রান্ত ১৬ জনের ঠিকানা জুগিয়া ১ জন, থানাপাড়া ২ জন, কাস্টমস মোড় ১ জন, পূর্ব মজমপুর ১ জন, চৌড়হাস ১ জন, আমলাপাড়া ১ জন, কমলাপুর ১ জন, শিমুলিয়া ১ জন, বাড়াদি ১ জন, হাউজিং ১ জন, কালিশংকরপুর ১, গোসালা রোড ১, মঙ্গলবাড়িয়া ২ জন, কবুরহাট ১ জন। দৌলতপুর উপজেলায় আক্রান্ত ২ জনের ঠিকানা দৌলতপুর ১ জন, কল্যাণপুর ১জন। মিরপুর উপজেলায় আক্রান্ত ২ জনের ঠিকানা খন্দকবাড়িয়া।  ভেড়ামারা উপজেলার আক্রান্ত ১ জনের ঠিকানা ভেড়ামারা। কুমারখালি উপজেলার আক্রান্ত ১৮ জনের ঠিকানা মহেন্দ্রপুর ১ জন, কামারকান্দি ১ জন, বাটিকামড়া ১ জন,  ছেউড়িয়া ১ জন, নগরসাওতা চাপড়া ৪ জন, গোপগ্রাম ১ জন, তেবাড়িয়া ১ জন, অগ্রণী ব্যাংক ৩ জন, আগারকুন্ড ১ জন, হাসিমপুর ১ জন,  শেরকান্দি ২ জন, হাউজিং এ ব্লক ১ জন (অবস্থান কুমারখালি)। নতুন আক্রান্তের মধ্যে পুরুষ ২৯ জন, মহিলা ১০ জন। কুষ্টিয়ায় এখন পর্যন্ত ৮৮৯ জন কোভিড রোগী সনাক্ত হল। (বহিরাগত বাদে)। উপজেলা ভিত্তিক রোগী সনাক্ত:- দৌলতপুর ১১০,  ভেড়ামারা ৯০, মিরপুর ৫১, সদর ৪৮৩, কুমারখালী ১২৪,  খোকসা ৩১। মোট পুরুষ রোগী ৬৪৪, নারী ২৪৫ জন। সুস্থ হয়ে ছাড় পেয়েছেন মোট ৪২১ জন। উপজেলা ভিত্তিক সুস্থ ৪১৯ জন ( দৌলতপুর ৬১, ভেড়ামারা ৬৪, মিরপুর ৩২, সদর ১৯১, কুমারখালী ৫১, খোকসা ২০)। বহিরাগত সুস্থ ২ জন। বর্তমানে  হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ৪১১ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৩৮ জন। মৃত -১৯ জন (কুমারখালী -৪, দৌলতপুর-১, ভেড়ামারা-১, কুষ্টিয়া সদর ১৩ )। মৃত পুরুষ ১৫, মহিলা ৪ জন। সর্বসাধারণের প্রতি অনুরোধ করে কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডাঃ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, আপনারা আতংকিত না হয়ে সতর্কতা অবলম্বন করুন। ঘরে থাকুন, বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হবেন না। বার বার সাবান দিয়ে হাত ধৌত করুন। যত্রতত্র কফ, থুতু ফেলবেন না। হাঁচি, কাশি দেয়ার সময় টিস্যু  পেপার, রুমাল, বাহুর ভাঁজ ব্যবহার করুন ও ব্যাবহৃত টিস্যু ঢাকনাযুক্ত ডাষ্টবিনে ফেলুন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। একে অপরের থেকে কমপক্ষে ৬ ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন ও মাস্ক ব্যবহার করুন।

আরো খবর...