কুষ্টিয়ায় চাঁদাবাজির অভিযোগে সাবেক ছাত্রনেতা পল্লব আটক

বাঁচাতে ততপর দলের কয়েকজন নেতা

নিজ সংবাদ ॥ নানা অপকর্মে জড়িত ছাত্রলীগের সাবেক নেতা আমিনুর রহিম পল্লবকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার সকালে শহরের এনএস রোড থেকে পল্লবকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। এরপর তাকে মডেল থানায় পাঠানো হয়। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, দখলসহ নানা অভিযোগ ছিল।

কুষ্টিয়া মডেল থানা সুত্র জানায়, থানাপাড়া এলাকার বাসিন্দা আমিনুর রহিম পল্লব আওয়ামী লীগ নেতাদের নাম ভাঙ্গিয়ে নানা অপকর্ম করে আসছিল। টেন্ডারবাজি, বাজার নিয়ন্ত্রণ ছাড়া লোকজনকে হয়রানী করে অর্থ আদায় করে আসছিল। এসব অভিযোগের সত্যতা পেয়ে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল শহরের এনএস রোড থেকে তাকে আটক করে।

কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন,‘ চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগে পল্লবকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।’

আমিনুর রহমান পল্লব ছাত্রলীগের সাবেক নেতা। বর্তমানে কোন পদ-পদবি না থাকলেও কয়েকজন নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে দীর্ঘদিন নানা অপকর্ম করে আসছিলেন। তার অপকর্মে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিলেন সাধারন মানুষ। সব জানলেও ভয়ে কেউ মুখ খুলতে পারছিলেন না।

এদিকে পল্লব আটক হওয়ার পর ভুক্তভোগীরা যাতে মামলা না করতে পারে সে জন্য হুমকি দেয়া হচ্ছে। কয়েকজনের বাড়িতে তার ক্যাডাররা গিয়ে মামলা দিলে ও বাড়াবাড়ি করলে পরিণতি ভাল হবে না বলেও হুমকি দিয়ে আসছে। পল্লবের অপকর্মের অন্যতম হোতা পরিমল থিয়েটার দখলকারি শেখ আবু তাহের সবাইকে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আবু তাহেরের সাথে কথা হলে জানান, আমি থানায় গিয়েছিলাম। তবে কাউকে হুমকি-ধামকি দিইনি। এদিকে পুলিশ পল্লবকে সাথে নিয়ে পরিমল টাওয়ারে অবস্থিত তার ব্যক্তিগত অফিসে তল্লাশী চালায়। সেখান থেকে কোন কিছু উদ্ধার হয়নি।

আরো খবর...