কুষ্টিয়ায় ওজনে কম দেওয়ায় ব্যবসায়ীর কারাদন্ড ও জরিমানা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া শহরের বড়বাজারের আব্দুল আজিজের ছেলে ব্যবসায়ী নাজমুল আলম নয়নকে ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগে কারাগারে প্রেরণ  ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। ঘটনার বিষয়ে কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরী জানান, সদর উপজেলায় প্রথম ধাপে ৫হাজার ৪শত অসহায় মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দেয়ার জন্য অন্যান্য জিনিসের সাথে প্রতি জনকে ৩  কেজি আলু ও ১ কেজি করে ডাল সরবরাহ ও  প্যাকেট করার দায়িত্ব দেয়া হয় বড়বাজারের নয়ন স্টোরকে। শুক্রবার দুপুরে সরেজমিনে কাজ তদারকি করতে গিয়ে দেখা যায়  প্রতি  কেজি ডালে ১০০ গ্রাম ও  প্রতি ৩ কেজি আলুতে ২০০ গ্রাম করে কম দেয়া হচ্ছে। অধিক মুনাফা লাভের আশায় এটি ইচ্ছে করেই করছেন বলে স্বীকারোক্তি দেন ব্যবসায়ী নয়ন। ঘটনাস্থলে তার বাবা, বাজার কমিটির সভাপতি সহ অন্যান্য লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

বিষয়টি নিয়ে সাধারণ মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এই মহামারী করোনা ভাইরাসে দেশের মানুষ অসহায় ভাবে দিন পার করছে। অসহায় মানুষকে সহায়তা করতে ইউএনও যে উদ্যোগ গ্রহন করেছে তাকে সাধুবাদ জানিয়েছে বিজ্ঞ মহল। সেই সাথে নয়নের শাস্তি দাবি করেন। তাৎক্ষণিক ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরী নয়ন  স্টোরকে জরিমানাসহ  মালিক নয়নকে কারাদন্ড প্রদান করেন। ওজনে কম দেয়ার অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৪৬ ধারায় আসামীকে ৩ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আরো খবর...