কুমারখালীতে কাঁচা বাজার ও মাছ বাজার স্থানান্তর

বাজারে মানুষের ভীড় কমাতে

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে উপজেলা কমিটির জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ সভায় কুমারখালী পৌরসভার মেয়র মো. সামছুজ্জামান অরুণ, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর আলম, মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. শাহজাহান আলী মোল্লা, বুলবুল টেক্সটাইল ইন্ডা: লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুর রফিক বিশ্বাস, রানা টেক্সটাই ইন্ডা: লি: এর পরিচালক মাসুদ রানা সহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি-সাধারন সম্পাদক ও সাংবাদিকেরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে বাজারে ক্রেতা সাধারণের জমায়েত কমাতে পৌর কাঁচা বাজার, মাছ বাজার ও তরুণ মোড়ের সকালের অস্থায়ী বাজারের স্থান পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। কাঁচা বাজার এম, এন পাইলম মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলবে। মাছের বাজার পশুহাটের নির্ধারিত জায়গায় সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলবে। তরুণ মোড়ের অস্থায়ী কাঁচা বাজার মাছের বাজার বাটিকামার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সকাল  ৬টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত চলবে। এ সকল দোকান কমপক্ষে ৬ ফুট দুরত্বে বসবে। সেই সাথে বাজারের সকল মুদি দোকান, সার-বীজ, গো-খাদ্যের দোকান ও কাঁচা বাজার দুপুর ১টার মধ্যে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ ছাড়াও বাহিরের কোন ভ্যান, অটোরিক্সা কুমারখালী শহরে প্রবেশ করতে পারবে না। তবে কাঁচা মালবাহি ভ্যান বা পরিবহন, রোগী বহনকারী যানবাহন, বা জরুরী প্রয়োজনে ব্যবহৃত যানবাহন যাতায়াত করবে। সেই লক্ষ্যে শহরে প্রবেশের সকল সড়কে অস্থায়ী ভিত্তিতে গ্রাম পুলিশ-আনসার সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবী  দায়িত্ব পালন করবে। উল্লেখ্য, শুধুমাত্র ঔষুধের দোকান ২৪ ঘন্টা খোলা থাকবে।

আরো খবর...