কুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণ

কুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণকুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণকুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণকুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণকুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণকুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণকুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণকুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণ কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের শিশু-কিশোর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রীসহ অটোভ্যান বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতীত) শীর্ষক কর্মসূচীর আওতায় কুমারখালী উপজেলার আদিবাসী কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতি ও বাংলাদেশ হরিজন ঐক্য পরিষদের অনুকুলে বরাদ্দকৃত অর্থে এই শিক্ষা বৃত্তিসহ শিক্ষা-স্বাস্থ্য উপকরণ ও ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সমাজ সেবা অধিদপ্তর কুষ্টিয়ার উপ পরিচালক রোকসানা পারভীন, সহকারি কমিশনার (ভুমি) মুহাম্মদ নূর-এ আলম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: আকুল উদ্দিন। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান। আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে জেলা প্রশাসক আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের ১৩৯ জন শিশু-কিশোর শিক্ষার্থীদের (প্রাক-প্রাথমিক থেকে উচ্চশিক্ষা) হাতে শিক্ষাবৃত্তি’র নগদ অর্থসহ শিক্ষা উপকরণ, স্বাস্থ্য উপকরণ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী তুলে দেন। এ অনুষ্ঠান শেষে আদিবাসী ও হরিজন সম্প্রদায়ের কর্মজীবী সদস্যদের হাতে অটোভ্যানের (১০টি) চাবি তুলে দেন। এ ছাড়াও আদিবাসী কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতির সদস্যদের উন্নয়নে তাদের নিজস্ব জায়গায় ৫টি টিনসেড দোকান ঘর নির্মাণের জন্য ৬ লক্ষ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

আরো খবর...