‘কিমের নির্দেশে করোনা রোগীকে গুলি করে হত্যা’

বিনোদন বাজার ॥ উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের নির্দেশেই দেশটির এক করোনাভাইরাস রোগীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এমন অভিযোগ করে সম্প্রতি খবর প্রকাশ করেছে সিঙ্গাপুরের এক সংবাদ সংস্থা। ওই খবরের শিরোনামে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার প্রথম নোভেল করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ আক্রান্তকে গুলি করে হত্যা। সিঙ্গাপুরের সংস্থাটি তাদের প্রতিবেদনে এক টুইটার অ্যাকাউন্টের কথা উল্লেখ করে জানিয়েছে, তারা ওই অ্যাকাউন্ট থেকে তথ্যটি পেয়েছে। তবে ওই অ্যাকাউন্টের সত্যতা সম্পর্কে কিছু জানানো হয়নি। সিঙ্গাপুরের ওই সংবাদ সংস্থা ছাড়াও দক্ষিণ কোরিয়ার একটি মিডিয়া রিপোর্টে উত্তর কোরিয়া যে করোনা-রোগীকে গুলি করে হত্যা করেছে তা দাবি করেছে। তারা জানিয়েছে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র জানিয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণ সন্দেহে এক ব্যবসায়ীকে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছিল। কিন্তু তিনি নিয়ম মানেননি। তখন কিম প্রশাসন ওই ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করে। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি উত্তর কোরিয়ায় করোনাভাইরাস আক্রান্তে সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে খবর চাউর হয়। সেসময় উত্তর কোরিয়ার সূত্রের বরাত দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার দৈনিক ডং-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় চিকিৎসককে না জানিয়ে ওই ব্যক্তি গণশৌচাগারে গিয়েছিলেন। শৌচাগার থেকে বের হলেই গ্রেফতার হন তিনি। এরপর করোনাভাইরাস বিস্তারের আশঙ্কায় ওই ব্যক্তিকে সঙ্গে সঙ্গে গুলি করে হত্যা করা হয়। নিহত ব্যক্তি উত্তর কোরিয়ার ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সিতে কাজ করেছিলেন। সম্প্রতি তিনি চীন থেকে দেশে ফিরেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়। এবার কিমের নির্দেশেই সেই হত্যাকান্ড চালানো হয়েছে বলে প্রতিবেদন এলো।

আরো খবর...