কলকাতার প্রেক্ষাগৃহে বাংলাদেশি জ্যোতির ‘রাজলক্ষ্মী-শ্রীকান্ত’

বিনোদন বাজার ॥ আগামী ২০ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে যাচ্ছে বিখ্যাত কথাসাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের শ্রীকান্ত উপন্যাস অবলম্বনে প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের পরিচালনায় ‘রাজলক্ষ্মী-শ্রীকান্ত’ সিনেমা। সিনেমাটিতে শ্রীকান্ত চরিত্রে কাজ করেছেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী। আর তার বিপরীতে রাজলক্ষ্মী চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। এর মধ্য দিয়েই ওপার বাংলার চলচ্চিত্রে অভিষেক হচ্ছে তার।২০১৭ সালে ওপার বাংলার ‘বাকিটা ব্যক্তিগত’ খ্যাত পরিচালক প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য পরিচালনায় শুরু হয় ‘রাজলক্ষ্মী-শ্রীকান্ত’ সিনেমার কাজ। ‘বাকিটা ব্যক্তিগত’র পর এটি তার দ্বিতীয় সিনেমা। প্রায় দুই বছর পরে চলতি বছরের ১৬ আগস্ট সিনেমার ছবিটির মোশন পোস্টার অবমুক্ত করা হয়। আর প্রতীক্ষিত সেই সিনেমার মুক্তি সামনে রেখেই ব্যস্ত সময় পার করছে জ্যোতিকা জ্যোতি। হাতে নেননি অন্য কোনো কাজ।ওপার বাংলার চলচ্চিত্রে কাজ করাটা একেবারেই ব্যক্তিগত যোগাযোগ থেকে উল্লেখ করে তিনি জানান, বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় যারা কাজ করতে আসে, বেশিরভাগ সময়ই তারা হয়তো কোন প্রোডাকশনের ব্যানার বা যৌথ প্রযোজনায় কাজ করে থাকেন। তবে আমার ক্ষেত্রে ব্যাপারটা আলাদা। একটি শর্ট ফিল্মে কাজের মাধ্যমে প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের সঙ্গে পরিচয়। সেখানেই তিনি ছবির প্রস্তাবটা দেন।ঋত্বিক চক্রবর্তীর বিপরীতে কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পর্কে তিনি জানান, ঋত্বিক খুব সিম্পল। তার প্রেজেন্টেশন, কথা বলা, চলাফেরা সবকিছু। আমি যখন অভিনয় করেছি, আমার মনে হয়নি এটা ঋত্বিক চক্রবর্তী। আমার কাছে শ্রীকান্তই মনে হচ্ছিলো।

এর আগে, ১৯৮৭ সালে শরৎচন্দ্রের শ্রীকান্ত উপন্যাস ‘রাজলক্ষ্মী-শ্রীকান্ত’ চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছিলেন বুলবুল আহমেদ। শ্রীকান্ত চরিত্রে অভিনয়েও ছিলেন তিনি। তার বিপরীতে রাজলক্ষ্মী হয়েছিলেন শাবানা।

আরো খবর...