কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ১০ দিনের ছুটির সাথে দিলেন চাল, ডাল সবজিসহ ১০দিনের বাজার

কুষ্টিয়ায় ব্যবসায়ীর মহতি উদ্যোগ

নিজ সংবাদ ॥ আজ ২৬ মার্চ থেকে সারা দেশের সব কিছু আগামী ১০দিনের জন্য বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ঘরে থাকার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কথা মাথায় রেখে কুষ্টিয়ার এক ব্যবসায়ী নিয়েছেন ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। ১০দিনের জন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পাশাপাশি তার প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীর জন্য চাল-ডাল, তেলসহ কাঁচা বাজারের ব্যবস্থা করেছেন। যাতে এ সময়টাতে তাদের কোন সমস্যায় পড়তে না হয়।

কুষ্টিয়া শহরের উপজেলা রোড এলাকায় ইজিবাইক, মটর সাইকেলসহ পাটর্সের ব্যবসা করেন আসাদুর রহমান নামের এক ব্যবসায়ী। তার প্রতিষ্ঠানের নাম এ আর মটরস। করোনার বিস্তার রোধে সরকার থেকে ২৬ মার্চ থেকে সবকিছু লকডাউন ঘোষনা করেছে। তাই তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।  তার প্রতিষ্ঠানে দিন হাজিরাসহ বেতনে কাজ করে শতাধিক কর্মচারী। তাই গতকাল (২৫ মার্চ) তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১১০জন কর্মকর্তা-কর্মচারী, নৈশপ্রহরীকে প্রত্যেককে চাল ও ডাল কেনার জন্য মাথাপিছু ৩ হাজার নগদ টাকা, পাশাপাশি ৫ কেজি আলু, ৩ কেজি পেপে, লাউ, বেগুন, ডাটা শাক, টমেটো ও কাঁচকলা দেয়া হয়েছে। যাতে এ সময়টাতে তারা ও তাদের পরিবারের সদস্যরা কষ্ট না পায়। সকালে পৌরবাজার থেকে সবিজ কিনে আসার পর কারখানার কর্মচারীরা তা প্যাকেট করে। পরে প্রত্যেকের হাতে তুলে দেয়া হয় এসব বাজার। এরপর তাদের ছুটি দেয়া হয়। বাজার পেয়ে খুশি হন প্রত্যেকে। কর্মচারী টুটুল বলেন,‘ ব্যবসা তেমন বড় না হলে প্রতিষ্ঠানের মালিকের মন অনেক বড়। তাই তিনি সব সময় তাদের খোঁজ খবর রাখেন। করোনার কারনে প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তাই সবার জন্য চাল,ডাল ও বাজারের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। আমরা মহান আল্লাহর দরবারে তার ও তার পরিবারের সদস্যদের জন্য দুআ করছি।’ এআর মটরর্সের কর্মকর্তা সৌরভ জানান, ছুটির সময়ে তাদের কোন কর্ম থাকবে না। তাই প্রতিষ্ঠানের মালিক নিজ উদ্যোগে সবার জন্য চাল,ডাল ও সবজি বাজার করে দিয়েছেন। অনেকে দিন হাজির স্টাফও ছিল। তারা অন্তত ভাল থাকতে পারবে পরিবার নিয়ে। প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আসাদুর রহমান বলেন,‘ সীমাবদ্ধতা থাকলেও সবার কথা মাথায় রেখে সামান্য কিছু করার চেষ্টা করেছি। কারণ তারা আমার পরিবারের সদস্য। আমি ভাল-মন্দ খাবো আর তারা উপোষ থাকবে তা তো হয়। তাই তো তাদের ১০দিনের বেশি সময়ের জন্য বাজার করে দিয়েছি। প্রতিষ্ঠান খুললে তারা কাজে যোগ দিবে।

আরো খবর...