করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কুষ্টিয়ার সাবেক এনডিসি জালাল সাইফুর রহমানের মৃত্যু

স্ত্রী ও ছেলে আইসোলেশনে

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার সাবেক এনডিসি জালাল সাইফুর রহমান আর আমাদের মাঝে নেই। ঢাকার কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গতকাল সোমবার ভোর ৪টায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে–রাজেউন)। একজন ভাল মানুষ হিসেবে কর্মক্ষেত্রের সব স্থানেই তিনি যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখে  গেছেন। তিনি বিসিএস (প্রশাসন) ২২ব্যাচে উপ-সচিব হিসেবে বর্তমানে দুদক প্রধান কার্যালয়ে পরিচালক (প্রশাসন) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জালাল সাইফুর রহমানের স্ত্রী ও একমাত্র ছেলে উভয়ে আইসোলেশনে আছে।  একমাত্র পুত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষে অধ্যায়নরত। জালাল সাইফুর রহমান গত ২২মার্চ হাসপাতালে ভর্তি হন। ১৪ দিন পর তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বিষয়টি ধরা পড়ে। হাসপাতালে ভর্তির পর থেকেই তাঁর অবস্থা অপরিবর্তিত থাকে। গত ৪ দিন লাইফ সাপোর্টে থাকার পর গতকাল তিনি আমাদের মাঝ থেকে বিদায় নিলেন।

২০০৯ সালের দিকে তিনি কুষ্টিয়ায় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট হিসেবে যোগদান করেন। পরে তিনি এনডিসির দায়িত্ব পান। এনডিসি থাককালিন সময়ে তিনি কুষ্টিয়া উল্লেখযোগ্য এবং বড় ধরনের মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়েছিল। একজন সৎ, যোগ্য ও ত্বরিতকর্মা কর্মকর্তা হিসেবে নিজের যোগ্যতার প্রমান রেখে গেছেন। তিনি কুষ্টিয়া থেকে সিনিয়র সহকারী কমিশনার হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে প্রথমে রাঙ্গামাটি জেলার বরকল উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তি সময়ে তিনি নোয়াখালীর কবিরপুর উপজেলার ইউএনও  ছিলেন। জালাল সাইফুর রহমান ২০১৬ সালের শেষের দিকে দুদক প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (প্রশাসন) দায়িত্ব গ্রহন করেন। পরে উপসচিব হিসেবে পদোন্নতি পাওয়ায় তিনি দুদকের পরিচালক (প্রশাসন) হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন শেষ সময় পর্যন্ত। তিনি পরিবার নিয়ে ঢাকা শহরের গ্রীন রোড হাতিরপুর এলাকায় থাকতেন। গতকাল দুপুরের পর লাশের জানাজা হয় স্বল্প সংখ্যক মানুষের অংশগ্রহনে। পরে খিঁলগাও গোরস্থানে খুবই সতর্কতার সাথে তাঁর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। জালাল সাইফুর রহমানের মৃত্যুতে কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব ও দৈনিক আন্দোলনের বাজার পত্রিকার পক্ষ থেকে শোকপ্রকাশ করা হয়েছে। আন্দোলনের বাজার পত্রিকার সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলু মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেছেন সেই সাথে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।

আরো খবর...