করোনা দুর্যোগকালীন সময়ে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ার দিকে নজর রাখতে হবে

নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের মাঝে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি বাদশা

শরীফুল ইসলাম ॥ কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আ. কা. ম. সরওয়ার জাহান বাদশা করোনা দূর্যোগকালীন সময়ে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ার দিকে নজর রাখার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, শুধু ঘরে বসে থেকে সময় নষ্ট না করে লেখা-পড়ায় মনোনিবেশ করতে হবে। প্রত্যেক অভিভাবক ও শিক্ষকদের নিজ সন্তান ও শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া করছে কিনা সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। তিনি বলেন, মানুষের প্রতি ভালবাসা ও দায়িত্ববোধ রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। সেই দায়িত্ববোধ ও সতর্কতার সাথে করোনার মত পরিস্থিতি মোকাবেলা করছেন তিনি। নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি যোগ্যতার ভিত্তিতে এমপিও হয়েছে, কারো পিছে দৌড়াতে হয়নি। আর এমপিও করানোর জন্য কারো পিছে দৌড়ানোরও দরকার নেই। পরীক্ষায় ভাল রেজাল্ট করে যোগ্যতার প্রমান দিন আপনার প্রতিষ্ঠান যোগ্যতার ভিত্তিতেই এমপিও হবে। এমপি বাদশা ননএমপিও শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন- এই দূর্যোগকালীন সময়ে ননএমপিও শিক্ষকদের জীবনযাত্রা সহজ ও স্বাভাবিক রাখতে প্রধানমন্ত্রী অর্থ সহায়তা দিয়েছেন। একমাত্র নেতা শেখ হাসিনা তিনি যা বলেন সে কাজটিও তিনি করেন। তাই আপনাদেরও নিজ দায়িত্বে নিজ নিজ কাজটি সততা ও দক্ষতার সাথে করতে হবে। গতকাল রবিবার বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদ কনফারেন্স রুমে করোনা ভাইরাসের কারনে নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অনুকুলে প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দের অর্থের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি বাদশাহ এসব কথা বলেন। দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন। এসময় উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমান, দৌলতপুর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনালী খাতুন আলেয়াসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা। চেক বিতরণ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন দৌলতপুর মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সর্দার মো. আবু সালেক। দৌলতপুর উপজেলার ৫৫১জন নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের অনুকুলে ৬৬ লক্ষ টাকার চেক বিতরণ করা হয়।

আরো খবর...