কপাল পুড়ল মেসি-রোনালদোর

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥  করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে চলতি বছর বড় কোনো ফুটবল টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। ফলে ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার-২০২০ বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে ইতালির শহর মিলানে বসার কথা ছিল এবারের ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কাররের জমকালো আসর। কিন্তু করোনা সব ভেস্তে দিল। তার মানে চলতি বছর লিওনেল মেসি কিংবা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পক্ষে ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার হওয়ার কোনো সুযোগ থাকল না। বয়স ও ফর্ম বিবেচনায় এবারের পুরস্কার দুজনের কাছেই আলাদা গুরুত্ব পাওয়ার কথা ছিল। বিশেষ করে রোনালদোর কাছে। কারণ বয়স আর বাড়তে থাকা প্রতিযোগী। অন্যদিকে মেসি বর্তমান মুকুটধারী। এবারও তার জেতার সম্ভাবনাই বেশি ছিল। কারণ করোনা হানার আগ পর্যন্ত দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন বার্সা অধিনায়ক। টানা পুরস্কার জেতার সুযোগ হাতছাড়া হওয়ায় মেসিরই তাই বেশি কষ্ট পাওয়ার কথা। মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকেই খেলা বন্ধ রাখা নিয়ে নিজের অবস্থান পরিস্কার করেছেন ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফাস্তিনো। তার মতে, খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা সবার আগে। এরইমধ্যে অনূর্ধ্ব-২০ এবং অনূর্ধ্ব-১৭ নারী বিশ্বকাপ ২০২১ সালের ফেব্র“য়ারি পর্যন্ত পিছিয়ে দিয়েছে ফিফা। ফিফার একমাত্র স্থগিত না হওয়া টুর্নামেন্ট হলো ক্লাব বিশ্বকাপ। চলতি বছরের ডিসেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবু ধাবিতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা এবারের আসর। ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার বাতিল করার সিদ্ধান্তকে যৌক্তিক হিসেবে দেখা হচ্ছে ফুটবলবিশ্বে। কারণ চলতি ফুটবল মৌসুম অনেক দেশ্রি বাতিল করা হয়েছে কিংবা স্থগিত রাখা হয়েছে। ফিফা প্রেসিডেন্ট মনে করেন, করোনায় জর্জরিত পৃথিবীতে কোনো এক সন্ধায় পুরস্কার বিতরণের নামে উদযাপন করাটা বেমানান। ফিফা পুরস্কারের মতো ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটও বাতিল হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। তবে এটা যেহেতু ফিফা’র এখতিয়ারে নেই। পিএসজির ফরাসি ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপ্পের মতো তরুণ ফুটবল তারকাদের জন্য বছরটা হতে যাচ্ছে হতাশার। যদিও মৌসুম বাতিল হওয়ায় লিগ ওয়ানের গোল্ডেন বুট তার হাতে উঠেছে এবং পিএসজিও শিরোপা ঘরে তুলেছে, তবু এবার ফিফা বর্ষসেরার পুরস্কার জেতার কোনো সুযোগ তো রইলো না। এদিকে বর্ষসেরার আরেক মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার ব্যালন ডি’অর নিয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানায়নি ফ্রান্স ফুটবল। ১৯৫৬ সাল থেকে প্রতিবছরই দেওয়া হচ্ছে এই পুরস্কার। সর্বশেষ রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো এই পুরস্কার ঝুলিতে পুরেছেন বার্সার আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসি। আগামী আগস্টে মোনাকোয় চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্র“প পর্বের ড্র ঘোষণার সময় উয়েফার পুরস্কার বিতরণ করার কথা। তবে পরের মৌসুম শুরু নিয়ে সংশয় থেকে যাওয়ায় এটা নিয়েও অনিশ্চয়তা আছে। যদিও অক্টোবর থেকে গ্র“প পর্ব শুরুর পরিকল্পনা করছে উয়েফা।

 

আরো খবর...