ওভারে ২৮ রান, লারা-বেইলির রেকর্ডে মহারাজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ ব্রায়ান লারা আর কেশভ মহারাজকে এমনিতে এক বন্ধনীতে রাখা মুশকিল। একজন সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান, আরেকজন বাঁহাতি স্পিনার, যিনি টুকটাক ব্যাটিং পারেন। অথচ ব্যাটিংয়ের একটি বিশ্বরেকর্ডে এই দুইজনের নাম এখন পাশাপাশি! টেস্টে এক ওভারে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ডে লারা ও জর্জ বেইলির সঙ্গে নাম লিখিয়েছেন মহারাজও। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে হেরে যাওয়া পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টের শেষ সময়ে সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকাকে খানিকটা বিনোদনের উপলক্ষ্য এনে দেন মহারাজ। ইংলিশ অধিনায়ক জো রুটের ওভারে পরপর তিন বলে মারেন বাউন্ডারি, পরের দুই বলে ছক্কা। ওভারের শেষ বলটিতে ব্যাট ছোঁয়াতে পারেননি মহারাজ, তবে গ¬াভসে জমাতে পারেননি কিপার জস বাটলারও। বাই থেকে আসে আরও চার, ওভার থেকে আসে মোট ২৮ রান! তাতেই মহারাজ ও দক্ষিণ আফ্রিকার নাম উঠে যায় রেকর্ড বইয়ে। যে পাতায় আগে থেকেই জ্বলজ্বল করছে লারা ও বেইলির নাম। ওই দুজনের সৌজন্যেও এক ওভার থেকে এসেছিল ২৮ রান। দুজনের কারও ক্ষেত্রে ছিল না অন্য কোনো ব্যাটসম্যান কিংবা অতিরিক্ত রানের অবদান। ২০০৩ সালে জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁহাতি স্পিনার রবিন পিটারসনের এক ওভারে চারটি চার ও দুই ছক্কায় ২৮ নিয়েছিলেন লারা। পরে ২০১৩-১৪ অ্যাশেজের পার্থ টেস্টে লারাকে স্পর্শ করেন বেইলি। জিমি অ্যান্ডারসনের ওভারে অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ছক্কা মেরেছিলেন তিনটি, চার দুটি। আর এক বলে এসেছিল দুই রান। রেকর্ডের দুইয়ে আছেন শহিদ আফ্রিদি ও পাকি¯Íান। ২০০৬ সালে লাহোরে ভারতের হরভজন সিংয়ের ওভারে প্রথম চার বলেই ছক্কা মেরেছিলেন আফ্রিদি। লারার রেকর্ড তখন ছিল প্রবল হুমকিতে। ওভারের পঞ্চম বলে আফ্রিদি নিতে পেরেছিলেন ২ রান, শেষ বলে কেবল সিঙ্গেল। ওভার থেকে আসে ২৭ রান। টিকে যায় লারার রেকর্ড।

আরো খবর...