এরশাদের প্রতিকৃতিতে জাপার শ্রদ্ধা

ঢাকা অফিস ॥ সাবেক রাষ্ট্রপতি ও দলের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা। গতকাল মঙ্গলবার সকালে রাজধানী কাকরাইলে জাপার দলীয় কার্যালয়ের সামনে স্থাপিত এরশাদের প্রতিকৃতিতে প্রথমে শ্রদ্ধা জানান দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ। এরপর জাপা চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের পক্ষে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা। এসময় বাবলার সঙ্গে ছিলেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা জহিরুল আলম রুবেল, সিনিয়র যুগ্ন-মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, যুগ্ম-সাংগঠনিক সম্পাদক শারফুদ্দিন আহমেদ শিপু, সাংবাদিক সুজন দে, যুগ্ম-প্রচার সম্পাদক শেখ মাসুক রহমান প্রমুখ। পরে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় পার্টি, জাতীয় যুব সংহতি, জাতীয় ছাত্র সমাজ, স্বেচ্ছাসেবক পার্টি, মহিলা পার্টি, কৃষক পার্টি, শ্রমিক পার্টি, সার্ক কালচারাল সোসাইটিসহ জাপার বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে এরশাদের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়। এসময় উপস্থিত সাংবাদিকদের সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বলেন, প্রয়াত নেতা পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ শুধু বাংলাদেশের গণমানুষের নেতা ছিলেন না, তিনি ছিলেন আধুনিক বাংলাদেশের উন্নয়নের রূপকার। তিনি যেমন রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষণা করেছেন, শুক্রবার সরকারি ছুটি দিয়েছেন ঠিক তেমনি শ্রীকৃঞ্চের জন্মাষ্টমীতে সরকারি ছুটি ও হিন্দু, বৌদ্ধ খ্রিস্টান কল্যাণ ট্রাস্টও গঠন করে এদেশে সকল মানুষের সমান অধিকার তা নিশ্চিত করেছিলেন। তার স্বপ্ন ছিল একটি ক্ষুধা-দারিদ্র, বৈষম্যহীন দুনীর্তিমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করা। আমৃত্যু তিনি সেজন্য কাজ করে গেছেন। এদিকে এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাপার পক্ষ থেকে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে ও দিনব্যাপী কোরআন খতমের আয়োজন করা হয়। এ ছাড়া বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ তার বাস ভবনে এবং জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে বনানীর জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে ও প্রেসিডেন্ট পার্কে এরশাদ ট্রাস্টের পক্ষ থেকে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। উল্লেখ্য গত বছরের এই দিনে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। দিনটিকে শোক দিবস হিসেবে পালন করছে জাপার নেতাকর্মীরা।

আরো খবর...