ইসলাম-ক্রিকেটকে একসঙ্গে মেলাবেন না ঃ আমলা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ক্রিকেট বিশ্বে যেসব ধর্মভীরু মুসলিম ক্রিকেটার রয়েছেন তন্মধ্যে অন্যতম দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ক্রিকেটার হাশিম আমলা। মাঠে ও মাঠের বাইরে যথাযথভাবে ইসলামের নিয়ম কানুন পালন করেন তিনি। যে কারণে প্রায়ই তাকে বাঁকা কথা শুনতে হয়। নিজের খেলায় ইসলামের প্রভাব নিয়েও একাধিকবার প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে ৩৬ বছর বয়সী ব্যাটসম্যানকে। প্রথমবারের মতো বিপিএলে খেলতে এসেছেন আমলা। খুলনা টাইগার্সের হয়ে মাঠ মাতাবেন তিনি। দলটির পক্ষে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে খেলতে এসেও এ নিয়ে প্রশ্নের সম্মুক্ষীণ হতে হলো তাকে। সাবলীলভাবে সরল-সহজ ভাষায় এর উত্তর দিয়েছেন তিনি। প্রথমেই ইসলামের সঙ্গে ক্রিকেটকে মেলাতে নিষেধ করেন প্রোটিয়া ক্রিকেটার। আমলা বলেন, ক্রিকেট খেলায় ধর্ম কিভাবে সহায়তা করে এ বিষয়ে আমাকে অসংখ্যবার প্রশ্ন করা হয়েছে। ইসলাম খুবই সহজ। এর মূল বিষয়গুলো কমবেশি প্রতিটি মুসলিম জানেন। তবে এগুলো ব্যাখ্যা করা কঠিন। ক্রিকেটের সঙ্গে একে মেলানো উচিত নয়। ইসলাম-ক্রিকেটের সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্নকে অদ্ভুত আখ্যা দেন আমলা। খেলার সঙ্গে ধর্মকে মেশাতে চান না তিনি। বরং এ নিয়ে কথা না বলে অনুশীলনে বেশি জোর দেয়ার পক্ষে ডানহাতি ব্যাটার। আমলার কথায়, কিছু মানুষ জিজ্ঞেস করে ইসলাম কিভাবে ক্রিকেটকে সাহায্য করে। আমার মতে, এটা অদ্ভুত প্রশ্ন। খেলায় নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করি। মাঠে ইসলাম আমাকে সাহায্য করল কি-না, তা নিয়ে মাথা ঘামাই না। যতটা সম্ভব একজন ক্রিকেটারকে অনুশীলন করতে হয়। বিশ্বকাপের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিয়েছেন আমলা। বিশেষত দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট ও ওয়ানডে দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন তিনি। টি-টোয়েন্টিতেও ব্যাট হাতে নিজের সামর্থ্যরে জানান দিয়েছেন মুসলিম বংশোদ্ভূত ক্রিকেটার। এখন পর্যন্ত ১৫৪টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ১২৬ স্ট্রাইক রেটে ৪২৮৪ রান করেছেন আমলা। তার নামের পাশে রয়েছে ২৭টি হাফসেঞ্চুরি ও ২টি সেঞ্চুরি। তাকে নিয়ে নিজেদের ব্যাটিং শক্তি ও গভীরতা বাড়িয়েছে মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বাধীন খুলনা।

আরো খবর...