আলমডাঙ্গা থানার আইন শৃঙ্খলা উন্নয়নে ওপেন হাউজ ডে ও মতবিনিময় সভা

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা থানা চত্বরে রবিবার বিকালে আইন শৃঙ্খলার উন্নয়ন বিষয়ে ওপেন হাউজ ডে ও এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ৷ আলমডাঙ্গা থানা আয়োজিত ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠানে আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুন্সি আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) কানাইলাল সরকার৷ আলমডাঙ্গা থানা আয়োজিত  ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠানে উপস্থিত গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের নিকট থেকে আইন শৃঙ্খলার উন্নয়নে পুলিশের আচার-আচরন, তাদের ভূমিকা, এলাকাবাসীর সুবিধা-অসুবিধাসহ বিভিন্ন অভিযোগের উম্মুক্ত মতামত শুনার পরে সুন্দরভাবে সমাধান তুলে ধরেন আলমডাঙ্গা থানার ওসি আসাদুজ্জামান।  আলমডাঙ্গা থানার ওসি তদন্ত শেখ মাহবুবুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি কানাইলাল সরকার বলেন মদ-গাঁজা-হিরোইন-ইয়াবার মতো মরণনেশার টাকা জোগাড় করতে গিয়েই ছিনতাই, চুরি-ডাকাতি, সন্ত্রাসী কার্যকলাপ এর মত ঘটনার সৃষ্টি হচ্ছে ৷ তাই যারা মাদক সেবন ও বিক্রির সাথে জড়িত, তাদের আপনারা ধরিয়ে দেন। তিনি আরও বলেন আপনাদের ব্যক্তিগত স্বার্থে কেউ কারও নামে হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা করলে সেটা মিথ্যা প্রমানিত হলে শাস্তি প্রদান করা হবে ৷ বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে পিতা-মাতার সচেতনতা বাড়াতে হবে৷ ইভটিজিং বিষয়ে অভিভাবকেরা নিজেদের বিপদগামী সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে৷ সন্তানদের আবদার রাখতে দামী দামী এন্ড্রোয়েট ফোন কিনে দিয়ে তাদের সর্বনাশ করবেন না ৷ এদানিং  অত্রাঞ্চলে আত্মহত্যার প্রবনতা লক্ষনীয় ৷ আত্মহত্যা মহাপাপ এবং বড় ধরনের অপরাধ৷ আইনে আছে আত্মহত্যা করতে গিয়ে কেউ বেঁচে গেলে তার ৩ বছরের জেল হবে ৷ এছাড়াও তিনি বলেন বাংলাদেশ পুলিশ যদি জঙ্গিবাদ দমন করতে পারে, তাহলে মাদক, সন্ত্রাস চুরি, ছিনতাই ঘটনাকেও রোধ করতে পারবে । আইনশৃঙ্খলার অবনতি কোন ক্রমেই ঘটতে দেওয়া যাবেনা । আর এই জন্য সকলকে সচেতন হয়ে এক সাথে মিলে-মিশে কাজ করতে হবে । অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আলমডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ লিটন আলী, আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পৌর মেয়র আলহাজ্ব হাসান কাদীর গনু,  জেলা ইউপি চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি হারদী ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, আলমডাঙ্গা চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি কাউছার আহম্মদ বাবলু, সম্পাদক নুরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাষ্টার, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শফিউর রহমান জোয়ার্দার, সাবেক পৌর কমান্ডার আলহাজ্ব শেখ নুরমোহাম্মদ জকু, ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আমিরুল ইসলাম মন্টু, লুৎফর রহমান, প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মন্টু, সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা হামিদুল ইসলাম আজম ৷ এ ছাড়াও অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য ও পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু মুছা, সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য আসাহাবুল হক ঠান্ডু, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃশাহাবুদ্দিন, এ্যাডঃ নাশির উদ্দিন মঞ্জু, নাজিম উদ্দিন, শওকত আলী, আব্দুল জব্বার, মনিন্দ্র নাথ দত্ত, ওমর ফারুক, ওয়াজেদ আলী মাষ্টার, ইমদাদুল হক, আইনদ্দিন, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম মন্ডল, আবু তাহের আবু, নবনির্বাচীত ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম বিপ¬ব, মোস্তাফিজুর রহমান রুন্নু, আমিনুল ইসলাম রোকন, বিআরডিবি চেয়ারম্যান মহিদুল ইসলাম মুহিত, আবু সাইদ পান্টু, আওয়ামীলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান চঞ্চল, পরিমল কুমার ঘোষ কালু, জেলা যুবলীগের সদস্য পৌর কাউন্সিলর মতিয়ার রহমান ফারুক, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি নয়ন সরকার, সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ।

আরো খবর...