আভিশকা-মেন্ডিসের সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কার সিরিজ জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ পরপর দুই বলে উইকেট হারানোর অস্বস্তি উড়িয়ে দুই ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি! শুরুর ধাক্কা সামলে আভিশকা ফার্নান্দো ও কুসল মেন্ডিস খেললেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। গড়লেন রেকর্ড জুটি। তাতে যে উচ্চতায় উঠল শ্রীলঙ্কার ইনিংস, ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেল না তার নাগাল। লঙ্কানরা সিরিজ জিতে নিল দুই ম্যাচেই। সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৬১ রানে উড়িয়ে দিয়েছে শ্রীলঙ্কা। রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে প্রথম ম্যাচে লঙ্কানরা জিতেছিল ১ উইকেটে। হাম্বানটোটায় বুধবার ১২৩ বলে ১২৭ করেছেন আভিশকা, মেন্ডিসের ব্যাট থেকে এসেছে ১১৯ বলে ১১৯। শ্রীলঙ্কা ৫০ ওভারে তোলে ৮ উইকেটে ৩৪৫। ক্যারিবিয়ানদের ইনিংস শেষ হয়ে গেছে ১৮৪ রানেই। অথচ ম্যাচের শুরুটা দারুণ করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে টস জিতে বোলিংয়ে নামে তারা। ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই শেলডন কটরেল ধরেন জোড়া শিকার। লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারতেœ ক্যাচ দেন পয়েন্টে। শততম ওয়ানডেতে কুসল পেরেরা প্রথম বলেই ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে। আভিশকা ও মেন্ডিসের জুটি সেখান থেকেই। শুরুতে মেন্ডিস একটু নড়বড়ে ছিলেন। ২ রানে জীবন পেয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড সহজ ক্যাচ ছাড়ায়। পরাস্ত হয়েছেন কয়েকবার। তবে সময়ের সঙ্গে খুঁজে পান ছন্দ। আভিশকা শুরু থেকেই ছিলেন স্বচ্ছন্দ। দুর্দান্ত সব শটে ক্রমে দুজন বাড়িয়েছেন রানের গতি। ক্যারিবিয়ানদের বোলিং ছিল এলোমেলো, ফিল্ডিং যাচ্ছেতাই। দুই লঙ্কান ব্যাটসম্যান তুলেছেন ফায়দা। দুজনেই পেয়েছেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। প্রায় একই গতিতে এগিয়েছেন দুজন। ৫৬ বলে ফিফটি ছুঁয়েছেন আভিশকা, ৫৫ বলে মেন্ডিস। ১০৭ বলে সেঞ্চুরিতে পৌঁছেছেন মেন্ডিস, ১০৯ বলে আভিশকা। দুজনের বিদায়ও ছিল কাছাকাছি সময়ে। আলজারি জোসেফকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ১১৯ রানে মেন্ডিসের বিদায়ে ভেঙেছে জুটি। তবে ২৩৯ রানের সেই জুটি ততক্ষণে জায়গা পেয়ে গেছে রেকর্ড বইয়ে। তৃতীয় উইকেটে শ্রীলঙ্কার সেরা জুটি এটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে যে কোনো উইকেটেই লঙ্কানদের সেরা জুটি। জোসেফ পরে ফিরিয়েছেন আভিশকাকেও। সহজ ক্যাচ ছাড়ার পরের বলে ক্যাচ নিয়েছেন কিমো পল। শেষদিকে প্রত্যাশিতভাবেই ঝড় তুলেছে লঙ্কানরা। থিসারা পেরেরা ২৫ বলে করেছেন ৩৬। ভানিদু হাসারাঙ্গা করেছেন ১০ বলে ১৭, ইসুরু উদানা ৯ বলে ১৭। শেষ ১০ ওভারে এসেছে ৯৯ রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান তাড়ার শুরুটায় ছিল ম্যাচ জমিয়ে তোলার ইঙ্গিত। শেই হোপ ও সুনিল আমব্রিস উদ্বোধনী জুটিতে তোলেন ৬৪ রান। আমব্রিসের রান আউটে এই জুটি ভাঙার পর তারা উইকেট হারিয়েছে নিয়মিত। আর কোনো জুটি ৪০ ছুঁতেও পারেনি। আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান হোপ এবার করেছেন ইনিংসের একমাত্র ফিফটি। লেগ স্পিনার হাসারাঙ্গা ও চায়নাম্যান লাকশান সান্দাক্যানের সামনে মুখ থুবড়ে পড়ে ক্যারিবিয়ানদের ব্যাটিং লাইন আপ। খেলতে পারেনি তারা ৪০ ওভারও। সিরিজের শেষ ওয়ানডে রোববার, পাকেলেতে। সংক্ষিপ্ত স্কোর: শ্রীলঙ্কা: ৫০ ওভারে ৩৪৫/৮ (আভিশকা ১২৭, করুনারতেœ ১, কুসল পেরেরা ০, কুসল মেন্ডিস ১১৯, থিসারা ৩৬, ম্যাথিউস ১, ধনাঞ্জয়া ১২, হাসারাঙ্গা ১৭, উদানা ১৭*; কটরেল ১০-০-৬৭-৪, হোল্ডার ৮-০-৫৯-০, জোসেফ ১০-০-৫৭-৩, অ্যালেন ৬-০-৩৭-০, পল ৭-০-৬২-০, চেইস ৬-০-৩১-০, পোলার্ড ৩-০-২৯-০)। ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৩৯.১ ওভারে ১৮৪ (হোপ ৫১, আমব্রিস ১৭, ব্রাভো ১৬, চেইস ২০, পুরান ৩১, পোলার্ড ০, হোল্ডার ৩, পল ২১, অ্যালেন ১৭, জোসেফ ০, কটরেল ০* ; প্রদিপ ৬-০-৩৭-২, থিসারা ৫-০-১৮-০, উদানা ৪-০-২১-০, ম্যাথিউস ৫-০-২০-১, হাসারাঙ্গা ১০-০-৩০-৩, সান্দাক্যান ৯.১-০-৫৭-৩)। ফল: শ্রীলঙ্কা ১৬১ রানে জয়ী সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে শ্রীলঙ্কা ২-০তে এগিয়ে ম্যান অব দা ম্যাচ: আভিশকা ফার্নান্দো

আরো খবর...