অন্তসত্বার পেটে লাথি মেরে আহত করেছেন পাষন্ড কিরন মৃধা

থানায় মামলা দায়ের

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহের ট্রাক চালক নাসির উদ্দিনের সাথে ৮ বছর আগে বিয়ে হয় বালিয়াশিসার মৃত মজনু শেখের  কন্যা তানিয়া খাতুনের (২৫)। দীর্ঘদিন তাদের সন্তান না হওয়ায় ডাক্তার কবিরাজের কাছে চিকিৎসা করে এবার তানিয়ার ৭মাসের অন্তসত্বা হয়। সন্তান আগমন উপলক্ষে বেশ আনান্দে আল্লাদে ছিল তানিয়া ও নাসিরের পরিবার। জানা যায়, গত শুক্রবার পাষন্ড বাড়ীর মালিক কিরন মৃধা বেলা ১০টার সময় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় দরিদ্র ট্রাক চালক নাসিরের অন্তসত্বা স্ত্রীকে বেধড়ক মারধর করে গুরুতর আহত করে। তানিয়ার স্বামী নাসির বলেন, পাষন্ড বাড়ীর  মালিক কিরনের নির্যাতনে আমার অন্তসত্বা স্ত্রী অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে তার পেটে  লাথি মারে। এসময় তানিয়ার শরীরে বিভিন্ন জায়গায় যখম হয়ে রক্ত ঝরতে থাকে। এসময় স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় তানিয়াকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে সজ্ঞাহীন অবস্থায় ভর্তি করে। এ ব্যাপারে তানিয়ার স্বামী নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে মিরপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন ধারায় মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-১৫। এদিকে অন্তসত্বার উপর এমন অমানবিক নিষ্ঠুর নির্যাতন করায় এলাকাবাসী হতবাক। অন্তসত্বা তানিয়ার স্বামী ন্যায় বিচার দাবী করেন।

আরো খবর...