গাংনীতে ধর্ষণের চেষ্টাকারীদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউনিয়নের বাওট গ্রামে এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাকারীদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ১০টার দিকে মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কের বাওট সোলাইমানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসি।

জানা যায়, গত শনিবার দুপুরের দিকে বাওট সোলাইমানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে জোরপূর্বক একটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে নাহিদ হোসেন ও রাফিদ হোসেন নামের দু’বন্ধু। নাহিদ বাওট সোলাইমানিয়া মাধ্যমিক  বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র ও বাওট গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে এবং রাফিদ একই বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র ও বাওট গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে। এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, নাহিদ ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে তার বন্ধু রাফিদ-এর বাড়ির একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। সুযোগ বুঝে রাফিদও ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছিল। এ সময় ওই ছাত্রীর চিৎকারে আশে-পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে নাহিদ ও রাফিদ পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে শনিবার রাতে গাংনী থানায় দু’বন্ধুর নামে একটি অভিযোগ দায়ের করেন ছাত্রীটির বাবা। ধর্ষণের চেষ্টাকারী নাহিদ ও রাফিদের বিচারের দাবীতে গতকাল রোববার সকালে মানববন্ধন করে তার সহপাঠিসহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসি।

ঝিনাইদহে ২ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীসহ ৬৬ জন গ্রেফতার, বোমা উদ্ধার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহে পুলিশের অভিযানে ১ জামায়াত ১ শিবিরসহ ৬৬ জন গ্রেফতার, বোমা ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার রাত থেকে রোববার সকাল পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস জানান, জেলা ব্যাপী মাদক ও নাশকতা বিরোধী বিশেষ অভিযান চালানো হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে শনিবার রাত থেকে রোববার সকাল পর্যন্ত সদর থানা থেকে ৩০, শৈলকুপা থেকে ৭ জন, হরিণাকুন্ডু থেকে ৪, কালীগঞ্জ থেকে ৫, কোটচাঁদপুরে ১ জামায়াতসহ ৬ ও মহেশপুরে ১ শিবিরসহ ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ সময় সদরের কেশবপুর থেকে নাশকতার পরিকল্পনা করার সময় কোরবান আলীর কাছ থেকে ৬টি হাতবোমা উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে বেশ কিছু মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

 

প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে অবদান

কুষ্টিয়ার শিলাইদহ ইউপি’র চেয়ারম্যান জেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যোসাহী সমাজকর্মী মনোনীত

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে অবদান রাখায় কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার শিলাইদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: সালাহ্ উদ্দিন খান তারেক জেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যোৎসাহী সমাজকর্মী মনোনীত হয়েছেন। গত ১৯ সেপ্টেম্বর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আনন্দ কিশোর সাহা স্বাক্ষরিত জেলার সম্ভাব্য শ্রেষ্ঠ শিক্ষক/শিক্ষিকা, বিদ্যালয়, ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণের তালিকায় শ্রেষ্ঠ বিদ্যোৎসাহী সমাজকর্মী হিসাবে শিলাইদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: সালাহ্ উদ্দিন খান তারেক মনোনীত হয়েছে।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তরফদার সোহেল রহমানের কার্যালয়ে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০১৮ প্রদান উপলক্ষে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক/শিক্ষিকা, বিদ্যালয়, ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণের শ্রেষ্ঠত্ব নির্বাচনের জন্য তথ্য প্রামানক সহ স্বাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হয়। এর আগে মো: সালাহ্ উদ্দিন খান তারকে কুমারখালী উপজেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যোৎসাহী সমাজকর্মী মনোনীত হন।  উল্লেখ্য, শিলাইদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: সালাহ্ উদ্দিন খান তারেক প্রাথমিক শিক্ষার মনোন্নয়নে নিজ প্রচেষ্টায় শিলাইদহ ইউনিয়নের ১১টি বিদ্যালয়ে ব্যাপক অবদান রাখেন। প্রাথমিক শিক্ষার মনোন্নয়নে তিনি- মা সমাবেশ, অভিভাবক সমাবেশ, এসএমসি’র সদস্যদের সাথে মতবিনিময়, মিড ডে মিল চালু, শিক্ষার্থীদের মাঝে টিফিন বক্স বিতরণ, শিক্ষাউপকরন বিতরন, স্কুল ড্রেস বিতরণ, ক্যাব ড্রেস বিতরণ, ক্যাব কমিটি গঠন, নির্বাচিত স্টুডেন্ট কাউন্সিল সদস্যদের সাথে মতবিনিময়, ক্ষুুদে ডাক্তারদের সাথে মতবিনিময়, ক্ষুদের ডাক্তারদের ড্রেস বিতরণ, ১১টি বিদ্যালয়ে বৈদ্যতিক সিলিং ফ্যান বিতরণ, স্কুলের মাঠের উন্নয়ন, স্কুলের জলাশয় ভরাট, শিক্ষকদের সাথে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নে মতবিনিময় করেছেন।  এছাড়াও ঝড়ে পড়ারোধে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময়সহ নদীর তীরবর্তী দুর্গম এলাকার হতদরিদ্র শ্রেণীর মানুষের সাথে মতবিনিময় এবং খোরশেদপুর বাজার সংলগ্ন এলাকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠি তথা আদিবাসি সম্প্রদায়ের পরিবারের সদস্যদের সাথে মতবিনিময় কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

 

আজ দুপুরে শেষকৃত্যানুষ্ঠান

এ্যাডঃ প্রনতি কুমার বিশ্বাস আর নেই

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া জজ কোর্টের এ্যাডভোকেট ও কুষ্টিয়ার কাগজের আইন উপদেষ্টা, মোজেজ বিশ্বাসের পিতা ও  প্রবীণ আইনজীবি এ্যাডঃ প্রনতি কুমার বিশ্বাস আর নেই। গতকাল দুপুর ১টার দিকে ব্রেন ষ্ট্রোক করে তিনি কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্ব্যকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন, গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। এ্যাডঃ প্রনতি কুমার বিশ্বাস ১৯৩৭ সালে কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার আল্লারদর্গায় জন্মগ্রহণ করেন। এর পর কলকাতা সেন্ট জনস্ স্কুল থেকে লেখাপড়া শেষ করেন। পরে স্বাধীনতা উত্তোর তিনি কুষ্টিয়া ডিসি কোর্টে চাকরী নেন। স্বাধীনতা পরবর্তি কুষ্টিয়া ল কলেজ থেকে আইন পাশ করেন। ১৯৮১ সালে তিনি কুষ্টিয়া জজ কোর্টে আইনপেশায় নিয়োজিত হন। ব্যক্তিজীবন এ্যাডঃ প্রনতি কুমার বিশ্বাস দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তানের জনক। ডিসি কোর্টে চাকরী করাকালীন তিনি শহরের কানাবিলের মোড় সংলগ্ন জমি কিনে‘ নিরালায়” বসবাস শুরু করেন। গত কয়েক বছর আগে তিনি কানাবিলের মোড়ের বাড়ী বিক্রি করে কুষ্টিয়া শহরের থানাপাড়া ছয়রাস্তা মোড় সংলগ্ন পলান বক্স লেনের বাইলেন গোলাম মোহাম্মদ সড়কে একটি বাড়ী ক্রয় করে সেখানে বসবাস শুরু করেন। ব্যক্তি জীবনে এ্যাডঃ প্রনতি কুমার বিশ্বাস ছিলেন একজন সৎ-পরোপকারী, মিষ্টভাষী, নিভৃতচারী মানুষ। তার সততা ও নিষ্ঠার জন্য অতি অল্পদিনের মধ্যেই তিনি কুষ্টিয়া জজ কোর্টে সিভিল মামলায় বেশ সুনাম অর্জন করেন। কুষ্টিয়া কেন্দ্রীয় গীর্জা কমিটিতে তিনি দীর্ঘদিন সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তাঁর মৃত্ব্যতে আইনজীবি অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে আসে। গতকাল তাঁর মৃত্ব্যর সংবাদ ছড়িয়ে যাওয়ার পর আইনজীবি, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, বুদ্ধিজীবি, সাংস্কৃতিক কর্মিসহ বিভিন্ন পেশাজীবির মানুষ তার মরদেহ দেখতে থানাপাড়াস্থ বাড়ীতে ভিড় জমায়। পরিবারকে শান্তানা দিতে ছুটে আসেন কুষ্টিয়া আইনজীবি সমিতির সভাপতি এ্যাডঃ সিরাজউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ নুরুল ইসলাম দুলাল, কুষ্টিয়া জজ কোর্টের পিপি এ্যাডঃ অনুপ কুমার নন্দী, বিশিষ্ট আবৃতিকার ও এ্যাডঃ রাজিব আহসান রঞ্জুসহ কুষ্টিয়া জজ কোর্টের বিভিন্ন আইনজীবিগণ। আজ সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া জজ কোর্টে সকল আইনজীবিগণ স্বার্গীয় এ্যাডঃ প্রনতি কুমার বিশ্বাসের কফিনে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাবেন। এর পর দুপুর ১২টায় কুষ্টিয়া কেন্দ্রীয় গীর্জায় প্রার্থনা শেষে কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের সামনে খ্রীষ্টান কবরস্থানে তার শেষ কৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন হবে।

কালুখালীতে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিশাল মিছিল

ফজলুল হক ॥ গতকাল শনিবার কালুখালীতে রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিমের পক্ষে বিশাল মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আশিক মাহমুদ মিতুলের প্রচেষ্টায় রাজবাড়ী-২ আসনের নির্বাচনী এলাকার কালুখালী উপজেলার যুবলীগ ও ছাত্রলীগের যৌথ আয়োজনে এ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের যুবলীগ ও ছাত্রলীগের তৃণমূল পর্যায়ের সহস্রাধিক নেতাকর্মীবৃন্দ বিকাল ৪টায় রতনদিয়া রজনীকান্ত মডেল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে একত্রিত হয়ে জিল্লুল হাকিমের পক্ষে নৌকার স্লোগানে কালুখালী (অরুণগঞ্জ) বাজারে বিশাল একটি মিছিল বের করে। মিছিলটি বাজারের বিভিন্ন অলিগলি প্রদক্ষিণ করে বাগপাড়া মোড় হয়ে কালুখালী ঐতিহ্যবাহী রেলস্টেশন চত্বরে গিয়ে মিলিত হয়ে এক পথসভার মধ্যদিয়ে সমাপ্ত করে। পথসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন রাজবাড়ী জেলা পরিষদের সদস্য খায়রুল ইসলাম খায়ের, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক রাকিবুল ইসলাম লাবু, মোঃ সোহেল আলী মোল্লা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ জাহিদুল ইসলাম সুমন, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান নুর রুকু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৌরভ প্রামানিক, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সফিকুল ইসলাম এছাড়াও যুবলীগের সদস্য জামির হোসেন জয়, মোঃ সেলিম উর রেজা, হাফিজুর রহমান লাল্টু, মোঃ পিকুল, মাইনুল ইসলাম হিমেল, শেখ মোহাম্মদ ফারুক, কালিকাপুর ইউপি যুবলীগের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সাবেক যুবলীগ নেতা আশরাফ সিদ্দিকী বাচ্চু, রতনদিয়া ইউপি ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ মোঃ রিপন, সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবি, বোয়ালিয়া ইউপি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হেদায়েতুল ইসলাম সোহাগ সহ উপজেলার বিভিন্ন নেতাকর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  পথ সভায় বক্তারা আগামী একাদশ সংষদ নির্বাচনে রাাজবাড়ী-২ আসনের বিভিন্ন উন্নয়নের রূপকার বলিষ্ঠ রাজনৈতিক নেতৃত্বের অধিকারী গণমানুষের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিমকে পুনরায় রাজবাড়ী-২ আসনের এমপি হিসেবে দেখতে চাই এবং নেতাকর্মীরা তার পক্ষে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে বলে বক্তব্য প্রদান করেন। মিছিলে নেতাকর্মীরা আবির মাখামাখি করে ব্যান্ডপার্টি সহ  জিল্লুল হাকিমের পক্ষে নৌকার স্লোগানে বাজার এলাকা মুখরিত করে তোলে।

গাংনীতে পরকিয়া প্রেমিক-প্রেমিকার রঙ্গলীলা দেখে ফেললো স্বামী

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার রামনগর কামারপাড়া গ্রামে প্রেমিক রতন আলীর সাথে প্রকাশ্য দিবালোকে অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকাবস্থায় স্বামীর হাতে ধরা পড়েছে বিপাশা ওরফে শিল্পী নামের এক গৃহবধূ। গত বুধবার সকাল ১১টার সময় উপজেলার রামনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিল্পী খাতুন রামনগর গ্রামের সুলতান হোসেনের স্ত্রী ও রতন আলী একই গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে। সুলতান হোসেন জানান- তার স্ত্রী শিল্পী খাতুন বাড়ির পার্শে একটি বাঁশবাগানের মধ্যে রতনের সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকাবস্থায় হাতে-নাতে ধরা হয় তাদের।  সাবেক ইউপি সদস্য পান্না জানান, অনৈতিক কর্মকান্ডের বিষয়ে সালিস বৈঠক বসানো হয়। বৈঠকে কোন সূরাহা হয়নি। সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে মাতব্বরদের দ্বারে-দ্বারে ঘুরছে। উভয় পরিবারকে বিষয়টা ভেবে দেখার জন্য গত শুক্রবার পর্যন্ত সময় দেয়া হয়েছিল। স্থানীয় আ.লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী বলেন- শিল্পী ও রতনের অনৈতিক কর্মকান্ডের সময় সুলতান তাদের হাতে-নাতে ধরে। পরে এ বিষয়টি জানাজানি হলে সালিস বৈঠক বসানো হয়। গত শুক্রবার এ বিষয়টি আবার বৈঠক বসানোর কথা থাকলেও অজ্ঞাত কারণে সালিস বৈঠক হয়নি। শনিবার বিকালে পুণরায় উভয় পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সমাধান করার জন্য বৈঠক বসানো হয়। শিল্পীর বরাত দিয়ে আ.লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী বলেন- শিল্পী বৈঠকে সবার কাছে বলেছেন যে রতনের সাথে তার দেড় বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, শিল্পী বলেছেন তার স্বামী সুলতান আলী যেহেতু আর নেবেনা। তাই তিনি রতনের সাথে বিয়ে দিতে সমাজপতিদের কাছে দাবি করেছেন। এছাড়া শিল্পী ও সুলতানের ঘরে ৪ বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। শিশু সন্তানের ভবিষ্যত নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছে  বৈঠকে উপস্থিত সদস্যরা। এ বিষয়ে কথা বলতে চাইলে শিল্পী তার নানা বাড়ি ব্রজপুরে রয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।শিল্পীর নানা বাড়ীতে গেলেও শিল্পী না থাকায় তার কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে দৌলতপুরে লাঠি খেলা ও গ্রামীণ মেলা

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ ১০ মহরম পবিত্র আশুরা উপলক্ষে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য লাঠি খেলা ও গ্রামীণ মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার সোনাইকুন্ডি বাজারে লাঠি খেলা ও গ্রামীণ মেলার আয়োজন করা হয়। লাঠি খেলায় বিভিন্ন এলাকার লাঠিয়াল দল তাদের লাঠি খেলা প্রদর্শন করে। আর এ খেলা দেখতে শিশু থেকে সব বয়সীরা ভিড় করে। মেলা উপলক্ষে দোকানীরা বা মৌসুমী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা হরেক রকম পসরা সাজিয়ে বসে এবং তা কিনতে ভিড় করে মেলায় আগত দর্শনার্থীরা। তবে লাঠি খেলা দেখতে আসা দর্শকরা এবং লাঠি খেলা প্রদর্শনকারীরা গ্রাম বাংলার এ ঐতিহ্য ধরে রাখতে পৃষ্ঠপোষকতার পাশাপাশি বেশী বেশী করে এ খেলার আয়োজন করার দাবি জানান।

ভেড়ামারার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ইতিহাস ও ঐতিহ্য ভিত্তিক ম্যাগাজিন প্রণয়ণের লক্ষ্যে সভা

আল মাহাদী ॥ কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ইতিহাস ও ঐতিহ্যভিত্তিক তথ্য সমৃদ্ধ ম্যাগাজিন (আর্কাইভ) প্রণয়ণের লক্ষ্যে শুক্রবার সকালে স্থানীয় বিজেএম কলেজ মিলনায়তনে একসভা অনুষ্ঠিত হয়। কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আসলাম উদ্দীনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ওই ইউনিয়নের কৃতিসন্তান ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ডক্টর এম আলাউদ্দীন। প্রভাষক সাইফুজ্জামান ফিরোজের সঞ্চালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) এর কর্মকর্তা ডক্টর অলীউল আলম, তাজউদ্দীন মাস্টার, আলহাজ্ব নূর মোহাম্মদ মাস্টার, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি মোফাক্কার হোসেন বাবুল, ফিরোজ কবীর, রুবেল মাহমুদ রতন, আক্তারুজ্জামান মুক্তার, রোকনুজ্জামান খোকন, আলহাজ্ব আবু বকর, সহকারী অধ্যাপক ফেরদৌস হোসেন মানিক, সহকারী অধ্যাপক মোঃ ফারুক হোসেন, প্রভাষক মিজানুর রহমান, প্রভাষক মাসুদ হাসান, প্রভাষক মোঃ সাইফুল ইসলাম, হাফিজুর রহমান আজাদ, আজমিরা শ্যামা, নেহেরুল ইসলাম, অঞ্জনউর রহমান প্রমুখ। সভা শেষে প্রফেসর ডক্টর এম আলাউদ্দীনকে প্রধান পৃষ্ঠপোষক, অধ্যক্ষ আসলাম উদ্দীনকে আহবায়ক, রতন মাহমুদ রতনকে সদস্য সচিব করে ‘আমরা বাহাদুরপুর ইউনিয়নবাসী’ নামে একটি কমিটি গঠন করা হয় এবং ফিরোজ কবীরকে সম্পাদনা পরিষদের প্রধান করে আর একটি সম্পাদনা পরিষদ গঠন করা হয়। সভায় ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে হযরত বাবা নফর শাহ্ মাজার থেকে তাজিয়া র‌্যালি

নিজ সংবাদ ॥ ১০ মহররম পবিত্র আশুরা উপলক্ষে, হযরত বাবা নফর শাহ্ (রঃ) মাজার প্রাঙ্গন থেকে এক তাজিয়া র‌্যালি বের করা হয়েছে। ২১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১০ টায় কুষ্টিয়া শহরের আড়–য়াপাড়াস্থ হযরত বাবা নফর শাহ্ (রঃ) মাজার প্রাঙ্গন থেকে এ তাজিয়া র‌্যালি বের করা হয়। কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এর মধ্যে র‌্যালিটি মীর মোশাররফ সড়ক হয়ে, পৌর গোরস্থানের সামনে দিয়ে পবিত্র বারো শরীফ দরবারে এসে, পবিত্র বারো শরীফ দরবার জিয়ারত করা হয়। এর পর র‌্যালিটি বক চত্বর হয়ে এন.এস রোড দিয়ে বড় বাজার রেল গেট হয়ে হযরত বাবা নফর শাহ্ (রঃ) মাজর প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে হযরত বাবা নফর শাহ্ (রঃ) এর ভক্তবৃন্দ ও আশেকান ধর্মপ্রাণ মুসলমান উপস্থিত ছিলেন। তাজিয়া র‌্যালির পরিচালনায় ছিলেন হযরত বাবা নফর শাহ্ (রঃ) মাজার এর খাদেম ওসমান গনি। তাজিয়া এ র‌্যালির সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও সহযোগিতা করেন হযরত বাবা নফর শাহ্ (রঃ) মাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ রেজাউল হক।

আলমডাঙ্গায় ভ্রাম্যমান আদালত

অসামাজিক কার্যকলাপের দায়ে ৪ জনকে জরিমানা

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গার একটি পার্কে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপের দায়ে ৪ জনকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। গতকাল শনিবার বেলা ২টার দিকে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজেষ্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিমা শারমীন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় অসামাজিক কার্যকলাপের দায়ে সোয়াদ পার্কের ম্যানেজার পার আলমডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে রফিকুল ইসলাম গফুর (৪০) কে ৫ হাজার টাকা, খেজুরতলা গ্রামের আমিরুল ইসলামের স্ত্রী শিলা খাতুন (২৭) কে ১ হাজার টাকা, মুন্সিগঞ্জ রেলপাড়ার আজমত আলীর ছেলে রাকিব আলী (২৫) কে ১ হাজার টাকা ও মুন্সিগঞ্জ গড়চাপড়ার রাজু আহমেদের স্ত্রী পাখী খাতুন (২০) কে ১ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা থানার এসআই নাজিমুদ্দিন, এএসআই শহিদুল ইসলাম, এএসআই মোস্তফা।

গ্রেনেড হামলার বিচার সরকারের ‘গাইডলাইনে’ – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ ২১ অগাস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার বিচারিক কার্যক্রম সরকারের ‘গাইডলাইন’ মেনে চলছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। গতকাল শনিবার দুপুরে নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই সংশয় প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, “আজ জনগণের মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে ২১ আগস্টের বোমা হামলার আইনি প্রক্রিয়া নিয়ে। আদালত দিয়ে প্রতিশোধ গ্রহণের রমরমা রাজনৈতিক সফলতায় ক্ষমতাসীনরা উল্লসিত। এই সরকারের গাইডলাইন অনুযায়ী ২১ আগস্ট মামলার বিচারিক কার্য্ক্রম চলছে কিনা তা নিয়ে জনগণের মনে বড় ধরনের সন্দেহ সৃষ্টি হয়েছে।” এই মামলার সম্পূরক অভিযোগপত্রে তারেক রহমানসহ বিএনপি নেতাদের জড়ানোর বৈধতা নিয়ে আবারও প্রশ্ন তুলে রিজভী বলেন, “১/১১ এর সরকার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নাম তদন্ত করে পেল না। আওয়ামী লীগ ২০০৯ সালে ক্ষমতায় এসে নজিরবিহীনভাবে তারেক রহমানকে ফাঁসানো জন্য নিজেদের দলের মনোভাবসম্পন্ন ব্যক্তিকে, যিনি কয়েকবছর আগে অবসরে গেছেন তাকে ডেকে নিয়ে এসে পদোন্নতি পর পদোন্নতি দিয়ে তারেক রহমানের নাম সম্পূরক অভিযোগপত্রে যুক্ত করা হয়েছে। ” আগামী ১০ অক্টোবর ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলায় রায় ঘোষণা করা হবে। কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে বিশেষায়িত হাসপাতালে নেওয়ার দাবি আবারো জানিয়ে রিজভী বলেন, “দেশনেত্রী হাত-পায়ের ব্যথা আরো তীব্র হয়েছে। শারীরিক অসুস্থতাকে আরো অবনতির দিকে ঠেলে দিতেই তাকে ইচ্ছাকৃতভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। অসুস্থতা লাঘবের জন্য বেগম খালেদা জিয়ার আস্থা হাসপাতাল  ও তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের উপেক্ষা করা হচ্ছে। খালেদার রোগ নির্ণয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ‘প্রস্থিসিস কমপেটিবল এমআরআই মেশিন’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল ইউনির্ভাসিটিতে (বিএসএমএমইউ) নেই দাবি করে তিনি বলেন,  “ইউনাইটেড হাসপাতাল অথবা অন্য বিশেষায়িত হাসপাতালে এটা রয়েছে, বিএসএমএমইউতে নেই।… সুতরাং দেশনেত্রীর যথাযথ চিকিৎসার জন্য বিশেষায়িত হাসপাতালের দাবি কী অন্যায্য? এবিষয়ে রাষ্ট্রপতি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নেওয়ার ঘটনা তুলে ধরে রিজভী বলেন, “সেখানে যদি এতো ইকুইপড হয় তাহলে তারা কেন বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন না, বিদেশে যাচ্ছেন কেন?” সংবাদ সম্মেলনে দলের ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেনসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

স্বাধীনতা বিরোধীদের ক্ষমতায় যেতে দেয়া হবে না – তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, জঙ্গি-সন্ত্রাস ও স্বাধীনতা বিরোধীদের ক্ষমতায় যেতে দেয়া হবে না। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা অটুট রাখতে হলে আমাদের মধ্যে ঐক্য বজায় রাখতে হবে। বিএনপির হাতে বাংলাদেশ নিরাপদ নয়। খালেদা জিয়া অগ্নি-সন্ত্রাস করে রাজাকার, তেঁতুল হুজুর ও জঙ্গিদের নিয়ে দেশ দখল করতে চান। গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিকদল জাসদ মনোনীত ও ১৪ দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদির সমর্থনে শনিবার দুপুরে পলাশবাড়ী উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার মাঠে অনুষ্ঠিত পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। পলাশবাড়ী উপজেলা জাসদ সভাপতি নুররুজ্জামান প্রধানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বগুড়া (নন্দীগ্রাম-কাহালু) আসনের সংসদ সদস্য রেজাউল করিম তানসেন, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি শফিউদ্দিন মোল্লা, (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনে জাসদ মনোনয়ন প্রত্যাশী ও জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিয়ষক সম্পাদক এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদি, গাইবান্ধা জেলা জাসদের সভাপতি শাহ্ শরিফুল ইসলাম বাবলু ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মারুফ মনা, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুর রহমান, জাসদ নেতা মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চট্টু ও গাইবান্ধা যুব জোটের সাধারণ সম্পাদক সুজন প্রসাদ প্রমুখ।

কুষ্টিয়ার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়া জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসাবে মনোনীত হয়েছেন মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কামারুল আরেফিন। গত বুধবার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনন্দ কিশোর শাহা স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশের মাধ্যমে তাকে শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান মনোনীত করা হয়।  জেলা প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৮ এর জেলা পর্যায়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ এ পদক দেওয়া হবে।  এতে শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান হিসাবে মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কামারুল আরেফিনকে মনোনীত করা হয়েছে। ২০১৪ সালের ২৯ ফেব্র“য়ারী উপজেলা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে। ২০১৪ সালের ২রা এপ্রিল শপথ গ্রহনের মধ্যদিয়ে কামারুল আরেফিন উপজেলা  চেয়ারম্যান হিসেবে মিরপুরবাসীর সেবা প্রদান শুরু করেন। মাদকের বিরুদ্ধে তিনি জিরো টলারেন্স ভুমিকা নিয়েছেন। সেই সাথে তিনি ২০১৫ সালে দেশরতœ পদকে ভূষিত হন।

আলমডাঙ্গার জামজামী ইউনিয়ন আ’লীগের কর্মীসমাবেশে হুইপ ছেলুন

তৃণমূল নেতাকর্মীরাই দলের মূল শক্তি

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে জামজামী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে এক কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গনুর সভাপতিত্বে কর্মীসমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ বীরমুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি। তিনি তার বক্তব্যে বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনর নেতৃত্বে দেশ যখন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে চলেছে ঠিক সে মুহুর্তে বিএনপি-জামায়াত ও তথা কথিত ঐক্যজোট নামধারী কিছু ব্যক্তি দেশে বিচ্ছৃংখলা সৃষ্টির পাঁয়তারা চালাচ্ছে। আমরা একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল, জনগণের ভোটের উপর আস্থা রেখেই নির্বাচনে জয়ী হতে চাই, কোন অশুভ শক্তির দ্বারা নই। তাই দেশ ও জাতির স্বার্থে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। তৃণমূল নেতাকর্মীরাই দলের মূল শক্তি। আওয়ামী লীগ সব সময় দলের কথা বলে। কেননা জনতাই গণতান্ত্রিক দেশের সকল ক্ষমতার উৎস। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খুস্তার জামিল, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমঙ্গীর হান্নান, মাসুদুজ্জামান লিটু বিশ্বাস, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম খান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী খালেদুর রহমান অরুন, জামজামী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী, হারদী ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক শামসুজ্জোহা মল্লিক হাসু, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু মুছা, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শিক্ষানুরাগী আওয়ামী লীগ নেতা লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মজিবর রহমান। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাষ্টারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন  জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আশরাফুল হক আশা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম মন্টু, উপজেলা শিক্ষা মানবকল্যাণ আব্দুর রউফ শিলু, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিয়ার রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা ইন্দ্রজিত দেব শর্মা, বিআরডিবির চেয়ারম্যান মহিদুল ইসলাম মোহিদ, উপপ্রচার সম্পাদক মাসুদ রানা তুহিন, জেলা যুবলীগের সদস্য আজাদ আলী, তপন কুমার বিশ্বাস, পৌর কাউন্সিলার মতিয়ার রহমান ফারুন, সাইফুর রহমান পিন্টু, পৌর যুবলীগের সভাপতি আব্দুল গাফ্ফার, সাবেক উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সাহানুজ্জামান, সম্পাদক সোনাহার মন্ডল, জামজামী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, জামজামী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা দিদার আলী, সাধারণ সম্পাদক রাহাব উদ্দিন, ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আবু মুছা, যুগ্ম আহবায়ক লাল্টু মিয়া, কামাল হোসেন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি গিটার, সম্পাদক ইজাল উদ্দিন, মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী আরজিনা খাতুন, সাধারণ সম্পাদক আফরোজা খাতুন, রাজেয়া খাতুন, নয়ন তারা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালমন আহমেদ ডন, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুল হক, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি নয়ন সরকার। এছাড়াও  ১নং ওয়ার্ড সভাপতি সিরাজ উদ্দিন, ২নং ওয়ার্ড সভাপতি মিজানুর রহমান, সম্পাদক খাইরুল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ড সভাপতি রিজাল উদ্দিন, সম্পাদক রিপন শাহ, ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সম্পাদক হামিদ আলী, ৫নং ওয়ার্ড সভাপতি হোসেন আলী, ৬নং ওয়ার্ড সভাপতি আলী হোসেন, সম্পাদক মতিয়ার রহমান, ৭নং ওয়ার্ড সভাপতি মনিরুজ্জামান, সম্পাদক কোরবান আলী, ৮নং ওয়ার্ড সভাপতি  তোফাজ্জেল হোসেন, সম্পাদক নুরুল ইসলাম, ৯নং ওয়ার্ড সভাপতি ইসলাম উদ্দিন, সম্পাদক আতিয়ার রহমান প্রমুখ।

 

দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে মাদক উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে মাদক উদ্ধার হয়েছে। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে চিলমারী ইউনিয়নের ডিগ্রিরচর সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫১২ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তবে এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি। বিজিবি সূত্র জানিয়েছে, মাদক পাচারের গোপন সংবাদ পেয়ে ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ উদয়নগর বিওপি’র নায়েব সুবেদার মো. সেলিম ভুইয়ার নেতৃত্বে বিজিবি’র টহলদল ডিগ্রিরচর সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫১২ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করে। যার আনুমানিক মূল্য দেড় লক্ষাধিক টাকা বলে বিজিবি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সংস্কার কাজ পরিদর্শন

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সংস্কার কাজের পরিদর্শন করেছেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ শামসুল আবেদীন খোকন। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে তিনি প্রেসক্লাবে সংস্কার কাজ পরিদর্শন শেষে কাজের অগ্রগতি দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন। উল্লেখ্য চলতি অর্থবছরে জেলা পরিষদ কর্তৃক অনুদানের অর্থে এই সংস্কার কাজ পরিচালিত হচ্ছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ্ আলম মন্টু, সাধারণ সম্পাদক  হামিদুল ইসলাম, সহসভাপতি আতিয়ার রহমান মুকুল, ইউনুচ আলী মন্ডল, সহসম্পাদক রুনু খন্দকার, প্রচার সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক বিষয়ে সম্পাদক ডাঃ আতিকুর রহমান, নির্বাহী সদস্য শাহাবুল ইসলাম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সফর সঙ্গী ছিলেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক নাজমুল হক স্বপন, শাহীন রেজা, জেলা কৃষক লীগ নেতা দিপক বিশ্বাস, যুবলীগ নেতা প্রিন্স প্রমুখ।

আলমডাঙ্গা কলেজের সাবেক ভিপি মুক্তিযোদ্ধা মজিবর রহমানের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা কলেজের সাবেক ভিপি মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মজিবর রহমানের লাশ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গত ২০ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা ইউনাইটেড প্রাঃ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। বেশ কিছুদিন ধরে তিনি অসুস্থ্য অবস্থায় ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। গত ২১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১০টায় আলমডাঙ্গা দারুস সালাম প্রাঙ্গণে মরহুমের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন হয়। গার্ড অব অর্নার প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাহাত মান্নান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ শামসুল আবেদীন খোকন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. আব্দুর রশীদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী খালেদুর রহমান অরুন, থানা পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত লুৎফুল কবীর, মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক ডাঃ শাহাবুদ্দিন সাবু, সাবেক পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা এম. সবেদ আলী, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার শফি উর রহমান জোয়ার্দ্দার সুলতান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কুদ্দুস, পৌর কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ নুর মোহাম্মদ জকু। এছাড়াও জানাযায় অংশ গ্রহণ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক, এ্যাড. নাসির উদ্দিন, নাজিমুদ্দিন, ওয়াজেদ আলী মাষ্টার, আব্দুল জব্বার, শফি উদ্দিন, মনি মাষ্টার, ফেরাজুল ইসলাম, আলহাজ্ব খন্দ. ইসমাইল হোসেন, আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাব সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দ. শাহ্ আলম মন্টু, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দ. হামিদুল ইসলাম আজম, বীর মুক্তিযোদ্ধা অমর ফারুক, রেজাউল ইসলাম, শওকত আলী জোয়ার্দ্দারসহ প্রায় শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

জেএসসি পরীক্ষা দেওয়া হলো না শাহানাজের

হাবিবুর রহমান ॥ চলতি বছরের নভেম্বরে জেএসসি পরীক্ষা শাহানাজের। সেই অনুযায়ী পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েছে সে। ভাবতেই পারেনি পরীক্ষা দেওয়া হবে না তার। পরীক্ষার আগেই বিয়ের পিড়িতে বসতে হয়েছে শাহানাজকে। পরীক্ষা বাদ দিয়ে যেতে হয়েছে শশুর বাড়ী। শুক্রবার দুপুরে বিয়ে হওয়ার কথা থাকলেও নাটকীয় কায়দায় বিয়ে হয়েছে রাতে। শাহানাজ আক্তার কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার সদরপুর ইউনিয়নের বড়বাড়ীয়্ াস্কুলপাড়া এলাকার আব্দুর সাত্তার এর মেয়ে এবং কাতলামারী কেবিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এবার জেএসসি পরীক্ষার্থী। স্থানীয় ইউপি সদস্য আশরাফুল ইসলাম জানান, শুক্রবার দুপুরে শাহানাজ আক্তারের বিয়ে (বাল্য) হওয়া কথা। তবে পুলিশ বিয়ে বাড়ীতে উপস্থিত হয়ে সেটা পন্ড হয়ে যায়। পরে রাতে আবার বিয়ে হয়ে যায় তার। কাকিলাদহ পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই জালাল জানান, বাল্য বিয়ের খবর শুনে আমি ঐ বিয়ে বাড়ীতে অভিযান চালায়। সাত্তারের বাড়ীতে বিয়ের আয়োজন চলছিলো তবে শাহানাজের বাবা ও মা পালিয়েছিলো। আমি বিয়ে দিতে নিষেধ করে এসেছিলাম। পরে বিয়ে হয়েছে কিনা আমার জানা নেই।  কেবিএইচ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম সেলিম জানান, আমি বিষয়টি জানি না।

কালুখালীতে বন্যাদুর্গত পরিবারদের মাঝে জিআর চাউল বিতরণ

ফজলুল হক ॥ গতকাল রাজবাড়ীর কালুখালীতে মানবিক সহায়তা কর্মসূচীর আওতায় অতি বৃষ্টি ও বন্যাদুর্গত পরিবারের মাঝে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জিআর এর চাউল বিতরণ করা হয়েছে। সকাল ১০টায় উপজেলার কালিকাপুর ইউপির পাড়া বেলগাছি দত্তপাড়া নামক স্থান থেকে বন্যাদুর্গত ইউনিয়নের ৫০০ পরিবারের মাঝে এ চাউল বিতরণ করা হয়। এসময় রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা, ট্যাগ অফিসার সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জয়ন্ত কুমার দাস, কালিকাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আতিউর রহমান নবাব এছাড়াও ইউপি সদস্য গোলাম মোস্তফা, আঃ জব্বার জুলু, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সাবিনা ইয়াসমীন, শেফালী খাতুন ও রেহেনাসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আমার কোনও অ্যাটর্নি জেনারেল নেই – ট্রাম্প

 

ঢাকা অফিস ॥ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তার কোনও অ্যাটর্নি জেনারেল নেই। হিল টিভিকে দেওয়া সাক্ষাতকারে অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশনের বেশ কিছু সমালোচনা করেন। রুশ সংযোগের তদন্ত থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়া ট্রাম্প পুনরায় সেশনের ওপর অসন্তোষ প্রকাশ করেন। এ ছাড়া অভিবাসন নিয়ে সেশনের অবস্থানে ট্রাম্প খুশি নন বলে জানিয়েছেন। ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থিতার বিষয়ে শুরুর দিককার একজন সমর্থক হলেও ট্রাম্প সেশনসের ওপর নাখোশ হন যখন মার্কিন নির্বাচনে বিষয়ে চলা তদন্তে থেকে তিনি নিজেকে প্রত্যাহার করে নেন ‘বিব্রতবোধ করার’ কারণ দেখিয়ে। ট্রাম্পের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক ও ২০১৬ সালের নির্বাচনের বিষয়ে তদন্তের দায়িত্ব পাওয়া বিশেষ তদন্তকারী রবার্ট মুলারের  পরামর্শক হওয়ার কথা ছিল সেশনসের। কিন্তু তিনি তাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন। স্বার্থের সংঘাত বা অন্য কোনও বিষয় যা কার্যক্রমকে পক্ষপাতদুষ্ট করতে পারে এমন বিষয়ের উপস্থিতি থাকলে সংশ্লিষ্ট পদাধিকারী ‘বিব্রতবোধের’ কারণ দেখিয়ে নিজেকে প্রত্যাহার করতে পারেন। তবে ট্রাম্পের সাম্প্রতিক মন্তব্য নিয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানাননি সেশনস। বিবিসি জানায়, প্রশাসনের অ্যাটর্নি জেনারেলকে নিয়ে প্রেসিডেন্টের এমন মন্তব্য অস্বাভাবিক। সমালোচকরা মনে করছেন দেশটির আইন ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করতে চাইছেন ট্রাম্প।  ট্রাম্পকে সেশনসের পদত্যাগের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে হিল টিভিকে তিনি জানান, ‘দেখা যাক কি হয়। অনেকেই আমাকে বলছেন তাকে যেন সরিয়ে দেওয়া হয়।’ গত মাসে সেশনসের সমালোচনার পর দুজন রিপাবলিকান সিনেটর ট্রাম্পকে জানান, সেশনসকে চাকরিচ্যুত করা হলে তারা প্রেসিডেন্টকে সমর্থন দেবেন। তবে অন্যান্য রিপাবলিকানরা জানান, ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্ত ভুল হকে। তারা অ্যাটর্নি জেনারেলকেই সমর্থন করবেন। আগস্টে এক বক্তব্যে সেশনস বলেছিলেন, যেহেতু আমি অ্যাটর্নি জেনারেল, বিচার বিভাগের পদক্ষেপ রাজনৈতিক কারণে বিঘিœত হবে না। আমি সর্বোচ্চ সেবা নিতে চাই। কিন্তু সেই চাহিদা পূরণ না হলে আমি ব্যবস্থা নেব। নির্বাচনকালীন সময়ে ট্রাম্পের সমর্থক থাকলেও রুশ সংযোগ শুরু হওয়ার পর নিজের অবস্থান থেকে সরে যান সেশনস।

ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে – শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ ুশিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, ইন্টারএকটিভ ডিজিটাল টেক্সটবুক (আইডিটি) শিশুদের পাঠ গ্রহণে সহায়ক হবে। তিনি বলেন, আইডিটি শিক্ষার্থীদের সহজে বুঝতে ও শিখতে যেমন সহায়তা করবে, তেমনি শিক্ষকদের জন্যও এটি সহায়ক হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার শিক্ষামন্ত্রী রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর পাঠ্যবই ‘ইন্টারএকটিভ ডিজিটাল টেক্সটবুকের (আইডিটি)’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ১৬টি ইন্টারএকটিভ পাঠ্যবই তৈরি করা হয়েছে। বইগুলোতে অডিও, ভিডিও, টেক্সট এবং এনিমেশন ব্যবহার করা হয়েছে। এতে বিষয়বস্তু শিক্ষার্থীদের কাছে আকর্ষনীয় ও আনন্দদায়ক হবে। সহজে এসব বই থেকে তারা কাঙ্খিত পাঠ গ্রহণ করতে পারবে। ফলে শিক্ষার্থীদের শিখন স্থায়ী হবে। নাহিদ বলেন, এর আগে নবম-দশম শ্রেণীর ৬টি বইয়ের ই-লানিং ম্যাটেরিয়াল তৈরি করা হয়েছে। সেসিপ প্রকল্পের আওতায় ৭ম শ্রেণীর ৬টি এবং ৮ম শ্রেণীর ৬টি ইন্টারএকটিভ ডিজিটাল বই তৈরি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্বমানের শিক্ষা অর্জনে আধুনিক জ্ঞান ও প্রযুক্তিকে ধারণ করতে হবে। প্রযুক্তির সুযোগগুলো কাজে লাগাতে হবে। তিনি বলেন, শিক্ষায় তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ষষ্ঠ শ্রেণী থেকে আইসিটি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। শিক্ষাক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। ভর্তি ও ফলাফল প্রকাশসহ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনেক কার্যক্রম পেপারলেস হয়েছে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নারয়ণ চন্দ্র সাহার সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, এশীয় ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন পারকাশ এবং টিচিং কোয়ালিটি ইমগ্র“ভমেন্ট-২ প্রকল্পের পরিচালক মো. জহির উদ্দিন বাবর বক্তৃতা করেন। উল্লেখ্য, টিচিং কোয়ালিটি ইমপ্রভমেন্ট-২ প্রকল্পের আর্থিক সহায়তা এবং ব্র্যাকের কারিগরি সহায়তায় এই ১৬টি ‘আইডিটি’ তৈরি করা হয়েছে।