চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন আহমেদ শরীফ

বিনেদন বাজার ॥ বরেণ্য চলচ্চিত্র অভিনেতা আহমেদ শরীফ উন্নত চিকিৎসা নিতে সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন।সেখানকার একটি হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন তার পরিবারের লোকজন। খুব শিগগির উন্নত চিকিৎসার জন্য তিনি সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন বলে তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে।বার্ধক্যজনিত কারণে নানা সমস্যায় ভুগছিলেন শক্তিমান এ অভিনেতা। বহুদিন ধরে দেশেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।চিকিৎসকরা বহু আগেই পরামর্শ দিয়েছিলেন, দেশের বাইরে গিয়ে চিকিৎসা করার জন্য। কিন্তু আর্থিক সক্ষমতা ছিল না বলে এতদিন বাইরে চিকিৎসার জন্য যেতে পারেননি।গত বৃহস্পতিবার চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাবেক সভাপতি অভিনেতা আহমেদ শরীফ ও তার স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ৩৫ লাখ টাকা অনুদান দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।উল্লেখ্য, অভিনেতা আহমেদ শরীফ প্রায় আট শতাধিক বাংলা ছবিতে অভিনয় করেছেন। তার অভিনীত প্রথম ছবির ‘অরুণোদয়ের অগ্নিসাক্ষী’।সুভাষ দত্ত পরিচালিত ওই ছবিতে তিনি অভিনয় করেন নায়ক চরিত্রে। খলনায়ক হিসেবে প্রথম অভিনয় করেন দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর পরিচালনায় ‘বন্দুক’ ছবিতে, যা মুক্তি পায় ১৯৭৬ সালে।তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’। ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৭ সালের ২০ অক্টোবর। বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় আছে শামীম আহমেদ রনি পরিচালিত ‘শাহেনশাহ’ ছবিটি।

 

কেমন কাটছে শাবানার প্রবাস জীবন?

বিনেদন বাজার ॥ বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে একটি উজ্জ্বল নক্ষত্র হচ্ছে একসময়ের জনপ্রিয় কিংবদন্তি চিত্রনায়িকা শাবানা। এক যুগেরও বেশি সময় চলচ্চিত্রকে বিদায় জানিয়েছেন তিনি। বর্তমানে নিউইয়র্কে প্রবাসজীবন কাটাচ্ছেন তিনি। এখন অভিনয় না করলেও দর্শকদের হৃদয়ে আছেন শিরোমণি হয়ে। তাই প্রিয় এই তারকার খবর জানতে অনেক ভক্ত চোখ রাখেন সংবাদপত্রের পাতায়। চলচ্চিত্রকে বিদায় জানানোর পর থেকে দেশে ফিরলেও সংবাদমাধ্যমকে একদম এড়িয়ে চলেন রুপালি পর্দার এ নায়িকা!কয়েকদিন আগে নিউইয়র্কে অভিনেতা মিশা সওদাগরের সেলফিতে দেখা মেলে শাবানার।শাবানার স্বামী চলচ্চিত্র প্রযোজক ওয়াহিদ সাদিক। অভিনয় ছেড়ে শাবানা এখন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির বাসিন্দা।সেখানে পরিবার নিয়ে সুখে দিন কাটাচ্ছেন শাবানা।দেশ থেকে কাছের কেউ গেলে সেখানে শাবানার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন । সম্প্রতি ঢালিউড অ্যাওয়ার্ডে অংশ নিতে অনেক শিল্পীর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন মিশা সওদাগর। সেখানে নায়িকা শাবানার সঙ্গে দেখা করেন তিনি। ওজোন পার্ক এলাকায় সেদিন তারা একসঙ্গে রাতের খাবার খান।সেখানে সেলফিতে নিউইয়র্কের মুহূর্তটা ধরে রাখেন মিশা সওদাগর। ফেসবুকে ছবিটি পোস্ট করে মিশা লিখেছেন ‘দ্য লিজেন্ড, দ্য লেসন’।মিশা বলেন, আমার আজকের মিশা সওদাগর হয়ে উঠার পেছনে শাবানা আপার অবদান অনেক। তার পরিবারের সঙ্গে আমার নিয়মিত যোগাযোগ আছে।শিশুশিল্পী হিসেবে নতুন সুর চলচ্চিত্রে আবির্ভাব ঘটে শাবানার। পরে ১৯৬৭ সালে চকোরী চলচ্চিত্রে চিত্রনায়ক নাদিমের বিপরীতে প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয় করেন। শাবানার প্রকৃত নাম রতœা। চিত্রপরিচালক এহতেশাম চকোরী চলচ্চিত্রে তার শাবানা নাম প্রদান করেন।তার পূর্ণ নাম আফরোজা সুলতানা। পৈতৃক বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার রাউজান উপজেলার ডাবুয়া গ্রামে। তিনি ৩৬ বছর কর্মজীবনে ২৯৯টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ষাট থেকে নব্বই দশকে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ছিলেন এই অভিনেত্রী। ২০০০ সালে রুপালি জগৎ থেকে নিজেকে আড়াল করে ফেলেন এ নায়িকা।দীর্ঘ কর্মজীবনে তিনি অভিনয়ের জন্য ৯ বার ও প্রযোজক হিসেবে ১ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। ২০১৭ সালে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হন।

অ্যান্ড্রু কিশোরের কণ্ঠে মে দিবসের গান

বিনেদন বাজার ॥ আসছে মে দিবস। আর এই দিবসকে কেন্দ্র করে সঙ্গীত পরিচালক ফরিদ আহমেদের সুর-সঙ্গীতে নতুন একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন কণ্ঠশিল্পী অ্যান্ড্রু কিশোর। গানটি লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান। গানের কথা হচ্ছে ‘শরীরটা ইঞ্জিন ক্ষয়ে যায় দিন দিন, রিকশা চালাই আমি রিকশা চালাই’। এরই মধ্যে গানটির রেকর্ডিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে। ফরিদ আহমেদ বলেন, গানটির কথা অসাধারণ, এটা বলতেই হবে। কারণ এই গানে একজন রিকশাচালকের সত্যিকারের সংগ্রামী জীবন রফিক ভাই যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন। আর আমার সুর সঙ্গীতে এবারই অ্যান্ড্রু দা এবারই প্রথম রক স্টাইলে কোনো গান গেয়েছেন। তার গায়কীর কারণেই গানটি অনন্য অসাধারণ হয়ে উঠেছে। গানটি শ্রোতা দর্শকের ভালোলাগবে। অ্যান্ড্রু কিশোর বলেন, ফরিদ সবসময়ই খুব যতœ নিয়ে গান করে। এই গানের ক্ষেত্রে যেন তার যতœ আরো একটু বেশি ছিল। কারণ এটি বিশেষ দিবসকে ঘিরে একটি গান। গানের কথা এবং গানের সুর সঙ্গীতকে গানটিকে অন্য মাত্রায় নিয়ে গেছে। আমি চেষ্টা করেছি গীতিকার এবং সঙ্গীত পরিচালকের ভাবনা, ভালোলাগাকে আমার কণ্ঠের মধ্য দিয়ে রূপ দিতে। সবমিলিয়ে গানটি মনে হয় ভালো হয়েছে। ভালোলাগবে শ্রোতাদের। আগামী মে দিবসে গানটি প্রচারে আসবে।

বাঙলা’র নতুন প্রযোজনা ‘মেঘ’

বিনেদন বাজার ॥ বাঙলা নাট্যদল সাহিত্য ও মনস্তাত্ত্বিক নির্ভর গল্প নিয়ে তাদের ১৫তম নতুন প্রযোজনা ‘মেঘ’ নাটকটি মঞ্চে নিয়ে এলো। গত শুক্রবার বাংলাদেশ শিল্পকলার একাডেমির স্টুডিও থিয়েটার হলে সন্ধ্যা ৭টায় ‘মেঘ’ নাটকের প্রদর্শনী করে বাঙলা নাট্যদল। উৎপল দত্তের রচনায় নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন হ ম সহিদুজ্জামান। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন আবিদ আহমেদ, সুবর্ণা মীর, সেলিম বহুরূপী, সৈয়দ গোলাম মুর্তুজা, হ ম সহিদুজ্জামান, নাসির আহমেদ দুর্জয়, লিটন খান, আফসানা আক্তার যুথি। দলের সাধারণ সম্পাদক ও নির্দেশক হ ম সহিদুজ্জামান জানান, দর্শকদের চাহিদা অনুযায়ী জনপ্রিয় লেখক উৎপল দত্তের সাহিত্য নির্ভর গল্প মেঘ নাটকটি মঞ্চে এনেছি।

রাবিতে বক্তৃতা করবেন রাইসুল ইসলাম আসাদ

বিনেদন বাজার ॥ চলচ্চিত্র বিষয়ক গবেষণা পত্রিকা ‘ম্যাজিক লণ্ঠন’র আয়োজনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি বক্তৃতা অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন প্রখ্যাত অভিনেতা রাইসুল ইসলাম আসাদ।‘অভিনয় জীবন : ভুল করতে করতে শেখা, আবার নতুন ভুল করা’ শিরোনামে এ অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হবে বৃহম্পতিবার।ম্যাজিক লণ্ঠন-এর সম্পাদক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী শিক্ষক কাজী মামুন হায়দার জানান, আগামী এদিন বিকেল ৫টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর একাডেমিক ভবনের ১২৩নং কক্ষে বক্তৃতা করবেন তিনি।বেতার, মঞ্চ, টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্রে অভিনয় করা আসাদ চার বার শ্রেষ্ঠ অভিনয়শিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেছেন।১৯৭৩ সালে মুক্তি পাওয়া তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘আবার তোরা মানুষ হ’। এছাড়া ‘লালসালু’, ‘দুখাই’, ‘লাল দরজা’, ‘অন্যজীবন’, ‘লালন’, ‘মনের মানুষ’ ও ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন।ম্যাজিক লণ্ঠনের নিয়মিত আয়োজন ‘ম্যাজিক লণ্ঠন কথামালা’য় অংশ নিতে এর আগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়েছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা নুরুল আলম আতিক, আবু সাইয়ীদ, গোলাম রব্বানী বিপ্লব, অভিনয়শিল্পী জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, পরিচালক ও অভিনয়শিল্পী কাজী হায়াৎ, অভিনয়শিল্পী রোকেয়া প্রাচী এবং সবশেষ অমিতাভ রেজা চৌধুরী।‘ম্যাজিক লণ্ঠন’ চলচ্চিত্রবিষয়ক পত্রিকা ও সংগঠনটির যাত্রা শুরু ২০১১ সালে। জানুয়ারি ও জুলাই মাসে নিয়মিত এ পত্রিকাটি প্রকাশিত হয়। এ পত্রিকায় দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের লেখা চলচ্চিত্র, সংবাদপত্র, টেলিভিশন, নিউমিডিয়া বিষয়ক প্রবন্ধ-নিবন্ধ ও সাক্ষাৎকার পত্রিকার পাশাপাশি নিয়মিত প্রকাশ হয় ম্যাজিক লণ্ঠনের ওয়েবসাইটেও

বেতার নাটকের জন্য তালিকাভুক্ত হলেন জাহিদ হাসান আফসানা মিমি ও চঞ্চল চৌধুরী

বিনেদন বাজার ॥ টেলিভিশন নাটকের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী জাহিদ হাসান, আফসানা মিমি ও চঞ্চল চৌধুরী। টিভি নাটকে দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করছেন তারা। এবার বাংলাদেশ বেতারে অভিনয়ে আগ্রহী হয়েছেন এ তিন তারকা। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ বেতারে অডিশনও দিয়েছেন। এরইমধ্যে তারা তালিকাভুক্ত হয়েছেন বলে বেতার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

তালিকাভুক্তির বিষয়টি শিগগিরই চিঠি দিয়ে শিল্পীদের জানানো হবে বলে জানা গেছে। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ বেতারের উপ-পরিচালক (নাটক) এবিএম মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘বেতার নাটকে অভিনয়ের জন্য জাহিদ হাসান, চঞ্চল চৌধুরী ও আফসানা মিমি স্পেশাল অডিশন দিয়েছেন। এরইমধ্যে তারা কৃতকার্য হয়েছেন।আগামী মে মাসে তাদের তালিকাভুক্ত হওয়ার বিষয়টি চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেয়া হবে। এরপর থেকে তারা নিয়মিত আমাদের এখানে নাটকে অভিনয় করবেন।’ অন্যদিকে বেতার নাটকে অভিনয়ের বিষয়ে আফসানা মিমি বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই বেতার নাটক শুনছি। আমার মা বেতার নাটক করতেন। সেই থেকে এ নাটকের প্রতি একটা টান অনুভব করি। সম্প্রতি বেতার কর্তৃপক্ষ আমাদের কাজ করার জন্য আমন্ত্রণ জানায় এবং সেই সময়েই অডিশনের বিষয়টিও সম্পন্ন হয়। আশা করছি বেতার নাটকে নিয়মিতই পাওয়া যাবে আমাকে।’ চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘ছোটবেলা থেকে বেতার অনুষ্ঠান শুনছি। অন্যান্য অনুষ্ঠানের মধ্যে বেতার নাটকও সেই সময় থেকেই শুনছি। আমার ভালোলাগার এ মাধ্যমটিতে কাজ করার ইচ্ছা ছিল অনেক আগে থেকেই। কিন্তু টিভি নাটক ও চলচ্চিত্রে কাজের ব্যস্ততায় সময় হয়ে উঠেনি। সম্প্রতি বেতারে গিয়ে তালিকাভুক্ত হওয়ার আবেদন ও অডিশন দিয়েছিলাম। শুনেছি আমাকে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এ জন্য বেতার কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই। এখন থেকে নিয়মিত অভিনয় করতে চাই বেতার নাটকে। শিগগিরই হয়তো নাট্যামোদী শ্রোতারা আমার অংশগ্রহণে বেতার নাটক শুনতে পাবেন।’

কিম শর্মার বিরুদ্ধে গৃহপরিচারিকার অভিযোগ!

বিনোদন বাজার ॥ ‘মোহাব্বতে’ সিনেমা দিয়ে বলিউড যাত্রা কিম শর্মার। এরপর একাধিক ছবিতে কাজ করেন তিনি। দীর্ঘদিন হল বড় পর্দার বাইরে। তবে বড় পর্দায় সেভাবে তাকে দেখা না গেলেও নানা নেতিবাচক ঘটনার কারণে প্রায়ই আলোচনায় আসেন এ অভিনেত্রী।

এবার গৃহপরিচারিকাকে পারিশ্রমিক না দেওয়ার অভিযোগে উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

ভারতীয় গণমাধ্যম মিড-ডে জানায়, বলিউড অভিনেত্রী কিম শর্মার বিরুদ্ধে তার গৃহপরিচারিকাকে পারিশ্রমিক না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো ওই গৃহপরিচারিকার নাম নম্রতা সোলাঙ্কি।

এ ব্যাপারে নম্রতা পুলিশের কাছে একটি লিখিত অভিযোগে দিয়েছেন। অভিযোগে নম্রতা জানান, তিনি কিমের কাছে তার পাওনা চাইতে যান। কিম তা দেননি। উল্টো ভয় দেখাতে থাকেন। এ ঘটনায় ভয় পেয়ে গিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন নম্রতা। তার ভিত্তিতে পুলিশ কিমকে থানায় ডেকে বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে বলে খবর।

ছ’মাস ধরে কিমের বাড়িতে কাজ করতের নম্রতা। পুলিশ তার অভিযোগ খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে বলে জানা গেছে।

মামুট্টির কাছে কৃতজ্ঞ সানি লিওন

বিনোদন বাজার ॥ পর্ন জগৎ থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়ে বলিউডে থিতু হয়েছেন সানি লিওন। সিনেমায় নায়িকা চরিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি আইটেম গানের সঙ্গে নেচেও ব্যাপক সফল হয়েছেন। এরপর বেশ কয়েকটি ছবি করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন এই অভিনেত্রী। হিন্দি সিনেমার সঙ্গে দক্ষিণী সিনেমাতেও বেশ প্রিয় হয়ে উঠেছেন তিনি। বর্তমানে মালায়ালাম ছবি রঙ্গিলায় অভিনয় করছেন সানি। মালায়ালাম সুপারস্টার মামুট্টির সঙ্গে মাদুরাই রাজায় অভিনয় করেছেন যা গত ১২ এপ্রিল মুক্তি পেয়েছে। এই ছবির একটি গানে অভিনয় করেছেন সানি। কেরালার জনগণের কাছে অত্যন্ত প্রিয় হয়েছে এই গানটি। মুহূর্তেই ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেটে। সম্প্রতি মামুট্টির সঙ্গে সানির একটি ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। তাকে ঘিরে দর্শকদেরও উৎসাহ ক্রমশ বাড়েই চলছে। সানি বলেছেন, ‘আমার নাচ কেরালার জনগণের উৎসাহ বাড়িয়েছে। আমাকে সুযোগ দেওয়া মামুট্টির কাছে আমি কৃতজ্ঞ।’

র‌্যাপের তালে মাতালেন মমতাজ

বিনোদন বাজার ॥ ‘লোকাল বাস’ শিরোনামে তার জনপ্রিয় গানের র‌্যাপ অংশ কণ্ঠে তুলে দর্শকদের নাচিয়ে আলোচনার খোরাক জোগালেন লোকগানের শিল্পী মমতাজ।

রোববার নেদারল্যান্ডের হেগে বাংলাদেশ দূতাবাসের আয়োজনে পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে তার গাওয়া গানটি ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

২০১৬ সালে গানচিল মিউজিকের ব্যানারে প্রকাশ হওয়ার পরই জনপ্রিয়তা পায় গানটি। মূল গানের র‌্যাপ অংশে কণ্ঠ দিয়েছে র‌্যাপার শাফায়েত হোসাইন। এবার হেগের আয়োজনে র‌্যাপ অংশটুকু নিজেই কণ্ঠে তুলে চমক দেখিয়েছেন নেদারল্যান্ড প্রবাসী বাঙালিদের।

বাংলা লোকগানের জনপ্রিয় এ সংগীত শিল্পীর কণ্ঠে র‌্যাপ গান দেখা যায়নি সচরাচর। তার ভিন্ন ঘরানার পারফর্ম দারুণ উপভোগ করেছেন বলে জানিয়েছেন এক দর্শক। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বিষয়টি নিয়ে দেখা গেছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

‘লোকাল বাস’র সুর করেছেন প্রীতম হাসান ও লুৎফর হাসান। গানটি লিখেছেন গোলাম রাব্বানী ও লুৎফর হাসান। সংগীতায়োজন করেছেন প্রীতম হাসান।

পহেলা বৈশাখের সপ্তাহখানেক পর আয়োজিত এ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মমতাজ ও ৭ সদস্য বিশিষ্ট তার দল অংশ নেন।

স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, ‘মঙ্গল শোভাযাত্রা’র মাধ্যমে হওয়া এ আয়োজনে বাংলাদেশীদের পাশাপাশি স্থানীয় কূটনৈতিক, বিভিন্ন শহরের মেয়রসহ প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশ নেন।

২০১৫ সালে প্রথমবার বাংলাদেশ দূতাবাস সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। প্রথমবারই অংশ নিয়েছিলেন মমতাজ। ২০১৬ সালে শিল্পী সামিনা চৌধুরী ও ২০১৮ সালে হৈমন্তী ও সন্দীপন এতে পারফর্ম করেন।

মা হলেন বলি অভিনেত্রী সুরভিন চাওলা

বিনোদন বাজার ॥ কন্যা সন্তানের মা হলেন বলি অভিনেত্রী সুরভিন চাওলা। মা হওয়ার সেই সুসংবাদ সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি নিজেই দিয়েছেন। সুরভিন এবং তার স্বামী অক্ষয় ঠক্কর মেয়ের নাম রেখেছেন ইভা।‘হেট স্টোরি ২’-এ অভিনয়ের পর দর্শকমহলে তুমুল জনপ্রিয় হয়েছিলেন সুরভিন। মা হওয়ার খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন মেয়ের প্রথম ছবিও। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘…ছোট্ট পরিবারে আমাদের মেয়ে ইভাকে স্বাগত।’সুরভিন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘মা হওয়া অসাধারণ অভিজ্ঞতা। হঠাৎ করেই তার এবং অক্ষয়ের জীবন বদলে গিয়েছে। প্রত্যেকটা পদক্ষেপের জন্য অপেক্ষা করছি এখন। সত্যিই আমরা ধন্য।’তিন বছর আগে ইতালিতে ব্যক্তিগত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে করেছিলেন সুরভিন-অক্ষয়। ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং আত্মীয়রা উপস্থিত ছিলেন সেই অনুষ্ঠানে। বরাবরই অন্য ধরনের চরিত্রে অভিনয় করতে পছন্দ করেন তিনি। তবে আপাতত মেয়েকে সময় দেওয়াটাই তাঁর প্রায়োরিটি। ফের কবে শুটিং ফ্লোরে ফিরবেন, তা এখনও খোলসা করেননি সুরভিন।

অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন এই ভারতীয় অভিনেত্রী

বিনোদন বাজার ॥ শ্রীলংকায় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় অল্পের জন্য সপরিবারে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দা দিলীপ ফার্নান্দো। সৃষ্টিকর্তা একইরকম ভাগ্য লিখে রেখেছিলেন ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাধিকা শরতকুমারের বেলায়ও।তিনশতাধিক ছবিতে অভিনয় করছেন এই অভিনেত্রী। তার স্বামী শরতকুমারও দক্ষিণি চলচ্চিত্রের একজন জনপ্রিয় অভিনেতা।টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনে প্রকাশ, শ্রীলংকায় রোববারের ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলার অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন অভিনেত্রী রাধিকা। বোমা হামলার কিছুক্ষণ আগে দেশটির সিনামন গ্রান্ড হোটেলে অবস্থান করছিলেন তিনি। তিনি বের হয়ে যাবার পরপরই বোমা বিস্ফোরণ ঘটে ওই হোটেলে।ঠিক আছেন জানিয়ে ভক্তদের উদ্দেশে এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে একটি টুইট করেছেন রাধিকা।নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে তিনি লেখেন, ‘ওএমজি! শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। আমি কলম্বোর সিনামন গ্রান্ড হোটেল থেকে বের হওয়ার পরই সেখানে বোমা হামলা হয়েছে। ঘটনাটি বিশ্বাস হচ্ছে না আমার। সৃষ্টিকর্তা সবার সঙ্গেই আছেন।’তার ওই টুইট ১৪ লাখের বেশি ভক্ত-অনুরাগীরা রিটুইট ও শেয়ার করে সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ জানান।এমন টুইটের পর ভারতের তামিল রাজনৈতিক দল দ্য অল ইন্ডিয়া সাম্মাথুভা মাক্কাল কাটছি দলের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, ‘ কলম্বোয় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা জঘন্য ও নিন্দনীয়। হামলায় নিহত নিরপরাধ ধর্মপ্রাণদের প্রতি আমাদের হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা রইল।’রাধিকা শরতকুমার অভিনয়ের পাশাপাশি সিনেমা প্রযোজনার সঙ্গেও জড়িত। রাধান মিডিয়া ওয়ার্কস নামে তার একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে।তামিল, তেলেগু, মালয়ালাম, কান্নাডা ও হিন্দি ভাষার বেশ কয়েকটি চলচিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।

শ্রীলংকায় বোমা হামলা নিয়ে জ্যাকলিনের টুইটে স্বস্তিতে ভক্তরা

বিনোদন বাজার ॥ শ্রীলংকার বিস্ফোরণে শোকাহত বিশ্ব। শোকের ছায়া নেমেছে বলিউডপাড়াতেও। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় হামলায় আহত এবং নিহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছেন তারকারা। আনুশকা শর্মা, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, স্বরা ভাস্কর, পরিনীতি চোপড়া, ভিকি কৌশল, অর্জুন কাপুরসহ অনেকেই টুইটারে শোক প্রকাশ করেছেন।তবে বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজের শোক তাদের সবাইকে ছাড়িয়ে গেছে নিশ্চিত। কারণ জন্মসূত্রে তিনি শ্রীলংকার বাসিন্দা।বলি সিনেমায় অভিনয়ের কারণে ভারতে থাকা হলেও দেশের প্রতি সবসময়ই টান অনুভব করেন এ তারকা। সবসময় খোঁজখবর রাখেন। গতকালের এই বোমা হামলা ঘটনায় কেঁদে উঠেছে তার মন।এক টুইটবার্তায় নিজের সেই অনুভূতির কথা জানালেন জ্যাকলিন। তিনি তার টুইটার হ্যান্ডেলে লিখেছেন- ‘শ্রীলংকার বিস্ফোরণের খবরে আমি শোকাহত। ক্রমশ ছড়িয়ে চলেছে হিংসা। দুর্ভাগ্যজনকভাবে সবাই এ ধারাবাহিক হিংসাকে এড়িয়ে যাচ্ছে।’শ্রীলংকায় ওই হামলার পর জ্যাকলিনের খোঁজ নিতে ব্যস্ত ছিলেন তার ভক্ত-অনুরাগীরা। সবার কৌতূহল ছিল জ্যাকলিনের পরিবার নিয়ে। তার বাবা-মা শ্রীলংকাতেই থাকেন। তাই ইস্টার সানডেতে জ্যাকলিনের পরিবার ঠিক আছেন কিনা সে কথা জানতে চেয়েছিলেন অনেকে।প্রিয় তারকার টুইটের পর এবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতেই পারেন ভক্তরা।প্রসঙ্গত শ্রীলংকায় ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০ জনে দাঁড়িয়েছে।বোমা হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত ২৪ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে কারা হামলা চালিয়েছে তা এখনও চিতি করতে পারেনি দেশটির সরকার।পুলিশ ও স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাতে বিবিসি এ খবর দিয়েছে।গত রোববার সকালে স্থানীয় সময় পৌনে ৯টার দিকে ৩টি গির্জা ও ৪টি হোটেলে পরপর ৭টি জায়গায় বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে রাজধানী কলম্বো। ওই হামলায় ৫০০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, হামলায় নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে ৩৬ জন বিদেশি।

শ্রাবন্তীর বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন প্রথম স্বামী

বিনোদন বাজার ॥ কলকাতার এ সময়ের জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তীর তৃতীয় বিয়ের নিয়ে মুখ খুললেন প্রথম স্বামী নির্মাতা রাজীব কুমার ।কলকাতার সিনে পাড়ায় কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে শ্রাবন্তীর বিয়ের খবর। তবে শ্রাবন্তী ও পরিবারের সবাই চুপ থাকলেও সোশ্যাল মিডিয়া থেমে নেই।আর এবার মুখ খুলেছেন অভিনেত্রীর প্রাক্তন স্বামী নির্মাতা রাজীব কুমার বিশ্বাস। শ্রাবন্তীকে নতুন জীবনের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি।রাজীব বলেন, শ্রাবন্তী মানুষ হিসেবে ভীষণ ভালো। শ্রাবন্তী সুখে থাকুক। তবে আবেগের বশে যেন কোনও ভুল সিদ্ধান্ত না নেয়, এটাই প্রার্থনা করি সব সময়।এদিকে পহেলা বৈশাখ থেকে প্রেমিক রোশন সিংহের সঙ্গে বাগদান সারেন এই শ্রাবন্তী । গত ১৯ এ মে প্রেমিক রোশন সিংয়ের দেশের বাড়িতে নাকি হয়েছে বিয়ের অনুষ্ঠান।তবে বিষয়টি নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি শ্রাবন্তী ও তার পরিবারের কেউ।পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের সঙ্গে শ্রাবন্তীর বিয়ে হয় ২০০৩ সালে। রাজীব-শ্রাবন্তীর ছেলেও রয়েছে, ওর নাম ঝিনুক। মায়ের সঙ্গেই থাকে সে।রাজীবের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে শ্রাবন্তীর সম্পর্ক হয় মডেল কৃষণ ব্রজের সঙ্গে। মহাসমারোহে বিয়েও করেন তারা। গত জানুয়ারিতে কৃষণের সঙ্গে বিচ্ছেদ চূড়ান্ত হয় শ্রাবন্তীর। তার পরই নায়িকার সঙ্গে জড়িয়ে যায় রোশনের নাম। রোশন পেশায় একটি এয়ারলাইন্সের ক্যাবিন ক্রু সুপারভাইজার।

 

মেয়েকে নিয়ে মুম্বাই ছাড়লেন অভিষেক-ঐশ্বরিয়া!

বিনোদন বাজার ॥ মুম্বাই বিমানবন্দরে তারকাদের আনাগোনা চলতেই থাকে। বৃহস্পতিবার সকালে সেখান থেকেই শহর ছাড়লেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন এবং অভিষেক বচ্চন। সঙ্গে ছিল তাদের এবমাত্র কন্যা আরাধ্যা।

সূত্রের খবর, মেয়েকে নিয়ে গরমের ছুটি কাটাতে মালয়েশিয়া গেলেন এই দম্পতি। আরাধ্যাকে ছাড়া কোথাও যান না ঐশ্বর্য। সে নিয়ে ট্রোলিংয়ের শিকারও হয়েছিলেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে প্রশ্ন করেছিলেন, আরাধ্যা কখন স্কুলে যায়? সে সবের যোগ্য জবাব দিয়েছিলেন অভিষেক।

‘ফ্যানি খান’-এ শেষ বার বড়পর্দায় দেখা গিয়েছিল ঐশ্বর্যাকে। অন্যদিকে ‘মনমর্জিয়া’ ছিল অভিষেক অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত শেষ ছবি।

রিয়েল লাইফের জুটির রিল লাইফেও ফেরার কথা হয়েছিল অনুরাগ কাশ্যপের ছবিতে। কিন্তু বিভিন্ন কারণে সে প্রজেক্ট বাতিল হয়ে যায়। মালয়েশিয়া থেকে ছুটি কাটিয়ে ভারতে ফেরার পর ফের নতুন কোনও ছবি নিয়ে অভিষেক-ঐশ্বর্য জুটি দর্শকদের সামনে আসেন কিনা সেটাই এখন দেখার।

 

যৌনহেনস্থার অভিযোগ তুলে অজয়ের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তনুশ্রী

বিনোদন বাজার ॥ ভারতে #মিটু মুভমেন্ট এসেছে তার হাত ধরেই। সেই তনুশ্রী দত্ত এবার ক্ষোভে ফেটে পড়লেন অজয় দেবগণের বিরুদ্ধে। অজয়কে দোষারোপ করলেন তিনি। তনুশ্রীর মতে, মুখে যাই বলুক না কেন, কাজে একেবারেই অন্য অজয়। জনসমক্ষে সাধু সাজলেও, অন্যরূপই ধরা পড়ে এই অভিনেতার।

অজয়ের ছবি দে দে প্যার দে-তে থাকছেন অলোকনাথ। অলোকনাথের বিরুদ্ধেও যৌনহেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল। অনেকে তাকে আর কাজে নিতে চাইছিল না। এই অবস্থায় অজয় তার পাশে দাঁড়িয়ে, তাকে বলিউডে আবার ফিরতে সাহায্য করছেন। এতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন তনুশ্রী।

মেয়েদের যে সম্মানের লড়াই তনুশ্রী শুরু করেছিলেন তাতে বলিউডের অনেকেই সামিল হয়েছিলেন। অনেকেই মুখ খুলেছিলেন, ভাগ করে নিয়েছিলেন নিজেদের অভিজ্ঞতা।

অন্যদিকে অভিযুক্তরা অনেকে কাজ হারিয়েছিলেন। কিন্তু অলোকনাথের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও তাকে কাজে নিচ্ছেন অজয়!

অথচ অজয়ই টুইট করে জানিয়েছিলেন যে এমন ব্যক্তিদের পাশে থাকবেন না তিনি বা তার সংস্থা। তারপরও কেন এমন পদক্ষেপ নিলেন এই অভিনেতা? অজয়ের এই পদক্ষেপ অনেক তারকাকে সাহস যোগাবে। ফলে অভিযুক্তরাও সেই সুযোগের অপব্যবহার করবেন বলে জানিয়েছেন তনুশ্রী।

 

কণ্ঠশিল্পী মিলাকে নির্যাতনের অভিযোগ

বিনোদন বাজার ॥ নুসরাত হত্যার ঘটনা নিয়ে দেশজুড়ে তুমুল আলোচনার মধ্যে নিজের ওপর নির্যাতনের ঘটনা বর্ণনা করেছেন কণ্ঠশিল্পী মিলা। তাকে নগ্ন অবস্থায় নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। বুধবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দেয়া এক পোস্টে তিনি এ অভিযোগ করেন। মিলা লেখেন, ‘কত কত জীবিত ‘নুসরাত’ আইন এর কাছে দাঁড়ান দিনের পর দিন…কিন্তু না মেরে ফেলা পর্যন্ত তাদের জন্য কোনও আওয়াজ উঠবে না.. আইন দেশের সুন্দর..দুই বছর হয়ে যাচ্ছে.. কোর্ট এ উল্টা জঘন্য ভাবে চিৎকার দিয়ে অপবাদ দেয়া হয় আমাকে .. বিচার তো দূর…দাখিল করা ‘খ’ ধারার চার্জশিট আমাকে না বুঝতে দিয়ে ‘গ’ ধারায় মামলা চার্জ গঠন করা হয়… আমার মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে.. আমার জানা ছিল, নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় কোন রকমের হস্তক্ষেপে নেত্রীর কঠোর নিষেধ রয়েছে .. তিন বার আদালতের আদেশ টানা অমান্য করলে জামিন বাতিল হবার কথা..পাচ বার আমাকে কোর্ট নানান বুঝ দিয়ে পার্মানেন্ট জামিন দেয়…আমি এখন বলতেও পারি নাই শেষের দিন আমার শাশুড়ি, আমার স্বামীর কথায় আমাকে কিভাবে বাথরুম থেকে দরজা ভেঙে বিনা কাপড় পরিহিত অবস্থায় জঘন্য ভাবে টেনে আমার দেবর তার স্ত্রী এবং তার স্ত্রীর বাবা মায়ের সামনে এক ঘন্টা গালিগালাজ করতে থাকে… আমার বাবা ভাইবার এ ভিডিও কলের মাধ্যমে পুরাটা ঘটনা দেখে.. এক পর্যায়ে আমি হাত জোড় করে ভিক্ষা চাই এই বলে ‘আম্মু আমাকে মেয়ে বলে নিয়ে আসছিলেন ..আমার গায়ে কাপড় নাই.. দয়া করে আমাকে ঘরের দরজা বন্ধ করে যা বলার বলেন..কিন্তু এই অপমান করেন না’ …ভিডিও টা এখনও আমার কাছে…

দেশের শিল্পী আমি?

আজকে এই টাও বলে ফেললাম… এর চাইতে কাপড়পড়া অবস্থায় আমার গায়ে আগুন দিয়ে দিত… আমি যাই বললাম তাতে পুরা মিডিয়া, শিল্পীরা, আমার ভোক্ত রা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করার কথা… কাপড় ছাড়া ঐ ছেলেকে রাস্তায় নামিয়ে জুতার বাড়ি দিয়ে মারার কথা… তাইনা? আমার এই পোস্ট টাই তো সবার শেয়ার করার কথা তাইনা? কেও করবে নাহ্… কেও নাহ.. কারণ আমি বেঁচে আছি..এই মিলা কেন এখনও প্রতিদিন চিৎকার করে কাঁদে উত্তর পাও তোমরা?

আমি দেশের জাতীয় পর্যায়ের শিল্পী? এখনও আজকেও বার বার ইউএস বাংলার এমডিকে কল দিয়েছি…কথা বলতে চেয়েছি .. ’ কেন আমার ন্যায্য বিচার তারা তাদের ক্ষমতা দিয়ে আটকে রেখে ওই কুলাঙ্গারকে চাকরিতে রাখছেন? কীভাবে আমার উপর এতো অন্যায় এরপর ইউএস বাংলার কেবিন ক্রুয়ের সঙ্গে বিছানায় ঘুমিয়ে থাকা ওই জঘন্য ছবি ফাঁস হয়ে যাওয়ার পরও এই ছেলেকে সামাজিক মর্যাদা দিয়ে ইউএস বাংলার এমডি সবাইকে বলে বেড়ান যে ‘ঞযধঃ রহ ধহু পড়ংঃ এই মেয়েকে জিততে দিব না’ …

দেশের নাগরিক হিসেবে আজকে এই বলব… ওই ছেলের বিচার চাই আমি তাইলে… ইউএস বাংলা আরও দুইজন পাইলট যারা আমাকে রাস্তায় রাস্তার অপদস্থ করে নোংরা কথা বলে.. তাদের নাম রেজোয়ান আহমেদ খান ও শামস রেজোয়ান। তারা শুধু আমাকে না বরং আমার বাবাকে নিয়েও প্রকাশ্যে গালি দেয়া.. উল্টা দিকে এরা আমাকে আইসিটি অ্যাক্টের হুমকি দিতে থাকে….

আমি ইউএস বাংলার এই তিনজনের বিচার চাই…আমি আমার দেশ ও দেশের সরকার এর কাছে আমার ভেঙে দেয়া মেরুদ- ফিরে চাই…ফাইলের উপর ফাইল করা সকল প্রমাণ আমার কাছে জমা…কিন্তু বাকিদের বিচার কই চাইব? এদিকে ওই ছেলে দেশ ছেড়ে পালানোর জন্য বিভিন্ন বিদেশি এয়ার লাইনে চেষ্টা করে যাচ্ছে… আমার আবেদন আমার নেত্রীর কাছে, আমার অপরাধী যাতে পালাতে না পারে.. আমার মামলাটি দয়া করে আবারও সঠিক ধারায় চার্জ গঠন করার আর্জি জানাই…

গত দশ দিন আগে আমি ওই ছেলেকে হাতে নাতে পতিতা নিয়ে ধরলে ওই ছেলে আমাকে ‘গুলি করে হত্যা করে সেলফ ডিফেন্স বলে প্রমাণ করে দিবে’ বলে আমাকে আর আমার বাবাকে এসএমএস করে… গুলি খাওয়ার আগে বিচার চাই…বিচার চাই.. আমি বিচার চাই…

ইতি-

‘একজন জীবিত নুসরাত’

সুবর্ণা-নীলার নাটক প্রচার শুরু

বিনোদন বাজার ॥ গত মঙ্গলবার রাত ৯টা ৩০ মিনিট থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচার শুরু হলো বদরুল আনাম সৌদ রচিত ও নির্দেশিত দীর্ঘ ধারাবাহিক নাটক ‘লুকোচুরি লুকোচুরি গল্প’। এই নাটকে আবারো সুবর্ণা মুস্তাফার সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছেন এই প্রজন্মের অভিনেত্রী নীলাঞ্জনা নীলা। বদরুল আনাম সৌদ জানান প্রতি মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার একই সময়ে বিটিভিতে নাটকটি নিয়মিতভাবে প্রচার হবে। এই নাটকে সুবর্ণা মুস্তাফার মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন নীলাঞ্জনা নীলা। নীলার বাবার চরিত্রে অভিনয় করছেন আজাদ আবুল কালাম।

নাটকটিকে অভিনয় প্রসঙ্গে সুবর্ণা মুস্তাফা বলেন, যেহেতু অভিনয়ই আমার মূল পেশা তাই ভালো গল্প, ভালো চরিত্র পেলে অবশ্যই আমি অভিনয় করার চেষ্টা করব এবং সেটা রুটিন করেই করব। আমার অন্যান্য ব্যস্ততার মধ্য দিয়ে সৌদের এই নাটকে আমি রুটিন করেই অভিনয় করছি। এই ধারাবাহিকটির গল্প হালকা মেজাজের। সৌদের এ নাটকটি দর্শককে বিনোদিত করতেই নির্মিত হয়েছে। নীলা ভালো অভিনয় করার চেষ্টা করছে। তার এই চেষ্টাটা অব্যাহত রাখুক এটাই আমি চাই।

সৌদের নির্দেশনায় সুবর্ণা মুস্তাফার সঙ্গে নীলা প্রথম অভিনয় করেছিলেন ‘গহীন বালুচর’ সিনেমায়। নাটকটি নিয়ে রচয়িতা ও নির্মাতা বদরুল আনাম সৌদ বলেন, আমার রচিত ও নির্মিত এই ধারাবাহিকটি নিয়ে আমি মোটামুটি আশাবাদী। দর্শকের ভালোলাগার কথা ভেবেই নাটকটি নির্মাণ করছি। ধন্যবাদ এই নাটকে যারা অভিনয় করছেন তাদের প্রত্যেককে।

উড়ে যেতে চান নাজু আখন্দ

বিনোদন বাজার ॥ নাজু আখন্দ ১৯৯৫ সালে শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন। গানের ভুবনে দেখতে দেখতে পেশাগতভাবে তিনি ১৮ বছর অর্থাৎ দেড় যুগ সময় বেশ সফলতার সঙ্গেই পার করেছেন। নাজুর ভাষ্যমতে, এখনো প্রতিনিয়ত গানের প্রতি সেই প্রথম দিনের মতোই পরম ভালোলাগা নিয়ে গান গেয়ে যাচ্ছেন। দীর্ঘদিনের সঙ্গীত জীবনের পথচলায় চলচ্চিত্রে প্লে-ব্যাক করেছেন তিনি ২২৩টি গান। কুমার বিশ্বজিতের সঙ্গে আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের কথা, সুর সঙ্গীতে ‘মায়ের সম্মান’ সিনেমাতে ২০০১ সালে প্রথম প্লে-ব্যাক করার মধ্য দিয়ে সঙ্গীতাঙ্গনে পেশাগতভাবে নাজুর যাত্রা শুরু। আজ বিকেলে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ধ্রুব মিউজিক স্টেশন থেকে প্রকাশিত হতে যাচ্ছে নাজুর একক গান ‘উড়ে যেতে চাই’। গানটি সুর সঙ্গীত করেছেন সাজিদ সরকার। সিনেমার বাইরে নাজুর সবচেয়ে জনপ্রিয় গান হচ্ছে বাপ্পা মুজমদারের সুর সঙ্গীতে ‘আমায় হাত বাড়ালেই যায় না ছোঁয়া’ গানটি। এই গানের জন্য তিনি ২০০৯ সালে সিটিসেল চ্যানেলআই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছিলেন পপুলার চয়েজ ক্যাটাগরিতে। সর্বশেষ তিনি গত সপ্তাহে ‘টিকলি’ সিনেমায় প্লে-ব্যাক করেছেন। তার মোট একক অ্যালবাম চারটি।

জামিন পেলেন হিরো আলম

বিনোদন বাজার ॥ শ্বশুর সাইফুল ইসলামের দায়ের করা মামলায় জামিন পেয়েছেন আশরাফুল হোসেন ওরফে হিরো আলম। বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নরেশ চন্দ্র সরকার এ আদেশ দেন। স্ত্রী সাদিয়া আক্তার সুমির সঙ্গে হিরো আলমের আপস হয়েছে এবং তিনি সংসার করতে চান এমন সমঝোতার পরই এই আদেশ আসে।এরপর বাদী সাইফুল ইসলাম জামাই হিরো আলমের বিরুদ্ধে তার দায়ের করা মামলা তুলে নেয়ার কথা জানালে বিচারক জামিন মঞ্জুর করেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। হিরো আলমের আইনজীবী মাসুদার রহমান স্বপন জানান, হিরো আলমের জামিন আবেদন শুনানিকালে তার স্ত্রী সুমি উপস্থিত ছিলেন।সুমি আদালতকে বলেন, ‘নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির কারণে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা হয়। এখন আমি স্বামীর সঙ্গে ঘর-সংসার করব। তাকে জামিন দেয়া হোক।’ শুনানির সময় আদালতে হিরো আলম এবং তার দুই সন্তানও উপস্থিত ছিলেন। তবে, বিচারক তার কোনো বক্তব্য শোনেননি।এর আগে গত ২৫ মার্চ আপসনামা জমা দিয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে হিরো আলমের জামিন আবেদন করেন স্ত্রী সুমি। কিন্তু, আদালত সেদিন তাকে জামিন দেননি। শুনানিকালে হিরো আলম, স্ত্রী সুমি ও শ্বশুর সাইফুল ইসলামকে ভর্ৎসনা করেন বিচারক। একইসঙ্গে ১৮ এপ্রিল হিরো আলমকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ দেন।আইনজীবী মাসুদুর রহমান জানান, সাইফুল ইসলাম তার জামাতা হিরো আলমের বিরুদ্ধে যৌতুক মামলাটি না চালানোর সিদ্ধান্ত নেন এবং আদালতে এফিডেভিট করেন। মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, যৌতুকের দাবিতে গত ৫ মার্চ সন্ধ্যায় হিরো আলম স্ত্রী সাদিয়া আক্তার সুমিকে মারধর করেন। পরে শ্বশুর সাইফুল ইসলাম মেয়েকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।এ ঘটনায় পরদিন সদর থানায় হিরো আলমের বিরুদ্ধে মামলা করলে, পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এরপর ৭ মার্চ বগুড়ার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর থেকে হিরো আলম কারাগারেই রয়েছেন।

তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন শ্রাবন্তীর

বিনোদন বাজার ॥ তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন কলকাতার জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী। পহেলা বৈশাখের দিন প্রেমিক রোশন সিংহের সঙ্গে বাগদান সেরে ফেলেছেন এই নায়িকা। শুক্রবার সাত পাকে বাঁধা পড়বেন তারা।

বুধবার ভারতীয় গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়েছে, কাউকে না জানিয়ে চুপিচুপি বাগদান হয়েছে রোশন-শ্রাবন্তীর। শুক্রবারই বিয়ে করবেন তারা।

জানা গেছে, কলকাতায় নয়, বিয়ের অনুষ্ঠান হচ্ছে চন্ডীগড়ে রোশনের বাড়িতে। এরই মধ্যে নাকি চন্ডীগড়ে পৌঁছে গেছেন রোশন-শ্রাবন্তী। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার এক সপ্তাহ পরে কলকাতায় ফিরবেন তারা।

গেল সোমবার এ জুটির বাগদান হয়েছে তপসিয়ারই একটি বিলাসবহুল রেস্তোরাঁয়। সেখানে রুপালি রঙের ওয়েস্টার্ন গাউনে সেজেছিলেন শ্রাবন্তী। আর রোশনের পরনে ছিল ব্লেজার-সুট।

এর আগে দু’বার বিবাহবিচ্ছেদ হয়েছে শ্রাবন্তীর। পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের সঙ্গে তার প্রথম বিয়ে হয় ২০০৩ সালে। রাজীব-শ্রাবন্তীর ছেলেও রয়েছে, ওর নাম ঝিনুক। মায়ের সঙ্গেই থাকে সে।

রাজীবের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে শ্রাবন্তীর সম্পর্ক হয় মডেল কৃষণ ব্রজের সঙ্গে। মহাসমারোহে বিয়েও করেন তারা। গত জানুয়ারিতে কৃষণের সঙ্গে বিচ্ছেদ চূড়ান্ত হয়ে যায় শ্রাবন্তীর। তার পরেই নায়িকার সঙ্গে জড়িয়ে যায় রোশনের নাম।

রোশন পেশায় একটি এয়ারলাইন্সের কেবিন ক্রু সুপারভাইজার। তাদের সম্পর্কের বয়স বেশি না হলেও দু’জনেই পরস্পরের পরিবারের ঘনিষ্ঠ। আনন্দপুরে বিশাল ফ্ল্যাটে রোশন এবং নিজের বাবা-মায়ের সঙ্গে দোলের উৎসব উদযাপনও করেছিলেন শ্রাবন্তী।

লা লিগায় খেলার ইচ্ছা ‘নতুন রোনালদো’ ফেলিসের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ বয়স মাত্র ১৯। অসাধারণ সব পারফরম্যান্সে এরই মধ্যে পাদপ্রদীপের আলোয় উঠে এসেছেন জোয়াও ফেলিস। অনেকেই তাকে ‘নতুন রোনালদো’ ডাকতে শুরু করেছে। সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ইউরোপের বেশ কয়েকটি ক্লাব বেনফিকার মিডফিল্ডারকে দলে পেতে আগ্রহী। সম্ভাবনাময় তরুণ এই পর্তুগিজ জানিয়েছেন, দল ছাড়লে তিনি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ নয়, লা লিগাকে বেছে নিবেন। চলতি মৌসুমে পর্তুগালের সেরা লিগে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা দলটির হয়ে এখন পর্যন্ত ১২ গোল করেছেন ফেলিস। ইউরোপা লিগে কোয়ার্টার-ফাইনালে প্রথম লেগে গত বৃহস্পতিবার আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টের বিপক্ষে বেনফিকার ৪-২ ব্যবধানের জয়ে দারুণ এক হ্যাটট্রিক করেন তিনি। ওই ম্যাচের পর ফেলিসের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন জার্মান ক্লাবটির কোচ আদি হুটার। তার মতে, পর্তুগালের অনূর্ধ্ব-১৮, অনূর্ধ্ব-১৯ ও অনূর্ধ্ব-২১ দলের হয়ে খেলা এই ফুটবলার এভাবে পারফর্ম করে গেলে খুব বেশি দিন বেনফিকায় থাকবে না। ইএসপিএনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ফেলিসকে পেতে আগ্রহী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, রিয়াল মাদ্রিদ ও আতলেতিকো মাদ্রিদ। বেনফিকার সঙ্গে তার ২০২৩ সাল পর্যন্ত চুক্তি রয়েছে। চুক্তিতে তার রিলিজ ক্লজ ১২ কোটি ইউরো। সম্প্রতি মার্কাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ফেলিস জানান, ভবিষ্যৎ নিয়ে এখন কিছু ভাবছেন না তিনি। “আমি আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবছি না। আমার সব চিন্তা বেনফিকাকে নিয়ে এবং আমার দলকে লিগ শিরোপা জেতাতে সাহায্য করা নিয়ে। আশেপাশে সবাই কি বলছে তা নিয়ে ভাবতে পারছি না।” “সবসময়ই আমার স্বপ্ন ইউরোপের বড় ক্লাবে খেলা। স্পেন নাকি ইংল্যান্ড? আমি স্পেনকে বেছে নিব।” পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে আদর্শ মানেন ফেলিক্স। জানান, দেশকে ইউরো শিরোপা জেতানো সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলারের সঙ্গে জাতীয় দলে খেলার ইচ্ছার কথা।