বাটের সমালোচনায় হতাশ আফ্রিদী

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান ইজাজ বাট তার অধিনায়কত্ব নিয়ে সমালোচনা করায় হতাশ হয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদী। গত মে মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচে পরাজিত হবার কারণ হিসেবে আফ্রিদীর অধিনায়কত্বকে দায়ী করেছেন পাক বোর্ড প্রধান বাট। এ সম্পর্কে আফ্রিদী লন্ডন থেকে টেলিফোনে বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘আমি খুবই হতাশ। কারন বোর্ড প্রধানের কাছ থেকে এমন কিছু বিষয় বেরিয়ে আসছে যা সত্যিই দুঃখজনক। সে নিজে আমাকে অধিনায়ক বানিয়েছেন। এখানে অন্যদেরও সম্মতি ছিল। বিশেষজ্ঞ থেকে শুরু করে সমর্থকরা পর্যন্ত আমার নেতৃত্বকে প্রশংসিত করেছে এবং আমার অধীনে দলের মধ্যে যে একতা ছিল তার জন্যও আমি প্রশংসিত হয়েছি।’ আফ্রিদী মূলত তার ইমেজকে নষ্ট করার জন্য একপক্ষ প্রচারণা শুরু করেছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন। এক টেলিভিশন সাক্ষাতকারে বৃহস্পতিবার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড চেয়ারম্যান বাট ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে সাবেক অধিনায়ক আফ্রিদীর ব্যপক সমালোচনা করেন। এমনকি তিনি একথাও বলেছেন যে ভবিষ্যতে আফ্রিদী কখনই জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব পাবে না। বাট বলেন, ‘আমার মতামত হয়তবা অনেকের কাছে ভুল মনে হতে পারে। কিন্তু আমি মনে করি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি বছরের মে মাসে অনুষ্ঠিত ওয়ানডে সিরিজের চতুর্থ ও পঞ্চম ওয়ানডেতে আফ্রিদীর কারণেই আমরা পরাজিত হয়েছি। আমার দিক থেকে একটি বিষয় স্পষ্ট করে জানাতে চাই পাকিস্তান দলের অধিনায়কত্ব আর সে কোনদিন গ্রহণ করতে পারবে না।’ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপে ৩-২ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজে জয়ের পরপরই কোচ ওয়াকার ইউনুসের সাথে মতবিরোধের জেড় ধরে আফ্রিদীকে তার পদ থেকে অব্যহতি দেন বাট। পিসিবি’র এই সিদ্ধান্তের পরপরই আফ্রিদী তার চুক্তি ভঙ্গ করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন এবং পিসিবির সমালোচনা করে বলেন তারা দলের সিনিয়র খেলোয়াড়দের সাথে নেতিবাচক আচরণ করছে। এই ঘটনার পরে পিসিবি আফ্রিদীর সাথে চুক্তি বাতিল করে এবং বিদেশে তার খেলার বিরুদ্ধে বিধিনিষেধ জারী করে তাকে ডিসিপ্লিনারি কমিটির সামনে হাজির হতে নির্দেশ দেয়। এর বিরুদ্ধে আফ্রিদী মামলা করলে শেষ পর্যন্ত কোর্টের বাইরে সাড়ে চার মিলিয়ন রুপি (৫২,০০০ ডলার) আর্থিক জরিমানার বিনিময়ে বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়। একই সাথে ইংল্যান্ডে টুয়েন্টি২০ লীগে হ্যাম্পশায়ারের পে খেলার অনুমতি লাভ করেন সাবেক পাক অধিনায়ক। পুরো ঘটনায় দারুণ হতাশ এবারের বিশ্বকাপে ২১ উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর মর্যাদা লাভ করা আফ্রিদী বলেন, ‘পিসিবি আমার সাথে যা করেছে তার বিরুদ্ধে আমি অনেক কথাই বলতে পারতাম। কিন্তু আমি আর এই বিষয়গুলোর প্রতি জড়াতে চাই না। আমার বিরুদ্ধে বাজে প্রচারনা চালানো হচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে আমার অনেক কিছুই বলার ছিল। কিন্তু আমি এই মুহুর্তে আর কিছু বলতে চাই না। কিন্তু আমি এখন যেভাবে সংযত আছি তারা যদি না থামে তবে আমি জনসমে সব বলে দিব। গত বছর ইংল্যান্ডে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগে বিধ্বস্ত পাকিস্তান দলের মধ্যে তার অধীনেই পুরো একতা বজায় ছিল বলে আফ্রিদী মন্তব্য করেছেন। এমনকি বিশ্বকাপের সময় দল নিয়ে কোচ ওয়াকার এবং ম্যানেজার ইন্ডিখাব আলম তার প্রশংসা করেছেন।

মিসবাহ‘র প্রশংসায় ওয়াকার ইউনিস

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ টেস্ট ও ওয়ানডের নেতৃত্বে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যান মিসবাহ উল হককে আদর্শ অধিনায়ক হিসেবে প্রশংসা করলেন কোচ ওয়াকার ইউনিস। মিসবাহর মধ্যে শেখার যে আগ্রহ আছে তাও জানালেন পাকিস্তানের সাবেক পেসার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে খেলোয়াড়দের নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কাছে প্রতিবেদন পাঠিয়েছেন ওয়াকার। প্রতিবেদনে মিসবাহকে পরিণত খেলোয়াড় ও অধিনায়ক হিসেবে বর্ণনা করেছেন তিনি। আজ রোববার একটি সংবাদপত্রে প্রকাশ হওয়া প্রতিবেদনটিতে ওয়াকার লিখেছেন, দলকে যেভাবে সে সুস্থিত অবস্থায় এনেছে এবং সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে তাতে করে তাকেই পুরো কৃতিত্ব দিতে হবে। গত বছর লর্ডসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচ শেষে অবসর নেয়া অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির স্থলাভিষিক্ত সালমান বাট স্পট-ফিক্সিং মামলায় নিষিদ্ধ হন। এরপরই টেস্ট দলের নেতৃত্ব নেন মিসবাহ। গত মে’তে ওয়ানডে দলেও আফ্রিদিকে সরিয়ে মিসবাহকে নেতৃত্ব দেন বোর্ড সভাপতি ইজাজ বাট। ৩৭ বছর বয়সী মিসবাহ সম্পর্কে ওয়াকার বলেছেন, তার পারফরমেন্সও অসাধারণ। দলের খেলোয়াড়রা তার নেতৃত্বে ক্রিকেটকে সত্যি উপভোগ করছে। সে পরিণত এবং শিখতে আগ্রহী। মিসবাহর পারফরমেন্সে বিমোহিত হলেও ওয়াকারের একমাত্র দুশ্চিন্তা বয়স। সাবেক টেস্ট অধিনায়ক তাই এটি নিয়ে এখনই ভাবতে পরামর্শ দিলেন, আমি মনে করি না সে পরবর্তী বিশ্বকাপ পর্যন্ত নেতৃত্ব দিতে পারবে। তাই এখন থেকেই একজন তরুণ নেতার খোঁজে করতে বোর্ডকে আমি পরামর্শ দিতে পারি। এছাড়া ওয়াকার তার প্রতিবেদনে ইউনিস খানের উপস্থিতিকে গুরুত্ব দিয়েছেন। ক্যারিবীয় সফরে তরুণদের জন্য ইউনিসের উপস্থিতি ইতিবাচক ছিল বলে জানান তিনি। তবে সফরের মাঝেই ভাইয়ের মৃত্যুর কারণে দেশে ফিরে আসেন ইউনিস। মোহাম্মদ হাফিজের অলরাউন্ডিং পারফরমেন্সও মুগ্ধ করেছে ওয়াকারকে। এছাড়া অভিজ্ঞ স্পিনার সাঈদ আজমল ও আব্দুর রেহমানকে ম্যাচ জয়ী খেলোয়াড় হিসেবে বর্ণনা করেছেন পাকিস্তান কোচ।

ব্রাজিল হারেনি ড্র করেছে

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ কোপা আমেরিকার প্রথম ম্যাচে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করার পর দ্বিতীয় খেলায়ও জয়ের দেখা পায়নি ব্রাজিল। জয় তো দূরের কথা, বরং উল্টো হারতে বসেছিল টানা দুবারের শিরোপাজয়ীরা। ২-১ গোলে পিছিয়ে পড়ার পর একেবারে শেষমুহূর্তে সমতাসূচক গোল করে ব্রাজিলকে একটি পয়েন্ট এনে দিয়েছেন বদলি হিসেবে মাঠে নামা ফ্রেড। ‘বি’ গ্রুপের অপর খেলায় ইকুয়েডরকে ১-০ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ড প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছে ভেনেজুয়েলা। প্রথমার্ধের ৩৮ মিনিটে চমৎকার একটি গোল করে ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন জাডসন। দ্বিতীয়ার্ধের ১১ মিনিটের মাথায় খেলায় সমতা ফেরান সান্তা ক্রুজ। মার্সেলো এস্তেগারিবিয়ার ক্রস থেকে ব্রাজিলের জালে বল জড়িয়ে দেন প্যারাগুয়ের এই তারকা স্ট্রাইকার। ৬৬ মিনিটে প্যারাগুয়েকে দ্বিতীয় গোলটি এনে দেন বদলি হিসেবে নামা প্যারাগুয়ের স্ট্রাইকার নেলসন হায়েদো ভালদেজ। এরপর ব্রাজিলকে ২-১ গোলে হার মেনে নিয়েই মাঠ ছাড়তে হবে, এমনটা ধরে নিয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু শেষ বাঁশি বাজার কয়েক মিনিট আগে একটি গোল করে কোনোমতে হার এড়াতে সক্ষম হন নেইমারের বদলি হিসেবে মাঠে নামা ফ্রেড।

শ্রীলঙ্কাকে হারালো ইংল্যান্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ সফরকারী শ্রীলঙ্কাকে সিরিজের শেষ একদিনের খেলায় ১৬ রানে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৩-২ ব্যবধানে জিতেছে ইংল্যান্ড। ওল্ড ট্রাফোর্ডে শনিবার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৬৮ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড। জবাবে ৪৮ ওভার ২ বলে ২৫২ রানে গুটিয়ে যায় তিলকারাত্নে দিলশানের দল। শুরুতে ইংল্যান্ডকে দারুন সূচনা এনে দেন দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান অ্যালিস্টার কুক ও ক্রেইগ কিসওয়েটার। প্রথম উইকেট জুটিতে ৮৫ রান তোলেন তারা। তবে ৮৫ থেতে ৯৫, দশ রানের ব্যবধানে তিন উইকেটের হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় ইংল্যান্ড। এরপর হাল ধরেন ইয়ন মগ্র্যান ও জনাথন ট্রট। এ জুটি ইংল্যান্ডকে তিনশর ঘর ছাড়ানোর স্বপ্ন দেখাচ্ছিল। দলীয় ২১৩ রানে মগ্র্যানের বিদায়ে পর হুড়মুড় করে ভেঙ্গে পড়ে ইংল্যান্ডের ব্যাটিং সারি। সুরাজ রনদিপের ঘূর্ণি সামাল দিতে না পারায় ৯ উইকেটে ২৬৮ রানে আটতে যায় স্বাগতিক দলের পালা। রনদিপ ৪২ রান দিয়ে নেন পাঁচ উইকেট। ট্রটের ব্যাট থেকে আসে ৭২ রান। তিনটি চারের মার আছে তাতে। দুটি চারের সাহায্যে মগ্র্যান করেন ৫৭ রান। ২৬৯ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ২৯ রানে দিমুত কারুনারাত্নে, তিলকারাত্নে দিলশান ও মাহেলা জয়াবর্ধনের উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। কিন্তু কুমার সাঙ্গাকারা ও দিনেশ চান্দিমালের ব্যাটিংয়ে ম্যাচ এবং একই সঙ্গে সিরিজে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে অতিথিরা। চতুর্থ উইকেটে ৯৪ রানের জুটি পর ৮ রানের ব্যবধানে দু’জনই সাজঘরের পথ ধরায় জয়ের আশা আবারও বিবর্ণ হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার। কিন্তু দুই অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ও জীবন মেন্ডিসের দুর্দান্ত ব্যাটিং শ্রীলঙ্কাকে জয়ের দুয়ারে নিয়ে যায়। ১৬ ওভার ১ বলে ১০২ রানের জুটি গড়েন তারা। দলীয় ২৩৩ রানে জীবন (৪৮) বিদায় নিলে একা আর পেরে উঠেননি অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস (৬২)। ৪৮ ওভার ২ বলে সব উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কার পালা ২৫২ রানে থেমে যায়। ইংল্যান্ডের পক্ষে টিম ব্রেসনান তিনটি ও জেমস অ্যান্ডারসন দুটি উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হন জনাথন ট্রট। আর অসাধারণ ‘পারফর্মেন্সে’র জন্য ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক পান সিরিজ সেরার সম্মান।

আমলায় ক্রিকেট প্রশিক্ষণ শুরু

কাঞ্চন কুমার \ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা সরকারী কলেজ প্রাঙ্গনে গতকাল রবিবার বিকেল থেকে আমলা সদরপুর ক্রিকেট কোচিং স্কুলের আয়োজনে ১২-১৯ বছর বয়সী ছেলে মেয়েদের ক্রিকেট কোচিং শুরু হয়েছে। ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন কোচ নিজাম উদ্দিন মানিকের তত্বাবধানে সপ্তাহে রবি ও সোমবারে এ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হবে। এ সময় কুষ্টিয়া অ্যাম্পিয়ার এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাবেক ক্রিকেটার ওবাইদুল্লা মিঠু, বাংলাদেশ আনসার সাঁতার কোচ এমদাদুল হক সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৮১ রানে এগিয়ে

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ ডমিনিকা টেস্টের চতুর্থ দিন শেষে দ্বিতীয় পালায় ৬ উইকেটে ২২৪ রান করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ভারতের চেয়ে ৮১ রানে এগিয়ে আছে তারা। এক প্রান্তে শিবনারায়ন চন্দরপল ৭৩ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। অন্য প্রান্তে ১ রানে অপরাজিত আছেন অধিনায়ক ড্যারেন সামি। এর আগে ৩৪৭ রানে গুটিয়ে যায় ভারতের প্রথম পালা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম পালায় করে ২০৪ রান। বৃষ্টির কারণে প্রথম দুই দিনে মাত্র ৮০ ওভার ৩ বল খেলা হলেও তৃতীয় দিন খেলা হয় ৯৪ ওভার। চতুর্থ দিন ভেজা মাঠের কারণে খেলা কিছুটা দেরিতে শুরু হলেও পরে আর কোনো সমস্যা হয়নি। এদিন ৯৩ ওভার খেলা হয়। ১৪৩ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় পালায় ব্যাট করতে নেমে শুরুটা একদমই ভালো হয়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ১০ রানের মধ্যেই দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আদ্রিয়ান বারাথ (৬) ও কিয়েরন পাওয়েলকে (৪) হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় স্বাগতিকরা। এই অবস্থায় কির্ক এডোয়ার্ডস হাল ধরে খেলতে থাকেন। দলীয় ৪০ রানে ড্যারেন ব্রাভোও (১৪) বিদায় নেন। এডোয়ার্ডসের সঙ্গী হিসেবে মাঠে নামেন শিবনারায়ন চন্দরপল। ভারতের বোলারদের হতাশ করে দুজনে দলকে ভালো অবস্থায় নিয়ে যেতে থাকেন। অভিষেক টেস্টেই শতকের দেখাও পেয়ে যান এডোয়ার্ডস। শেষ পর্যন্ত দলকে ৫৮ রানের ‘লিড’ এনে দিয়ে থামতে বাধ্য হন তিনি। হরভজন সিংয়ের বলে উইকেটের পেছনে মহেন্দ্র সিং ধোনির হাতে ধরা পড়ার আগে ১৯৫ বলে ১১০ রান করেন এডোয়ার্ডস। তিনি ইনিংসটি সাজান ৯টি চার ও ১টি ছক্কা দিয়ে। দলীয় রান তখন ২০১। শেষ বিকেলে মার্লোন স্যামুয়েল্স (০) ও কার্লটন বগের (১০) উইকেট দুটি দ্রুত তুলে নেয় ভারত। তবে অপরাজিত থেকেই দিন শেষ করেন চন্দরপল। ভারতের পক্ষে ৬১ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন হরভজন সিং। এছাড়া ২৯ রানের বিনিময়ে ২ উইকেট দখল করেন প্রবিন কুমার। এর আগে ৬ উইকেটে ৩০৮ রান নিয়ে শনিবার চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে ভারত। এদিন দুই বল মোকাবেলা করেই সাজঘরের পথ ধরেন আগের দিনের অপরাজিত ব্যাটম্যান হরভজন সিং। আগের দিনের ১২ রানের সঙ্গে আর কোনো রান যোগ করতে পারেননি তিনি। অন্য অপরাজিত ব্যাটসম্যান মহেন্দ্র সিং ধোনিও নিজের ইনিংসকে বেশি দূর টেনে নিতে পারেননি। আগের দিনের ৬৫ রানের সঙ্গে আর ৯ রান যোগ করে ফিডেল এডোয়ার্ডসের বলে দেবেন্দ্র বিশুর হতে ধরা পড়েন তিনি। ১৩৩ বলে খেলা ৭৪ রানের ইনিংসে তিনি দড়ির ওপারে বল পাঠান চারবার। প্রবিন কুমার ২৩ রান করেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে ফিডেল এডোয়ার্ডস ১০৩ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট। এছাড়া ২টি করে উইকেট নেন ড্যারেন সামি ও দেবেন্দ্র বিশু। এজন্য সামি দেন ৫১ রান। বিশু ১২৫। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটি জেতে ভারত। দ্বিতীয় টেস্ট অমীমাংসিতভাবে শেষ হয়।

শেষ আটের প্রান্তে চিলি-পেরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ ফেবারিট আর্জেন্টিনা লড়াই করছে নিজেদের টুর্নামেন্টে বাঁচিয়ে রাখতে। প্রথম ম্যাচে খুঁজে পাওয়া যায়নি আসল ব্রাজিলকেও। কিন্তু সুখের আবেশে পথ চলছে পেরু আর চিলি। কাল শেষ আটের প্রান্তে পৌঁছে গেছে দুটি দলই। সর্বশেষ ১৯৭৫ সালে দক্ষিণ আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পরা পেরু মেক্সিকোকে ১-০ গোলে হারিয়েছে পাওলো গুয়েরেরোর গোলে। কোপা আমেরিকার চারবারের ফাইনালিস্ট চিলি ১-১ গোলে ড্র করেছে উরুগুয়ের সঙ্গে। আলভেরো পেরেইরার গোলে প্রথমে অবশ্য এগিয়ে গিয়েছিল আর্জেন্টিনার সঙ্গে যৌথভাবে সর্বোচ্চ ১৪ বার কোপাজয়ী উরুগুয়ে। চিলিতে সমতায় ফেরান অ্যালেক্সিস সানচেজ। স্বাগতিক আর্জেন্টিনার ১৮ বছরের শিরোপা-খরা কাটানোর মিশন, পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়ের অভিযান; এবারের কোপার ফেবারিট এই দুটি দলকেই ধরে নিয়েছে সবাই। কিন্তু নীরবে যে পেরু তাদের ৩৬ বছরের শিরোপা-খরা কাটানোর সংকল্প করেছে! পেরুর সংকল্প জানান দিচ্ছে তাদের মাঠের পারফরম্যান্সে। প্রথম ম্যাচে গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্ট উরুগুয়ের সঙ্গে ড্র করেছে। কাল মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচের শুরু থেকেই নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। ভালো খেলেও গোল পাচ্ছিল না, খেলা শেষের ৮ মিনিট আগে সেই অভাবটা পূরণ করে দেন উদিনেসের স্ট্রাইকার গুয়েরেরো। ২ ম্যাচে ২ গোল করে গুয়েরেরোই এখন টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা। প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন পরের ম্যাচেও গোল করবেন। তবে প্রতিশ্রুতি না দিয়েও প্রতিভার ঝলক দেখিয়ে যাচ্ছেন আরেক উদিনেসে ফরোয়ার্ড সানচেজ। চিলিকে কোয়ার্টার ফাইনালের কাছে নিয়ে গেছেন তিনিই। ৫৬ মিনিটে দারুণ ফিনিশিংয়ে গোল দেন সানচেজ। গোটা চিলি দলই ভালো খেলেছে কাল। চিলির আর্জেন্টাইন কোচ ক্লদিও বোর্গি দলের খেলায় মহাখুশি। ‘আমি দলকে এভাবে খেলাতেই পছন্দ করি। জয়ের চেয়ে সুন্দর ও আক্রমণাত্মক ফুটবলেই বিশ্বাসী আমি’-বলেছেন আর্জেন্টিনার ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য। দ্বিতীয় ম্যাচ শেষে চিলি-পেরু দুই দলেরই পয়েন্ট সমান ৪ করে। পরের ম্যাচে ড্র করতে পারলেই দুই দলই উঠে যাবে কোয়ার্টার ফাইনালে। আগামী ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে চিলি-পেরু। বিশ্বকাপে ‘গোল্ডেন বল’ জেতা ডিয়েগো ফোরলানের দল উরুগুয়ের হিসাবটা একটু জটিল হয়ে গেছে। মেক্সিকোর কাছে হেরে গেলে বাদ পড়বে, তৃতীয় সেরা দুই দলের একটি হয়ে শেষ আটে যেতে হলে উরুগুয়েকে অবশ্যই জিততে হবে। ড্র করলেও হয়তো ক্ষীণ আশা থাকবে।

বলিভিয়ার বিপক্ষে চ্যালেঞ্জের জন্য প্রস্তুত কলোম্বিয়া

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ আর্জেন্টিনার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ড্র করার কারণে কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনালের পথে এক পা ইতোমধ্যে বাড়িয়ে রেখেছে কলোম্বিয়া। তবে গ্রুপের শেষ ম্যাচে বলিভিয়ার মুখোমুখি হবার আগে কিছুটা বাড়তি সতর্কতা তাদের মধ্যে রয়েই যাচ্ছে। কারন স্বাগতিক আর্জেন্টিনার সাথে ড্র করে বলিভিয়াও পরের রাউন্ডে যাবার ব্যপারে নিজেদের কিছুটা এগিয়ে রেখেছে। রোববার রাতে সান্টা ফে’তে দু’দলের মোকাবেলায় কলোম্বিয়ার সামনে সুযোগ এসেছে গ্রুপ এ এর শীর্ষ দল হিসেবে নিজেদের প্রমান করার। বিশেষ করে কোস্টা রিকার পে জয় এবং গ্রুপের শক্তিশালী দল আর্জেন্টিনার বিপে ড্র করে এখন পর্যন্ত পয়েন্ট তালিকার শীর্ষেই অবস্থান করছে কলোম্বিয়ানরা। আর্জেন্টাইনদের বিপে শুধুমাত্র গোল করতে ব্যর্থ হওয়ায় তারা ম্যাচটি জিততে পারেনি। ব্রিগেডিয়ার এস্টানিসলাও লোপেজ স্টেডিয়ামে কলোম্বিয়ান কোচ হার্নান ডারিও ’বলিলিও’ গোমেজ একই দল নিয়ে মাঠে নামার পরিকল্পনা করেছেন। গোমেজ বলেন, ’’আমরা জানি যে কোপা আমেরিকার পরবর্তী রাউন্ডে যেতে হলে এই ম্যাচটিই আমাদের সামনে একমাত্র পথ খুলে দিতে পারে। বলিভিয়ার প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখেই বলতে চাই আমরা ম্যাচটিতে জেতার জন্যই মাঠে নামব।’’ কিন্তু একই সাথে তিনি দলীয় সমর্থকদের প্রতি সতর্কবার্তা ছুঁড়ে দিয়ে বলেছেন বলিভিয়ার এই দলটি মাত্রই একসাথে খেলার জন্য একত্রিত হয়েছে। এবং এখানে একটি বিষয় মনে রাখতে হবে তিন বছর পরে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলতে হলে এখান থেকেই প্রতিটি দলকে বাছাইপবের্র প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। এদিকে বলিভিয়ার কোচ গুস্তাভো কুইনটেরোস আজকের ম্যাচের জন্য বাড়তি কিছু পরিকল্পনা নিয়েই মাঠে নামছেন। বিশেষ করে আর্জেন্টিনার বিপে দারুন খেলা রোনাল্ড রিভারো এবং ওয়াল্টার ফোরেস কার্ডের জন্য আজকের মাঠে খেলতে পারছেন না যা বলিভিয়াকে নিঃসন্দেহে দুঃশ্চিন্তায় ফেলেছে। তবে শক্ত প্রতিপরে বিপে জয়ের জন্য মাঠে নামবে বলিভিয়া। কয়েকজন খেলোয়াড় মাঠের বাইরে থাকলেও এই টুর্নামেন্টে যেকোন দলই অন্য দলকে পরাজিত করার মতা রাখে বলে কুইনটোরোস ইঙ্গিত দিয়েছেন।

আর্জেন্টিনায় আবার ‘ম্যারাডোনা’ রব

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ গত বছর ফুটবল বিশ্বকাপের পর ম্যারাডোনার সঙ্গে অনেক লড়াই চালিয়ে আর্জেন্টিনার কোচ হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছিলেন সার্জিও বাতিস্তা। কিন্তু নিজেদের মাটিতে অনুষ্ঠিত কোপা আমেরিকার প্রথম দুই ম্যাচে আর্জেন্টিনা হতাশাজনকভাবে ড্র করার পর জনসমর্থন হারাচ্ছেন এই আর্জেন্টাইন কোচ। এক বছর যেতে না যেতেই আবার ম্যারাডোনাকে ফিরিয়ে আনার দাবি তুলেছে আর্জেন্টিনার ফুটবল পাগল মানুষেরা। কোপা আমেরিকার উদ্বোধনী ম্যাচেই বলিভিয়ার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে বড় একটা হোঁচট খেয়েছে আর্জেন্টিনা। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচের ফলাফল আরও হতাশাজনক। এবার কলম্বিয়ার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে মাঠ ছেড়েছেন বাতিস্তার শিষ্যরা। আগামী ১২ জুলাই কোস্টারিকার বিপক্ষে জিততে না পারলে হয়তো প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিতে পারে স্বাগতিক আর্জেন্টিনা। ১৮ বছর পর কোপা আমেরিকা জয়ের স্বপ্ন দেখা আর্জেন্টিনার মানুষ কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না এই হতাশাজনক পরিস্থিতি। এ সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসিকেও যেমন দুয়োধ্বনি শুনতে হয়েছে, তেমনি কোচ সার্জিও বাতিস্তার ওপরও আর আস্থা রাখতে পারছে না আর্জেন্টাইন সমর্থকেরা। কিংবদন্তি ম্যারাডোনাকেই আবার ফিরিয়ে আনার দাবি উঠেছে বলে একটি প্রতিবেদনে দাবি করেছে ডেইলি মেইল। এটা নিশ্চিত, আর্জেন্টিনা যদি প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেয়, তাহলে জাতীয় দলের সঙ্গে বাতিস্তার আর থাকা হবে না।

আর্জেন্টিনা কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা পাবে-মেসি

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ দুটি ড্র দিয়ে আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা অভিযান শুরু হয়েছে দুর্বলভাবে। দুই দশকের শিরোপা খরা ঘুচানোর কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না দলটির মধ্যে। কিন্তু তারকা লিওনেল মেসির বিশ্বাস, আর্জেন্টিনা ঠিকভাবে ফিরে আসবে এবং কোয়ার্টার ফাইনালেও জায়গা পাবে। বিশ্বের বর্ষসেরা খেলোয়াড় মেসি বার্সার জার্সি গায়ে অপ্রতিরোধ্য হলেও আর্জেন্টিনার জন্য বড় অবদান রাখতে পারেননি। তার জ্বলন্ত পারফরমেন্স যেখানে প্রত্যাশিত ছিল সেখানে আর্জেন্টিনা বলিভিয়ার সঙ্গে ড্র করার পর কলম্বিয়ার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে। ১৯৯৩ সালে শেষ বড় কোনো শিরোপা হিসেবে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা। গত বছর ব্রাজিলের কাছে টুর্নামেন্টের ফাইনালে হেরে যাওয়াই ছিল তাদের সর্বোচ্চ পারফরমেন্স। কিন্তু এবার ঘরের মাঠে তারাই সবচেয়ে ফেবারিট। মেসি বললেন, সোমবার তারা কোস্টারিকার বিপক্ষে দুর্দান্তভাবে ফিরে আসবেন। রোববার গ্রুপের অন্য দল কলম্বিয়া যদি বলিভিয়ার বিপক্ষে জয় বা ড্র পায় তবে আর্জেন্টিনার জন্য শেষ ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই। মেসির ওপর তাই এ ম্যাচে প্রত্যাশা আরো বেশি। বার্সা তারকা বললেন, আমি স্বস্তিবোধ করছি এবং জয়ের জন্য মুখিয়ে আছি। আমি আত্মবিশ্বাসী যে দল দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে পারবে। গত মার্চে কোস্টারিকা প্রীতি ম্যাচে আর্জেন্টিনার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল। কিন্তু আর্জেন্টিনা এর পুনরাবৃত্তি করতে চায় না। সর্বশেষ কোপা আমেরিকা জয়ী আর্জেন্টিনা দলের কোচ আলফিও বাসিলে শনিবার জানিয়েছেন, আমরা যদি সামনে যেতে না পারি তবে এটা হবে একটা বিপর্যয়। কিন্তু আমাদের জেতা উচিত। অন্যদিকে শুক্রবার কোচ বাতিস্তা দলে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছেন। কার্লোস তেভেজ ও এজিকুয়েল লাভেজ্জিকে বেঞ্চে বসে থাকতে হতে পারে। সাবেক ব্রাজিল তারকা বেবেতো লিওনেল মেসিকে সেরা হিসেবে প্রমাণ করতে পরামর্শ দিয়েছেন। আন্তর্জাতিক সম্মান পেতে মেসিকে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে সেরা পারফরমেন্স করতে হবে বলে মনে করেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন

দেশব্যাপী বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্টের অংশ হিসেবে গতকাল শনিবার সকাল ৯ টায় কুষ্টিয়া পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটের ফুটবল মাঠে পৌরসভার কমিটির আয়োজনে  কুষ্টিয়া পৌর এলাকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে এ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করা হয়েছে। কুষ্টিয়ার নয়া জেলা প্রশাসক বনমালী ভৌমিক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে এ টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করেন। টুর্ণামেন্ট কমিটির  সভাপতি ও কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলী সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার আলাউদ্দিন, কুষ্টিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর খন্দকার সাজেদুল হক, আনিছ কোরাইশী,  খান. এ. করিম অকুল, সাইফ-উল হক মুরাদ, আনোয়ারা ইসলাম, জেলা আওয়ামীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন আহমেদ, জেলা ক্রীড়া সংস্থার কোষাধ্যক ও  জেলা আওয়ামীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক খন্দকার ইকবাল মাহমুদ, শহর আওয়ামীগের সহ-সভাপতি মাসুদুর রহমান তোতা, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা জিল­ুর রহিম। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ। উদ্বোধনী দিনে  ১৮ টি দল অংশগ্রহণ করে। আজ চুড়ামত্ম পর্বে খেলা অনুষ্ঠিত হবে। খেলা পরিচালন করেন কুষ্টিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর খন্দকার সাজেদুল হক ছকু। তাকে সহযোগিতা করেন জুয়েল ও এরশাদ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ভেড়ামারায় সঃ প্রাঃ বিঃ ছাত্র-ছাত্রীদের ফুটবল প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরন

ভেড়ামারা প্রতিনিধি ॥ ভেড়ামারা কলেজ মাঠে গতকাল শনিবার বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা গোল্ড কাপ টুর্ণামেন্টের  আঞ্চলিক পৌর এলাকার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ও ছাত্রীদের মধ্যে পৃথক ফুটবল প্রতিযোগিতার  ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরন  অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভেড়ামারা প্রেসকাবের সভাপতি ও ভেড়ামারা ডিগ্রী কলেজের শিক জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েল। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রাজিবুল ইসলামের সহধর্মীনি শাহিনা আক্তার। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভেড়ামারা পৌর সভার মেয়র শামিমুল ইসলাম ছানার সহধর্মীনি সাবিনা ইয়াসমিন পুতুল, ভেড়ামারা সাতবাড়িয়া মডেল সরকারী  প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক আমেনা খাতুন, ভেড়ামারা এ ইউ ই ও শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। ছাত্রদের মধ্যে ফুটবলের ফাইনাল খেলায় চ্যাম্পিয়ন হন ফারাকপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, রানার্স আপ হন সাতবাড়িয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। ছাত্রীদের মধ্যে  ফুটবলের ফাইনাল খেলায় চ্যাম্পিয়ন হন ভেড়ামারা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, রানার্স আপ হন সাতবাড়িয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। খেলাটি পরিচালনা করেন এমদাদুল হক সহযোগীতা করেন ইমতাজ আলি ও আকবর হোসেন। সব শেষে অতিথিবৃন্দ বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

মেক্সিকোর নিষিদ্ধ ৫ ফুটবলার নির্দোষ

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ মাদক গ্রহণের অভিযোগ থেকে মুক্তি পেলেন মেক্সিকোর পাঁচ ফুটবলার। দেশটির ফুটবল ফেডারেশন শুক্রবার তাদের ওপর থেকে ওই অভিযোগ তুলে নেয়। সেই সঙ্গে তাদের নিষেধাজ্ঞাও বাতিল করা হয়েছে। ফেডারেশন জানিয়েছে বিষয়টি তারা ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফাকেও জানাবে। ওই খেলোয়াড়দের ডোপ টেস্টে ‘পজিটিভ’ হওয়ার জন্য ‘দূষিত খাবার‘কে দায়ী করেছে ফেডারেশন। মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট ফিলিপ কালদেরনও স্বীকার করেছেন, দূষণ তার দেশে একটি বড় সমস্যায় পরিণত হয়েছে। কনকাকাফ গোল্ডকাপ ফুটবল প্রতিযোগিতার আগে ২১ মে মেক্সিকোর খেলোয়াড়দের মাদক পরীক্ষা দিতে হয়। সেখানে ধরা পড়েন ওই পাঁচ খেলোয়াড়। যদিও প্রথম থেকেই তারা মাদক গ্রহণের বিষয়টি অস্বীকার করে আসছেন। মেক্সিকো ফুটবল ফেড়ারেশনের সেক্রেটারি জেনারেল দিসিও দি মারিয়াও খেলোয়াড়দের পক্ষেই সাফাই গেয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, নিষিদ্ধ মাদক দ্রব্য গরুর মাংসের সঙ্গে মেশানো ছিলো, যা খাবার হিসেবে খেলোয়াড়রা খেয়েছেন। পরে মেক্সিকো ফুটবল ফেডারেশন খেলোয়াড়দের নিষিদ্ধ করে। ফলে কনকাকাফে তাদের ছাড়াই অংশ নেয় মেক্সিকো। যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে শিরোপাও জেতে তারা। যে পাঁচজন ফুটবলার নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তারা হলেন, গোলরক্ষক গুইলারমো ওছোয়া, ফ্রান্সিসকো রড্রিগুয়েজ, অ্যামত্মনিয়ো নেলসন, ক্রিশ্চিয়ান বারমুদেজ ও এডগার ডুয়েনাস।

পাকিসত্মানের দাবি মানছে না ভারত

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ রাজনৈতিক টানাপোড়েনে আবারও বন্ধ হয়ে আছে ক্রিকেটের পরম প্রার্থিত ভারত-পাকিসত্মান দ্বৈরথ। আইসিসি নিজে থেকে উদ্যোগ নিয়েছে এই সিরিজ আবার চালু করার। নিকট ভবিষ্যতে ভারতীয় দলের পাকিসত্মান সফর করার সম্ভাবনা নেই বলে ‘হোম’ সিরিজটি ভারতে গিয়েই খেলে আসতে রাজি পাকিসত্মান। কিন্তু সে ক্ষেত্রে তাদের চাওয়া, সিরিজ থেকে লভ্যাংশ সমান ভাগাভাগি হতে হবে। অন্যায় চাওয়া নয়। সিরিজটা পাকিসত্মানে হলে পুরো টাকাই তো তাদের পকেটে যেত। কিন্তু পিসিবির এই দাবি মানছে না ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। পিসিবির সভাপতি ইজাজ বাট বলেছেন, ‘আমরাও আশা করি, সিরিজ আবার শুরু হবে। আমরা ওদের বলেছিও, ভারতে গিয়ে খেলতে আমাদের আপত্তি নেই। কিন্তু আয়টা ৫০-৫০ ভাগাভাগি করতে হবে। ওরা এই প্রসত্মাবে রাজি নয়। স্বাভাবিকভাবেই বাকি যেকোনো শীর্ষস্থানীয় দলের চেয়ে ভারতের সঙ্গে খেললে আমাদের বেশি আয় হবে। পুরো ব্যাপারটা নিয়ে এখনো আলোচনা করতে হবে। কিন্তু ওরা যে দাবিগুলো করছে, সবই একতরফা।’

সাকিবের উস্টারশায়ারের জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ ওয়ারউইকশায়ারকে হারিয়ে দ্য ফ্রেন্ডস লাইফ টি-টোয়েন্টির প্রতিযোগিতার তৃতীয় স্থানে উঠেছে সাকিব আল হাসানের দল উস্টারশায়ার। ওয়ারউইককে ৬ রানে হারিয়েছে সাকিবের দল। উস্টারশায়ার: ১১২/৭ (২০ ওভার)। ওয়ারউইকশায়ার: ১০৬/৮ (২০ ওভার)। ফল: উস্টারশয়ার ৬ রানে জয়ী। নিউ রোডে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধামত্ম নেয় উস্টারশয়ার। ব্যাট করতে নেমে ওয়ারউইকশায়ারের বোলিং তোপে পড়ে তারা। দলীয় ৪৭ রানের মধ্যে চার উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে স্বাগতিকরা। প্রথম ওভারে ক্রিস ওয়াকেসের বলে পোর্টারফিল্ডের হাতে ধরা পড়েন ওপেনার জ্যাক ম্যানুয়েল (৪)। সমিত প্যাটেলের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন অন্যওপেনার মঈন আলী (১)। আলেক্স কারভেজী ১৩ ও বাংলাদেশের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান সাজঘরে ফেরেন ব্যক্তিগত ২১ রানে। কারভেজীকে বার্কার ও সাকিবকে ক্যাচ আউট করেন বোথা। চার ব্যাটসম্যান বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন জেমস ক্যামেরুন। বার্কারের দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে ৪০ বলে ৩৭ রান করেন তিনি। একটি চার ও একটি ছক্কার মার ছিলো তার ইনিংসে। শেষপর্যমত্ম সাত উইকেট হারিয়ে ১১২ রান করতে সমর্থ হয় উস্টারশায়ার। ১০ রান দিয়ে দুটি উইকেট নেন কেইথ বার্কার। এছাড়া একটি করে উইকেট নেন ক্রিস ওয়াকেস, সমিত প্যাটেল, স্টিফান পিওলেট, আন্ট বোথা ও ড্যারেন মাডি। জবাবে ব্যাট করতে নেমে সাকিব আল হাসানদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে চাপে পড়ে ওয়ারউইকশায়ার। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে জয় থেকে ৬ রান দূরে থাকতেই শেষ হয় নির্ধারিত ওভারের খেলা। টান টান উত্তেজনার ম্যাচে শেষ হাসি হাসে সাকিবরাই। জ্যাক সান্ট্রি দুটি এবং সাকিব আল হাসান, গারাথ অ্যান্ড্রু, সাঈদ আজমল, ড্যারেল মিচেল ও শায়িক চৌধুরি একটি করে উইকেট নিয়ে ধ্বস নামান ওয়ারউইকশায়ারের ইনিংসে। সবচেয়ে বেশি ২৭ (অপ.) রান করেন টিম আমব্রুজ।

খেলায় শক্তি পরীক্ষা দিতে হচ্ছে : কুক

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ অ্যান্ডি স্ট্রাউসের পর ইংল্যান্ডের ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব নিয়েছেন অ্যালিস্টার কুক। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজটি দিয়ে শুরু হয়েছে তাঁর নতুন ক্যারিয়ার। এখন পর্যমত্ম নেতৃত্বের ভারটা মোটামুটি ভালোভাবেই সামলেছেন এ উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পঞ্চম ওয়ানডেটা জিততে পারলেই সিরিজ জয় দিয়ে শুরু হবে তাঁর অধিনায়কত্ব যাত্রা। এখন বিশ্বকাপজয়ী ভারতের বিপক্ষে সিরিজটাতেও নিজেদের শক্তিমত্তা যাচাই করে নিতে চান কুক। আগামী ৩ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে পাঁচ ম্যাচের এই ওয়ানডে সিরিজ। সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেছেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে আমার প্রথম দুটি সিরিজই খেলতে হচ্ছে বিশ্বকাপের দুই ফাইনালিস্ট শ্রীলঙ্কা ও ভারতের বিপক্ষে। সবাই বলছে যে তারা কত শক্ত প্রতিপক্ষ। কিন্তু আমরাও এ সেরা দুটি দলের বিপক্ষেই নিজেদের শক্তিমত্তাটা ভালোমতো যাচাই করে নিতে চাই। এতে নিজেদের সামর্থ্য সম্পর্কেও আমরা একটা ভালো ধারণা পাব।’ ইংল্যান্ড সফরে প্রথমেই চার ম্যাচের একটি টেস্ট সিরিজ খেলবে ভারত। এ সময় অধিনায়কের ভার থাকবে অ্যান্ডি স্ট্রাউসের ওপর। বারবার এ অধিনায়কত্ব বদলের ফলে কিছু সমস্যা তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকেই। তবে এমন ভাবনা একেবারেই পাত্তা দিচ্ছেন না কুক। তিনি বলেছেন, ‘অধিনায়কত্বের বদলে কোনো সমস্যা হবে বলে আমার মনে হয় না। বরং এ কিছু সময়ের বিরতি আমার জন্য অনেক কার্যকরী হতে পারে।’

পেরুর কষ্টার্জিত জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ কোপা আমেরিকার প্রথম নয়টি ম্যাচের ছয়টিই শেষ হয়েছে ড্র দিয়ে। মেক্সিকো ও পেরুর মধ্যকার দশম ম্যাচটির ভাগ্যও সেদিকেই যাচ্ছে বলে ধরে নিয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু ৮২ মিনিটে পাওলো গুয়েরোর গোল থেকে অবশেষে মেক্সিকোর বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পেরু। এখন ‘সি’ গ্রুপের দুটি করে ম্যাচ শেষে চার পয়েন্ট নিয়ে চিলির সঙ্গে যৌথভাবে প্রথম স্থানে আছে তারা। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হারার ফলে কোপা আমেরিকার প্রথম রাউন্ড থেকেই মেক্সিকোর বিদায়টা প্রায় নিশ্চিতই হয়ে গেছে। দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার লড়াইয়ে অনেকখানিই এগিয়ে আছে পেরু ও চিলি। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে এই দুই দল মুখোমুখি হবে ১৩ জুলাই। সেই ম্যাচে শুধু ড্র করলেই দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত হয়ে যাবে তাদের। অন্যদিকে প্রথম দুটি ম্যাচই ড্র করায় এ মুহূর্তে প্রথম রাউন্ড থেকেই হতাশাজনক বিদায়ের আশঙ্কা ভর করেছে উরুগুয়ের শিবিরে। দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট পাওয়ার জন্য ১৩ জুলাই মেক্সিকোর বিপক্ষে জয় পেতেই হবে গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্টদের।

আবার ড্র করলো উরুগুয়ে

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ আর্জেন্টিনার মত আবারো ড্রয়ের ফাঁদে আটকা পড়লো উরুগুয়ে। কোপা আমেরিকায় গ্র”প পর্যায়ে নিজেদের দ্বিতীয় খেলায় চিলির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে তারা। অন্য খেলায় পেরু ১-০ গোলে হারিয়েছে মেক্সিকোকে। খেলার একমাত্র গোলটি করেন পেরুর হোসে গুয়েরেরো। নিজেদের উদ্বোধনী খেলায়ও পেরুর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছিলো উরুগুয়ে। ফলে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলা দলটির জন্য নকআউট পর্বে ওঠা কঠিন হয়ে গেল। এদিকে এই ম্যাচ জিতলেই চিলির নকআউট পর্ব নিশ্চিত হয়ে যেত। দুই খেলায় ৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘সি’ গ্র”পের শীর্ষ দল চিলি। সমান খেলায় পেরুর পয়েন্টও ৪। তবে গোল গড়ে এগিয়ে আছে চিলি। দুই খেলায় ২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় তৃতীয়স্থানে উরুগুয়ে। আর দুই খেলাতেই হেরে কোনো পয়েন্ট না পাওয়া মেক্সিকোর বিদায় প্রায় নিশ্চিত। যদিও শুরুতে অপেক্ষাকৃত ভালো খেলছিলো উরুগুয়ে। গোলের প্রথম সুযোগটাও তারাই পেয়েছিলো। দিয়াগো ফোরলানের উঁচু করে মারা লম্বা পাসের বল চিলির বক্সের মধ্যে নাগাল পান এডিসন কাভানি। মাথা দিয়ে তা তিনি দেন লুইস সুয়ারেজকে। কিন্তু গোল করতে ব্যর্থ হন সুয়ারেজ। গোলপোস্ট লক্ষ্য করে মারা তার বল বারের ওপর দিয়ে চলে যায়। সুযোগ পেয়েছিলো চিলিও। প্রথমার্ধের বিরতির আগ মুহূর্তে ২৫ গজ দূর থেকে নেয়া চিলির আক্রমণভাগের খেলোয়াড় মাউরিকিও ইসলার শট চমৎকার ভাবে ঠেকিয়ে দেন উরুগুয়ের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় সেবাসিত্ময়ান কোয়াতে। দ্বিতীয়ার্ধের আট মিনিটের মাথা গোল করে উরুগুয়েকে এগিয়ে নেন আলভারো পেরেইরা। যদিও মূল কৃতিত্ব সুয়ারেজের। চিলির বক্সে জটলার মধ্য থেকে বল নিয়ন্ত্রণে নেন সুয়ারেজ। নিচু আড়াআড়ি শটে তিনি বল দেন গোলপোস্টের কাছে দাঁড়ানো অরক্ষিত পেরেইরাকে। আলতো শট বল জালে ১-০ ব্যবধানে দলকে এগিয়ে নেন পেরেইরা। তবে বেশিক্ষণ এই ব্যবধান ধরে রাখতে পারেনি উরুগুয়ে। ১০ মিনিট পর সানচেজ গোল করে চিলিকে সমতায় ফেরান। বাকি সময়টাতে জয়সূচক গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে দুই দলই। উরুগুয়ের গোলরক্ষক মুসলেরাকে দুবার কঠিন পরীক্ষায়ও পড়তে হয়েছিলো। শেষ পর্যমত্ম খেলা অমীমাংসিতই থাকে। গ্রুপ পর্যায়ে নিজেদের শেষ খেলায় ১২ জুলাই মুখোমুখি হবে চিলি ও পেরু (বাংলাদেশ সময় ১৩ জুলাই ভোর ৪টা ১৫ মিনিটে) এবং উরুগুয়ে ও মেক্সিকো (বাংলাদেশ সময় ১৩ জুলাই সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে)।

মেসির ওপর চাপ বেড়েছে

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ সদ্য শেষ হওয়া ইউরোপিয়ান মৌসুমে দুর্দামত্ম পারফরমেন্স দেখিয়েছিলেন লিওনেল মেসি। ৩৩ ম্যাচে ৩১টি গোল করে বার্সেলোনাকে জিতিয়েছিলেন স্প্যানিশ লিগ শিরোপা। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নস লিগেও সবাইকে মুগ্ধ করে দিয়েছিলেন জাদুকরি পারফরমেন্স দেখিয়ে। ১৩ ম্যাচে সর্বোচ্চ ১২টি গোল করে ইউরোপ-সেরার মুকুটও এনে দিয়েছিলেন কাতালানদের। ক্লাব ফুটবলে এমন অসাধারণ একটা মৌসুম কাটানোর পর এবার তিনি আর্জেন্টিনার জার্সি গায়েও জ্বলে উঠবেন, এমনটাই প্রত্যাশা করেছিলেন সবাই। কিন্তু বরাবরের মতো আবারও হতাশ করেছেন এই ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার। নিজেদের মাটিতে কোপা আমেরিকার প্রথম দুটি ম্যাচে একেবারেই নিষ্প্রভ হয়ে ছিলেন মেসি। গত বুধবার কলম্বিয়ার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে মাঠ ছাড়ার পর সমর্থকদের দুয়োধ্বনিও শুনতে হয়েছে এই আর্জেন্টাইন তারকাকে। এখন যে তিনি ভয়াবহ চাপের মুখে আছেন, এটা একেবারে খোলাখুলিই জানিয়ে দিয়েছেন মেসির বাবা। গতকাল আর্জেন্টিনার একটি রেডিওকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘লিও সত্যিই খুব বিপর্যসত্ম হয়ে পড়েছে। সে এখনো বুঝতে পারছে না যে এটা কীভাবে হলো। এ প্রথম তাকে দুয়োধ্বনি শুনতে হয়েছে।’ ১৮ বছর পর মেসির কাঁধে সওয়ার হয়েই শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখা শুরু করেছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু প্রথম দুই ম্যাচে একেবারেই চেনা যায়নি বার্সেলোনার জাদুকরি মেসিকে। তবে বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনার খেলার ধরন একরকম না বলেই এমনটা হচ্ছে বলে মনে করেন তাঁর বাবা। তিনি বলেছেন, ‘বার্সেলোনার ক্ষেত্রে ঘটনাটা ভিন্ন রকম। ওখানে তারা একই সঙ্গে চার বছর ধরে খেলছে। জাতীয় দলের ক্ষেত্রে তো এমনটা হয় না। আর দেশের মাটিতে কোপা আমেরিকা খেলাটাও একটা চাপের ব্যাপার।’ মেসির বার্সেলোনা সতীর্থ জাভিয়ের মাচেরানো অবশ্য শুধুই মেসির কাঁধে দোষ চাপানোটা খুবই অযৌক্তিক বলে মনে করছেন। তিনি বলেছেন, ‘এটা শুধু মেসির দোষ না। আমরা পুরো দল হিসেবেই ভালো খেলতে পারিনি। তবে খেলার পর যদি সমর্থকেরা দুয়োধ্বনি দেয়, তাহলে সেটা সহ্য করতেই হবে।’ ওয়েবসাইট।

জেনেত্তি ইন্টার মিলানে চান তেভেজকে

ক্রীড়া প্রতিবেদক \  কার্লোস তেভেজ অনেকদিন ধরেই ম্যানচেস্টার সিটি ছেড়ে দেওয়ার কথা বলে আসছিলেন। সম্প্রতি সেই কথাটা আবারও বলেছেন এই আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। এখন তেভেজকে ইন্টার মিলানে নিয়ে আসার জন্য ক্লাব কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তাঁর আর্জেন্টাইন সতীর্থ জাভিয়ের জেনেত্তি। তাড়াতাড়িই তেভেজকে দলে ভেড়ানোর ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বলে মনে করেন ইন্টার মিলানের এই অধিনায়ক। সম্প্রতি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জেনেত্তি বলেছেন, ‘আমার হাতে যদি ক্ষমতা থাকত, তাহলে আমি এখনই তেভেজকে ইন্টার মিলানে নিয়ে আসার চেষ্টা করতাম। তেভেজ এমন একজন ফুটবলার, যাকে দলে ভেড়ানোর জন্য যেকোনো দলই উদগ্রীব হয়ে থাকবে। এখন দলবদল কেবল শুরু হয়েছে। আর আশা করছি, এবার হয়তো আমরা কিছু ভালো সংবাদ পাব।’ ম্যানচেস্টার সিটিও অবশ্য খুব সহজেই হাতছাড়া করতে চাইছে না তাদের মাঝমাঠের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য এই খেলোয়াড়কে। সম্প্রতি ৫০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে তেভেজকে ছাড়তে রাজি হয়েছে ইংল্যান্ডের এই ক্লাবটি।

শ্রীলঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ পিছিয়ে গেল

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগের জনপ্রিয়তায় অনুপ্রাণিত হয়ে শ্রীলঙ্কাও ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ চালু করার উদ্যোগ নিয়েছিল। নানামুখী বাধার সম্মুখীন হওয়ায় অবশেষে পিছিয়ে গেল এই শ্রীলঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ। এ বছরের জুলাইয়ে শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখন লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগের প্রথম আসরের জন্য অপেক্ষা করতে হবে ২০১২ সালের আগস্ট পর্যন্ত। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড ও সমারসেট এন্টারটেইনমেন্টের যৌথ উদ্যোগে শুরু হওয়ার কথা ছিল এই টি-টোয়েন্টি লিগ। কিন্তু কয়েকদিন আগে দেশটির ক্রীড়া মন্ত্রণালয় লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করায় সৃষ্টি হয়েছে জটিলতা। এ ছাড়া ভারতও তাদের ১২ জন ক্রিকেটারকে শ্রীলঙ্কায় খেলার অনুমতি না দেওয়ায় কিছুটা বিপাকে পড়ে গেছে এই প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ। গতকাল বৃহস্পতিবার এক বৈঠকে আনুষ্ঠানিকভাবে এই শ্রীলঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।