আলমডাঙ্গায় যুবলীগের মোটর সাইকেল শোডাউন

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গায় মোটর সাইকেল শোডাউন করেছে যুবলীগ। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে আলমডাঙ্গা পৌর যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেনে সোনাহারের নেতৃত্বে উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন যুবলীগ নেতৃবৃন্দ এ শোডাউনে অংশগ্রহণ করে। মোটর সাইকেল শোভাযাত্রাটি শহর প্রদক্ষিণ শেষে চুয়াডাঙ্গার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। চুয়াডাঙ্গায় গিয়ে তারা জেলা যুবলীগ নেতৃবৃন্দের সাথে সাক্ষাত করেন। সেখানে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা যুবলীগের আহবায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জিল্লুর রহমান, আহবায়ক কমিটির সদস্য তপন বিশ^াস, আরিফ হোসেন, আজাদুর রহমান প্রমুখ। এদিকে আলমডাঙ্গায় মোটর সাইকেল শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা আনিসু, রায়হান, সজীব, রনি, নাগদা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবুল হাসনাত, সাধারন সম্পাদক আব্দুস সালাম, জেহালা ইউনিয়ন যুবলীগের অহবায়ক শিলন হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক বকুল, আনারুল, হিরালাল,ভাংবাড়িয়া ইউনিয়ন যুবরীগের সভাপতি মামুনÑঅর-রশিদ, সাধারন সম্পাদক আবু জাফর, বাড়াদি ইউনিয়ন যুবলীগের  সভাপদি শরীফ হোসেন, সম্পাদক  সেতু,বেলগাছি ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা শাহিনুজ্জামান শাহিন,খাদিমপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেন, গাংনি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি টোকন, সাধারন সম্পাদক ইয়ামিন হোসেন, চিৎলা ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ইমরান হোসেন, ডাউকি ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আরিফুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক রবিউল ইসলাম, কালিদাসপুর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা রাজু আহম্মেদ, কুমারী ইউনিয়ন যুবরীগের সভাপতি মোজ্জামেল হক, হারদী ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা রাজা, পান্না, আইলহাঁস ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস, সাধারন সম্পাদক বিদ্যুৎ প্রমুখ।

জেদ্দায় পৌঁছেছে বাংলাদেশ বিমানের প্রথম হজ ফ্লাইট

ঢাকা অফিস ॥ ৪১৯ হজযাত্রী নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম ফ্লাইট বিজি-৩০০১ সৌদি আরব পৌঁছেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে ফ্লাইটটি। ফ্লাইটটি জেদ্দা কিং আব্দুল আজিজ বিমানবন্দরে অবতরণের পর বাংলাদেশি হজ যাত্রীদের অভ্যর্থনা জানানো হয়। বিমানের তথ্য মতে, এবার হজ মৌসুমে শিডিউলসহ মোট ৩৬৫টি ফ্লাইটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে। অবশিষ্ট যাত্রী পরিবহন করবে সৌদি এয়ারলাইন্স। হজ মৌসুমে দুই মাস ব্যাপী ৩০৪টি ডেডিকেটেড ও ৬১টি শিডিউল ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। ৪ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত প্রি-হজে মোট ১৮৯টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে (ডেডিকেটেড ১৫৭ এবং শিডিউল ৩২)। পোস্ট হজে ১১৫টি ফ্লাইট চলবে ১৭ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ( ডেডিকেটেড ৮৬ ও শিডিউল ২৯)। তার মধ্যে বাংলাদেশ থেকে মদিনা ১৮টি ও মদিনা থেকে বাংলাদেশে ১৫টি সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। এছাড়া, চট্টগ্রামে ১৯টি ও সিলেট থেকে ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। বিমানের জনসংযোগ বিভাগ জানায়, এবছর হজযাত্রীদের ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে পরিবহনের জন্য বিমানের ৪টি নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর উড়োজাহাজ প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা রুটে চলাচলকারী বিমানের নিয়মিত শিডিউল ফ্লাইটেও হজযাত্রীরা জেদ্দায় যাবেন। ঢাকা থেকে জেদ্দা প্রতি ফ্লাইটের উড্ডয়ন সময় হবে প্রায় ৭ ঘণ্টা।

সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদের আশু রোগ মুক্তি ও সুস্থতা কামনা করছে কুষ্টিয়া জেলা জাতীয় পার্টি

৯ বছরের সফল রাষ্ট্র নায়ক ৬৮ হাজার গ্রাম বাচলে বাংলাদেশ বাঁচবে এই অঙ্গিকার নিয়ে যিনি উপজেলা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে গ্রাম বাংলার উন্নয়ন, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম, শুক্রবার ছুটির দিন ঘোষণা, মসজিদ মাদ্রাসা ও এতিম খানার পানি ও বিদ্যুৎ বিল মওকুফ, ছিন্নমূল মানুষের জন্য গুচ্ছগ্রাম নির্মান, অসহায় মানুষের জন্য ৬ টাকা কেজি চাউল পল্লি রেশনের ব্যবস্থা করে, ২৩ জেলা থেকে ৬৪ জেলাই উন্নতি করন, মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বকালের সর্ব শ্রেষ্ঠ সন্তান ঘোষনা করেন এবং তিনিই প্রথম সম্মানি ভাতা চালু করের, সংবাদ পত্রের স্বাধীনতা, এছাড়াও বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ করেছেন । বর্তমান সাবেক সেনা প্রধান,  সফল রাষ্ট্রপতি, জাতীয়পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা পল্লী বন্ধু আলহাজ্ব হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ, এমপি তিনি আজ সামরিক হাসপাতালে (আই.সি.ইউ) তে চিকিৎসাধীন আবস্থায় আছেন। সাবেক রাষ্ট্রপতির জন্য আশু রোগ মুক্তি ও সুস্থতা কামনা করে কুষ্টিয়াবাসীর নিকট দোয়া চেয়ে অনুরোধ জানিয়েছেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে – হাইকোর্ট

ঢাকা অফিস ॥ বরগুনা সদরে রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরিফকে হত্যার নায়ক নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে হাইকোর্ট। রিফাত হত্যাকা- ও নয়ন বন্ড তৈরির নেপথ্যে কারা রয়েছে তা খতিয়ে দেখার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত। রিফাত শরীফকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার অগ্রগতি বিষয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বরগুনা জেলার ডিসি ও এসপির প্রতিবেদন হাইকোর্টে জমা দেয়া হয়। প্রতিবেদন হাতে পেয়ে এ মন্তব্য করেন হাইকোর্ট। প্রতিবেদনে মামলার পাঁচ আসামি ও সন্দেহভাজন কয়েকজনসহ মোট ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে প্রতিবেদনে। প্রতিবেদনের অগ্রগতির শুনানিতে আদালত সন্তোষ প্রকাশ করেন। আদালত বলেন, বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড আদালত পছন্দ করেন না। হত্যার বিষয়টি পুলিশকে নিজের মত তদন্ত করার নির্দেশ দেন আদালত। এর আগে গত ২৭ জুন রিফাত হত্যা মামলার প্রতিবেদনের অগ্রগতি জানানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড গত ২ জুলাই ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। এর পরের দিন দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ দিনই তার বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী। এ মামলার এজাহারভুক্ত গ্রেফতাররা হলেন মামলার ২ নম্বর আসামি রিফাত ফরাজী (২৩), ৪ নম্বর আসামি চন্দন (২১), ৯ নম্বর আসামি মো. হাসান (১৯), ১১ নম্বর আসামি মো. অলিউল্লাহ অলি (২২) ও ১২ নম্বর আসামি টিকটক হৃদয় (২১)। এ ছাড়া রিফাত শরীফ হত্যাকা-ে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ভিডিও ফুটেজ ও অন্যান্য তথ্যের ভিত্ততে সন্দেহভাজন গ্রেফতাররা হলেন মো. নাজমুল হাসান (১৯), তানভীর (২২), মো. সাগর (১৯), কামরুল হাসান সাইমুন (২১) ও রাফিউল ইসলাম রাব্বি। প্রসঙ্গত, ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনা সরকারি কলেজে নিয়ে যান রিফাত। কলেজ থেকে ফেরার পথে মূল ফটকে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ দুর্বৃত্তরা রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তারা। বন্নি স্বামীকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে স্থানীয় লোকজন রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়। রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জানান, বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি সড়কের আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন বন্ড ও তার প্রতিবেশী দুলাল ফরাজীর দুই ছেলে রিফাত ফরাজী ও রিশান ফরাজী এবং রাব্বি আকন তার স্বামীর ওপর হামলা করে। তিনি বলেন, আমার সামনে ওই সন্ত্রাসীরা রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে। আমি শতচেষ্টা করেও আমার স্বামীকে বাঁচাতে পারিনি। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আয়শা আক্তার মিন্নির সঙ্গে দুই মাস আগে রিফাত শরীফের বিয়ে হয়। বুধবার রিফাত ও তার স্ত্রী মিন্নি সকাল ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা রাম দা নিয়ে রিফাতের ওপর চড়াও হয়। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ অভিযোগ করেছেন, পরিকল্পিতভাবে তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বলেন, নয়ন প্রতিনিয়ত আমার পুত্রবধূকে উত্ত্যক্ত করত এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিত। এর প্রতিবাদ করায় আমার ছেলেকে নয়ন তার দলবল নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমার একমাত্র ছেলেকে যারা দিনে-দুপুরে কুপিয়ে হত্যা করেছে, তাদের বিচার চাই। এ ঘটনায় ১২ জনকে আসামি করে আমি মামলা করেছি। পুলিশ যেন তাদের সবাইকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনে।

লন্ডনে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

তারেক রহমানের কারণেই বিএনপি’র রাজনীতি তলানিতে

ঢাকা অফিস ॥ লন্ডন সফররত তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘বিএনপি এবং তাদের রাজনীতি ধংস করার জন্য আওয়ামী লীগকে কিছুই করতে হচ্ছে না। বরং আদালতে সাজাপ্রাপ্ত, দুর্নীতির মামলায় দন্ডিত লন্ডনে বসবাসরত অপরাধী তারেক রহমানের কারনেই বিএনপি’র রাজনীতি তলানিতে।’ মন্ত্রী বুধবার সন্ধ্যায় যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ আয়োজিত লন্ডনের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, ‘বিগত সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েও বিএনপি মূলত নির্বাচন করেনি। তার কারণ হলো, আওয়ামীলীগের উন্নয়ন, সুশাসন, অর্থনৈতিক বিপ্লব, গরীব জনগণের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন। তারেক রহমান লন্ডনে বসে স্কাইপের মাধ্যমে বিএনপির রাজনীতি করেন, বক্তব্য দেন, যা বাংলাদেশের আদালত দেশে প্রচার নিষিদ্ধ করেছেন উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘অবৈধভাবে হাজার হাজার কোটি টাকার মনোনয়ন বাণিজ্য করা যার মতলব, সে কি করে দলকে ক্ষমতায় আনবে?’ হাছান মাহমুদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বিশ্বের মধ্যে ব্যতিক্রম এই কারণে যে, তিনিই প্রথম স্বামী-পরিত্যক্তা, বিধবা গরীব নারীদের ভাতা চালু করেছেন। স্বামী-পরিত্যক্তা নারীকে ভাতা দেয়া-বিশ্বের কোথাও নেই। তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন আর বিশ্বে তলাবিহীন গরীব দেশ হিসেবে শিরোনাম হয়না, হয় বিশ্বে যখন বাংলাদেশের নারীরা ফুটবলে চমক লাগিয়ে দেয়, ক্রিকেটে বিশ্বকাপে যখন অঘটন ঘটিয়ে ফেলে, তথ্যপ্রযুক্তি এবং অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে ৭ এর ঘর অতিক্রম করে -তখন শিরোনাম হয় বাংলাদেশ। আর এসবই কেবল তখনই হয়, একজন শেখ হাসিনা যখন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হন, দেশের নেতৃত্ব দেন।’ সভাশেষে লন্ডন টাইমসের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘স্মার্ট কার্ড এবং সকল নাগরিক সেবা যেভাবে ও যে পদ্ধতিতে দিলে জনগণ এবং সকলের কাছে সহজে পৌছে যায় -আওয়ামীলীগ সরকার সেভাবেই কাজ করছে।’ অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তারেক রহমান সাজাপ্রাপ্ত আসামী। তাকে বাংলাদেশে প্রত্যার্পণের ব্যাপারে ব্রিটিশ সরকার বাংলাদেশ সরকারকে সহায়তা করবে বলে আশা করি।’ যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান শরীফের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুকের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সংসদ সদস্য এডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, যুগ্ম-সম্পাদক নঈমুদ্দিন রিয়াজ প্রমুখ। উল্লেখ্য ইউরোপে এক সপ্তাহের সরকারি সফরে মন্ত্রী মঙ্গলবার লন্ডন পৌঁছান। সেখানে তিনি যুক্তরাজ্যের সিভিল সার্ভিস কলেজ ও বিবিসি’র সদর দপ্তর পরিদর্শন করেন। বিবিসি বাংলায়একটি সাক্ষাতকারও দেন। বৃহস্পতিবার তিনি যুক্তরাজ্যের চেয়ারম্যান অব পার্লামেন্টারি স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিজিটাল, কালচারাল, মিডিয়া এন্ড স্পোর্টস ডেমিয়েন কলিন্স এমপি’র সাথে বৈঠকে দু’দেশের তথ্য, গণমাধ্যম, সংস্কৃতি ও ডিজিটাল প্রযুক্তি বিষয়ক সহায়তাবৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করেন। যুক্তরাজ্য থেকে বেলজিয়াম ও ফ্রান্স সফরকালে ব্রাসেলসে বসবাসরত বাঙালি জনগোষ্ঠির সাথে সভা ও প্যারিসে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের সদস্যদের প্রশিক্ষণ পরিদর্শন করবেন হাছান মাহমুদ। সফরশেষে ৯ জুলাই মঙ্গলবার তার দেশে ফেরার কথা।

আলমডাঙ্গায় শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্র অনুষ্ঠিত

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গায় শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলমডাঙ্গা রথতলা মন্দিও প্রাঙ্গ থেকে বের করে শহরের প্রদক্ষিণ শেষে সত্য নারায়ন মন্দিও প্রাঙ্গনে পূজা আর্জনা করা হয়। রথযাত্রা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক খোন্দকার ফরহাদ আহম্মদ। সভাপতিত্ব করেন রথযাত্রা উদযাপন কমিটির সভাপতি সুশিল ভৌতিকা। বিশেষ অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিন্দ্র ণাথ দত্ত, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ডাঃ অমল বিশ^াস, জেলা রথযাত্রা উদযাপন পরিষদের উপদেষ্টা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি প্রশান্ত অধিকারী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, আওয়ামীলীগ নেতা সমীর দে, পরিমল কুমার ঘোষ, নয়ন সরকার, মহেষ ভৌতিকা,পলাশ আচার্য্য, বিদ্যুৎ সাহা, আশোক সাহা, শম্ভু দত্ত, প্রশান্ত দত্ত,হারান অধিকারী, নিমাই রায়, বিজয় সিহি, উৎপল দত্ত, মদন সাহা প্রমুখ।

গাংনীতে ওয়ার্কার্স পার্টির উদ্যোগে মানববন্ধন

গাংনী প্রতিনিধি  ॥ গ্যাসের দাম বৃদ্ধি প্রত্যাহার ও সঞ্চয়পত্রের উপর কর প্রত্যাহার এবং আলোচিত রিফাত হত্যার সাথে জড়িতদের বিচারের দাবীতে মেহেরপুরের গাংনীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কের গাংনী উপজেলা পরিষদের সামনে মানববন্ধন করা হয়। বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির গাংনী উপজেলা শাখা মানববন্ধনের আয়োজন করে। মানববন্ধনে নেতৃত্ব প্রদান করেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য কমরেড নুর আহমেদ বকুল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড আব্দুল মাবুদ। অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সংক্ষিপ্ত রাখেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য কমরেড নুর আহমেদ বকুল  ও মেহেরপুর জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড আব্দুল মাবুদ। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড মজনুল হক মজনু, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য কমরেড আবুল হাশেম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুবমৈত্রী নেতা কামরুজ্জামানসহ ওয়ার্কার্স পার্টি ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীবৃন্দ। মানববন্ধনে বক্তব্য প্রদানকালে কমরেড নুর আহমেদ বকুল বলেন- উন্নয়নের স্বার্থে বড় বাজেট হতে আপত্তি থাকেনা। যদি সেই বাজেট গরীব-মধ্যবিত্তসহ সকল জনগণের স্বার্থে হয়। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য এবারের বাজেটে পরিপূর্ণভাবে লুটেরা ও ধনি শ্রেণীর মানুষের স্বার্থে করা হয়েছে। গণশুনানীর মধ্য দিয়ে যেখানে গ্যাসের দাম না বাড়ানোর পরামর্শ ছিল। সেখানে সংসদকে পাশ কাটিয়ে হঠাৎ করে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করে জীবনযাত্রার সর্ব ক্ষেত্রে একটি নৈরাজ্য সৃষ্টি করলো। আমদানি মূল্য সমন্বয়ের নামে একদল লুটেরা ব্যবসায়ীকে লুট করার সুযোগ সৃষ্টি করা হলো। জনগণ এ ধরণের গণবিরোধী নীতি মানবে না। অবিলম্বে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি প্রত্যাহার করতে হবে। নিম্নবিত্ত-মধ্যবিত্ত যারা সঞ্চয়পত্রে তাদের বিনিয়োগ করতে সেখানে শতকরা ৫ভাগ ট্রাক্স বাড়িয়েছে। ওই সকল মানুষের নুন্যতম সুযোগ-সুবিধা টুকুও কেড়ে নেয়া হলো। এমনকি মেয়েদের ন্যাপকিন প্যাডের মূল্য বাড়িয়ে নারী স্বাস্থ্যের বিপরীতে সরকার অবস্থান নিলো। মেগা প্রজেক্ট-এর চাপ অন্যদিকে সুশাসনের অভাব। রিফাত হত্যার মতো নৃশংসা ঘটনা রাষ্ট্র ও সমাজ জীবনে তীব্র নেতিবাচক নৈরাজ্যের পরিস্থিতি তৈরী করেছে। সরকারের এ ব্যর্থতা জঙ্গি-সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে উৎসাহিত করবে।

 

দৌলতপুর কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের কমিটি গঠন

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ বাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় দৌলতপুর কিন্ডার গার্টেন স্কুলে সমাবেশের মধ্য দিয়ে এ কমিটি গঠন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের মহাসচিব হাসানুজ্জামান খসরুসহ বিভিন্ন কিন্ডার গার্টেনের পরিচালকবৃন্দ এবং সাংবাদিকগণ। সমাবেশে দৌলতপুর কিন্ডার গার্টেনের পরিচালক সাংবাদিক মো. মোশারফ হোসেন খানকে সভাপতি ও মেরিট শিশু একাডেমির পরিচালক মোতালেব হোসেনকে সাধারণ সম্পাক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশন দৌলতপুর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটি আগামী ৩ বছর তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

খোকসা প্রেসক্লাবে জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং

খোকসা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার খোকসায় দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির বিষয়ে জনগনের অবহিত ও সম্পৃত্তকরণ এর লক্ষ্যে কুষ্টিয়া জেলা তথ্য অফিসের বিশেষ প্রচার কার্যক্রম বিষয়ক খোকসা প্রেসক্লাবে প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে খোকসা প্রেসক্লাবের হল রুমে প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা সিনিয়র তথ্য অফিসর তহিদুর রহমান। সভাপতিত্ব  করেন খোকসা প্রেসক্লাবের সভাপতি মুন্সী লিটন। বক্তব্য রাখেন খোকসা প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক শেখ সাইদুল ইসলাম প্রবীন, দ্রোহ পত্রিকার সম্পাদক ও খোকসা প্রেসক্লাবের সদস্য তমা মুন্সী, খোকসা প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন কুমার, দৈনিক কুষ্টিয়ার ষ্টাফ রিপোর্টরর হুমায়ন কবির, সাংবাদিক বাদশা খান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মিলন খান, আকরাম হোসেন, সাহেদ রাজিব প্রমুখ। প্রেস ব্রিফিং-এ প্রধান অতিথি জেলা সিনিয়র তথ্য অফিসর তহিদুর রহমান  দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন।

সদরপুরে আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীদের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে উপজেলার সদরপুর ইউনিয়নের ১ ও ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সদরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু বক্কর চৌধুরির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যান রবিউল হক রবি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মাজেদুর আলম বাচ্চু, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান সাবজান, সাধারন সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান নিয়াত আলী লালু, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক রুহুল আমীন, সাংগাঠনিক সম্পাদক আব্দুল খালেক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুস সাত্তার, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক জুয়েল আহম্মেদ প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন সদরপুর ইউনিয়নের ১ ও ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে সদরপুর ইউনিয়নের পুরাতন আজমপুর বাজারে ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে অনুরূপ এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দৌলতপুর সীমান্তে ১২২বোতল ফেনসিডিল ও ৮কেজি গাঁজা উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র পৃথক অভিযানে ১২২বোতল ফেনসিডিল ও ৮কেজি গাঁজা উদ্ধার হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে মহিষকুন্ডি বিওপি’র টহল দল হাতিশালা মোড়ে অভিযান চালিয়ে ৮কেজি ভারতীয় গাঁজা উদ্ধার করেছে। অপরদিকে জামালপুর বিওপি’র টহল দল বুধবার রাত ১০টার দিকে জামালপুর পশ্চিম মাঠে অভিযান চালিয়ে ১২২বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে। তবে বিজিবি’র এসব মাদক বিরোধী অভিযানে কোন মাদক ব্যবসায়ী বা পাচারকারী আটক হয়নি।

কুষ্টিয়ায় চাঞ্চল্যকর মাদক মামলায় তিন পরিবহণ শ্রমিকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় তিন পরিবহণ শ্রমিকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও প্রত্যেকের ১লক্ষ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল বৃহষ্পতিবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী জনাকীর্ণ আদালতে আসামীদের উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষনা করেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ফকিরাবাদ দত্তপাড়া গ্রামের হামিদ আলী মন্ডলের পূত্র বাস চালক ঠান্ডু মন্ডল(৪০), খেজুরতলা ওয়াবদা মোড় গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে বাসের হেলপার মো: সাগর (৩৫) এবং মিরপুর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত: পটল ওরফে নবিন প্রমানিকের ছেলে বাসের সুপারভাইজার সোহেল রানা (৩২)।  আদালত সূত্রে জানায়, ২০১৭ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর র‌্যাব কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা থেকে ছেড়ে আসা কুষ্টিয়াগামী যাত্রীবাহি বাস ‘বিবিএস এক্সক্লুসিভ মাহদী’ (কুষ্টিয়া-জ-১১-০০১১) থেকে কুষ্টিয়া কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে ৫০০ গ্রাম ওজনের দুইটি প্যাকেটে মোট ১কেজি হিরোইন হস্তান্তরের সময় ওই যাত্রীবাহি বাসের ড্রাইভার, হেলপার ও সুপারভাইজারসহ তিন জনকে আটক ও হিরোইন উদ্ধার করেন। পরে আটককৃত ৩ বাস শ্রমিকের বিরুদ্ধের‌্যাবের ডিএডি আব্দুর রশিদ বাদি হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় সোপর্দ করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ২৩ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। কুষ্টিয়া জজ কোর্টের সকরারী কৌশুলী এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী জানান, কুষ্টিয়া মডেল থানায় দায়েরকৃত চাঞ্চল্যকর এই মামলাটি আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন পূর্বক দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী করে আসামীর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমানিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত এই রায় ঘোষনা করেন। মামলার বিবাদী পক্ষের কৌশুলী এ্যাড. সুব্রত কুমার বলেন- বিজ্ঞ আদালত মামলাটির রাষ্ট্র পক্ষের স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে যে রায় দিয়েছেন সেখানে আসামীদের ন্যায় বিচার প্রার্থনার দৃশ্যত: সুযোগ রয়েছে। মহামান্য উচ্চ আদালতে সেসব বিষয়গুলি তুলে ধরে আপিল করব এবং ন্যায় বিচার পাব। উল্লেখ্য ঘটনার সময় র‌্যাব হিরোইনের প্রকৃত মালিককে না ধরে বহনের দায়ে ওই যাত্রীবাহী বাসসহ পরিবহণ শ্রমিকদের আটকের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে কুষ্টিয়া জেলা বাস মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নের ডাকে অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট পালনে নামলে পরে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের আশ^াসের ভিত্তিতে মালিক শ্রমিক আহুত পরিবহণ ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছিলো।

 

রবীন্দ্র মৈত্রী বিশবিদ্যালয়ে সিন্ডিকেটের ৩য় সভা অনুষ্ঠিত

নিজ সংবাদ ॥ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত কুষ্টিয়াতে প্রতিষ্ঠিত রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ^বিদ্যালয়ে সিন্ডিকেটের ৩য় সভা গতকাল ৪ জুলাই ২০১৯ তারিখ বেলা সাড়ে ৩ টায় বিশ^বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়। বিশ^বিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহজাহান আলীর সভাপতিত্বে এবং রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) ড. ইসমত আরার সঞ্চালনায় সিন্ডিকেট সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ^বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার অন্যতম রূপকার, জাতীয় সংসদে তথ্য মণন্ত্রালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু এম.পি। সরকার মনোনীত  সদস্য, বিশিষ্ট লেখক, কলামিস্ট, গবেষক, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো: হারুন-উর-রশিদ আসকারী। আরোও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহুরুল ইসলাম, বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর সদস্য সচিব মুহা. শামসুর রহমান বাবু, রমৈবি এর ইংরেজি বিভাগের প্রধান প্রফেসর মো: ইকবাল হোসেন প্রমুখ। সিন্ডিকেট সভায় গত ২ মার্চ ২০১৯ ইং তারিখে অনুষ্ঠিত অর্থ কমিটির সভার সুপারিশ এবং গত ৩ জুলাই ২০১৯ ইং তারিখে অনুষ্ঠিত একাডেমিক কাউন্সিলের ১ম সভার সুপারিশসমূহ অনুমোদন দেওয়া এছাড়া শিক্ষক-কর্মকর্তা কর্মচারীর জন্য ছুটি বিধি বিশ^বিদ্যালয়ের অর্গানোগ্রাম, শিক্ষার্থীদের আচরণ বিধি এবং পরীক্ষার শৃঙ্খলা বিধি অনুমোদন দেয়া হয়। বিশ^বিদ্যালয়ের প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়নে এই সিন্ডিকেট সভা গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বলে রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অভিমত প্রকাশ করেন এবং সবাইকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

কুষ্টিয়া পূর্ব মজমপুর এলাকার রাস্তা ও ড্রেনের সমস্যা নিয়ে মেয়রের সাথে এলাকাবাসীর মতবিনিময়

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া পূর্বমজমপুর এলাকার রাস্তা ও ড্রেনসহ বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলীর সাথে মতবিনিময় করেছেন ১৮নং ওয়ার্ডের পূর্ব মজমপুবাসী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে পৌর মেয়র কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে মোঃ রাশিদুজ্জামান খান টুটুল পূর্ব মজমপুর এলাকার খন্দকার পাড়াসহ পূর্ব মজমপুরের বিভিন্ন রাস্তা ও ড্রেনের বেহাল দশার চিত্র তুলে ধরেন। এসময় মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, পূর্ব মজমপুর এলাকার রাস্তাও ড্রেনের সার্বিক পরিস্থিতি আমার জানা আছে। কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ সড়কে মূল ড্রেনের নির্মাণ কাজ চলছে। এ ড্রেনের নির্মাণ কাজ শেষ হলে সাইড ড্রেন ও রাস্তা নির্মাণের চেষ্টা করা হবে। তিনি বলেন, পর্যায়ক্রমে পূর্ব মজমপুর এলাকার রাস্তা ও ড্রেনের সমস্যার সমাধান হবে। মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন সরফরাজ উদ্দিন মজু, খন্দকার আজিজ, কারি, রাজিয়া, নীলা, চারমিন, রিক্তা, আবির, মিশর, আজমা, তুলি ও সাকিবসহ প্রায় অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ।

কুষ্টিয়ায় শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব পালিত

সুজন কর্মকার ॥ কুষ্টিয়ায় শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে কুষ্টিয়া শহরস্থ শ্রীশ্রী গোপীনাথ জিউর মন্দির প্রাঙ্গন থেকে রথযাত্রা উৎসব শুরু করা হয়। শতশত ভক্তবৃন্দের উপস্থিতিতে রথটি টেনে বড় বাজার সার্বজনীন পূজা মন্দির প্রাঙ্গনে নেয়া হয়। রথযাত্রা উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়ার জেলা ও দায়রা জজ অরূপ কুমার গোস্বামী। শ্রীশ্রী গোপীনাথ জিউর মন্দির কমিটির সভাপতি (পি.পি) এ্যাডঃ অনুপ কুমার নন্দীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন জেলা ও দায়রা জজ অরূপ কুমার গোস্বামীর সহ-ধর্মিনী শুক্লা গোস্বামী, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি নরেন্দ্রনাথ সাহা, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ রমেশ চন্দ্র দত্ত, সদর উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নিলয় কুমার সরকার, জেলা আওয়ামীলীগের মহিলা সম্পাদক এ্যাডঃ শীলা বসু (এজিপি), কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য সুজন কুমার কর্মকার  সহ বিচারকমন্ডলী, পূজা উদ্যাপন পরিষদ, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও বিভিন্ন মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং শতশত ভক্তবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এ উপলক্ষ্যে কুষ্টিয়া শহরের এনএস রোডে বসেছিলো এক লম্বা মেলা। মেলায় বিভিন্ন মুখরোচক খাবার সামগ্রী ছাড়াও বিভিন্ন পসরার সমাহার ঘটে। শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষ্যে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা লক্ষ্য করা গেছে।

বিএসআরএফ’র সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে ওবায়দুল কাদের

স্বাধীনতাবিরোধী পরিবারের কেউ আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যুদ্ধাপরাধী, সাম্প্রদায়িক শক্তি ও স্বাধীনতাবিরোধী পরিবারের কেউ আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না। গতকাল বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে সচিবালয় বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ)’ নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির নেতাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধী পরিবার হলে সেখানে আমরা সদস্য সংগ্রহ করি না। তারা সদস্য পদ নিতে পারেন না। সদস্য সংগ্রহ অভিযানের যে নীতিমালা, সেখানে স্পষ্ট করে বলা আছে। আমি নতুন করে কোনো বক্তব্য রাখতে পারি না। এটা আমাদের পুরনো স্ট্যান্ড এবং এই স্ট্যান্ডে আমরা অটল।’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সাম্প্রদায়িক শক্তি, স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধের বিরুদ্ধে থাকা পরিবারের কেউ যদি আমাদের দলে আসতে চায়, আমাদের তো প্রশ্ন থাকবেই। এখানে আদর্শ ও মূল্যবোধের প্রশ্ন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রশ্ন, এখানে আমরা আপস করতে পারি না। তিনি বলেন, নতুন যে সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে, এর মাধ্যমে স্বাধীনতাবিরোধী কেউ আসতে পারবে না। মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতাবিরোধী এবং যুদ্ধাপরাধী- এই শক্তিগুলোর সঙ্গে কোনো অবস্থাতেই আওয়ামী লীগ আপস করবে না। বিএনপি-জামায়াতের ঘরের কেউ যদি আওয়ামী লীগে আসতে চায়, সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের অবস্থান কী- জানতে চাইলে কাদের বলেন, বিএনপির ব্যাপারটা নতুন সদস্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে দলের অবস্থান নীতিগতভাবে চিন্তা-ভাবনা করে আমরা ঠিক করি। আমাদের দলের যে আদর্শ, যে চিন্তা-ভাবনা, অন্য কোনো দল থেকে বিশেষ করে সাম্প্রদায়িতক যে বিষয়টা, এটাকে আমরা সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেই। কাজেই সাম্প্রদায়িকতার মধ্যে যারা আছে, সাম্প্রদায়িকতার দৃষ্টিকোণ থেকে আমরা যাদের দেখি, তারা জামায়াত হোক বিএনপি হোক, আমরা একইভাবে দেখি। অনুষ্ঠানে বিএসআরএফের সভাপতি তপন বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদসহ কার্যনির্বাহী কমিটির নেতৃবৃন্দ ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

লাইফ সাপোর্টে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ

ঢাকা অফিস ॥ রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। গণমাধ্যমকে বিষয়টি জানিয়েছেন জাপার সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু। তিনি বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) বিকেল সোয়া ৪টায় এরশাদকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। এদিকে এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেছেন তার স্ত্রী জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান এবং বিরোধীদলীয় উপনেতা বেগম রওশন এরশাদ। গতকাল বেলা আড়াইটায় জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি এবং জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান এবং বিরোধীদলীয় উপনেতা বেগম রওশন এরশাদ এমপি সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের আইসিইউতে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে দেখতে যান। এ সময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, সুনীল শুভরায়, মেজর (অব.) খালেদ আকতার, আলমগীর সিকদার লোটন, যুগ্ম মহাসচিব এসএম ইয়াসিরসহ জাতীয় পার্টির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের আইসিইউ থেকে বের হয়ে বেগম রওশন এরশাদ হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেন। শুক্রবার দেশের সব মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ ধর্মীয় উপসনালয়ে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রোগমুক্তি এবং সুস্থতা কামনায় দোয়া করতে অনুরোধ জানিয়েছেন বেগম রওশন এরশাদ। এর আগে জানা যায়, রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত, বিদেশে নেয়ার অবস্থা নেই। তবে উন্নতির আশা রয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ভাই ও পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের। এরশাদের শারীরিক সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার জাতীয় পার্টির বনানী অফিসে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা নিয়ে ব্রিফ করেন তার ভাই ও পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তিনি বলেন, এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত, বিদেশে নেয়ার অবস্থা নেই। তবে উন্নতির আশা করছেন চিকিৎসকরা। প্রসঙ্গত, গত ২২ জুন বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসভবনে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত সিএমএইচে নেয়া হয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে এরশাদের রক্তে হিমোগে¬াবিনের সমস্যা ধরা পড়ে। দুই দফায় সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নিয়ে এলেও তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। এই দফায় সিএমএইচে ভর্তি হলে এরশাদের ফুসফুস ও কিডনিতে সংক্রমণ ধরা পড়ে।

 

ভেড়ামারা কলেজে নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

আল-মাহাদী ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা কলেজের আয়োজনে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষ একাদশ শ্রেণি ও ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষ স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ শামছুল বারী’র সভাপতিত্বে ভেড়ামারা উপজেলা অডিটোরিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি ও তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সোহেল মারুফ, ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা মোঃ খবীর আহমেদ, ওসি (তদন্ত) আন-নূর-জায়েদ, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলীম স্বপন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফারুক আহমেদ ও কলেজ গভর্নিং বডির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। এসময় বক্তব্য রাখেন, প্রভাষক আনিসুর রহমান ও বর্তমান ও নবীন কয়েকজন শিক্ষার্থী। আলোচনা শেষে কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ট্রেনে হামলায় ৯ জনের ফাঁসির রায়ে জাতি বিস্মিত – ফখরুল

ঢাকা অফিস ॥ ২৫ বছর আগে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলির ঘটনায় ৯ জনকে ফাঁসির আদেশে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, ‘পাবনায় ট্রেনে হামলার ঘটনায় যে রায় দেয়া হয়েছে, এতে গোটা জাতি বিস্মিত হয়েছে। ১৯৯৪ সালে ট্রেনে দুটি গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। কে ছুড়েছে, কয়টি ছুড়েছে তার কোনো প্রমাণাদি নেই। অথচ এ মামলায় ৯ জনকে ফাঁসি ও ২৫ জনকে যাবজ্জীবন দেয়া হয়েছে। এ রায়ে আমরা শুধু হতাশ নই, বিক্ষুব্ধ।’ গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এক চিকিৎসক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, ট্রেনে হামলার ঘটনায় বিএনপি নেতাদের সাজা দেয়া হয়েছে। কিন্তু ওই দিন আওয়ামী লীগের দুপক্ষের গোলাগুলির ঘটনায় ট্রেনে এ গুলি লাগে। এ রায়ের মাধ্যমে আরেকবার প্রমাণিত হয়েছে- এ দেশে স্বাধীন বিচারব্যবস্থা নেই।

দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, এ ধরনের মামলায় সবাই জামিন পান; শুধু খালেদা জিয়া জামিন পান না। এ ধরনের মামলায় জামিন পাওয়ার উদাহরণ আমাদের সামনেই আছে। ব্যারিস্টার মঈনুল হক জামিন পেয়েছেন। মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া জামিন পেয়েছেন। তাই আমরা খালেদা জিয়ার আশু মুক্তি দাবি করছি। খালেদা জিয়ার সংগ্রামী জীবন নিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়া প্রতিটি সময়ে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করেছেন। এখনও তিনি তা করে যাচ্ছেন। এখন যে কারাগারে আছেন, এটিও জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য। এ দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রামে তার অবদান অতুলনীয়। ড্যাবের আহ্বায়ক প্রফেসর ডা. ফরহাদ হালিম ডোনারের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, ড্যাবের নবনির্বাচিত সভাপতি হারুন আল রশীদ, মহাসচিব ডা. আবদুস সালাম প্রমুখ।

দৌলতপুরে মৎস্য সপ্তাহ পালনের প্রস্তুতি সভা

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে মৎস্য সপ্তাহ পালনের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে এ প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন, দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন। দৌলতপুর মৎস্য অফিসার মো. শহিদুর রহমানের সার্বিক তত্বাবধান ও সঞ্চালনে মৎস্য সপ্তাহ পালনের প্রস্তুতি সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অরবিন্দু কুমার পাল, দৌলতপুর প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. কাজী নজরুল ইসলাম, দৌলতপুর কৃষি অফিসার একেএম কামরুজ্জামান, দৌলতপর থানার উপ-পরিদর্শক উজ্বল হোসেন, দৌলতখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মজিবর রহমান ও প্রভাষক শরীফুল ইসলামসহ উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও আমন্ত্রিত সুধীজন। সভায় দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার আগামী ১৮ জুলাই মৎস্য সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে মৎস্য সপ্তাহ পালনে সকলের সহযোগিতা কামনা করে প্রস্তুতি সভা শেষ করেন।

শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে চীনের প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রতি

দ্রুত রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারকে সম্মত করার চেষ্টা করবে চীন

ঢাকা অফিস ॥ রোহিঙ্গাদের নিজ ভূমিতে ফিরতে পারার মতো পরিবেশ তৈরিতে মিয়ানমারকে রাজি করানোর জন্য পদক্ষেপ নেওয়ার প্রতিশ্র“তি দিয়েছেন চীনের প্রধানমন্ত্রী লি খ্য ছিয়াং। গতকাল বৃহস্পতিবার চীনের রাজধানী বেইজিংয়ের গ্রেট হল অব দ্য পিপলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে তিনি এই প্রতিশ্র“তি দেন। বৈঠকের পর পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের বলেন, “রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরানোর বিষয় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য ওই এলাকার শান্তি ও স্থিতিশীলতা বিঘিœত হচ্ছে। শান্তি ও স্থিতিশীলতা ফেরানোর জন্য এটা খুবই দরকার। যত দিন যাবে ততই এই চ্যালেঞ্জটা বড় হবে। সুতরাং এটার দ্রুত একটা সমাধান করা দরকার। আর সমাধান হল- এরা যেন তাদের নিজস্ব মাতৃভূমিতে ফিরে যেতে পারে। চীনের প্রধানমন্ত্রীও এ বিষয়ে একমত যে, ফিরে যাওয়ার মধ্য দিয়েই এ সমস্যার সমাধান হবে।” রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের উদ্যোগগুলো বৈঠকে তুলে ধরেন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, “এর আগে আমরা দ্বিপাক্ষিক চুক্তি করেছি। আমরা সব ধরনের চেষ্টা করেছি। কিন্তু মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা যেতে চায় না। কারণ তারা মনে করে যে, ওইখানে তাদের ভয় আছে।” পররাষ্ট্র সচিব বলেন, “উনি (শেখ হাসিনা) মিয়ানমারে একটা অনুকূল পরিবেশ গড়ে তোলার ব্যাপারে চাইনিজদের ভূমিকার কথা বলেছেন। যাতে তারা নিরাপত্তা, মর্যাদা ও নাগরিকত্ব এই তিনটা জিনিস পায় এবং নিজ ভূমি ও সম্পত্তিতে প্রবেশ করতে পারে।” রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ায় শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান লি খ্য ছিয়াং। শহীদুল হক বলেন, “চীনের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যে, উনারা বুঝতে পারেন যে এটা বাংলাদেশের জন্য একটা বড় চ্যালেঞ্জ। কিন্তু এটা যে একটা বড় সমস্যা তাতে কোনও সন্দেহ নেই। তারা মনে করেন, মিয়ানমার ও বাংলাদেশ মিলেই এটার সমাধান করতে হবে। এ ব্যাপারে চাইনিজরা আগেও হেল্প করেছেন। উনারা বলেছেন, বাংলাদেশ ও মিয়ানমার দুজনেই চীনের বন্ধু। সুতরাং দুই দেশ মিলেই যেন এ সমস্যার সমাধান করে, চেষ্টা করে, ডায়ালগ করে এবং সমাধান খুঁজে পায়। তারা বলেছেন, তারা চেষ্টা করবেন যে, দুই দেশ আলোচনার মাধ্যমেই যেন এই সমস্যার সমাধান খুঁজে পায় এবং চায়না মিয়ানমারকে ওই ব্যাপারে রাজি করানোর চেষ্টা করবে।” বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টা থেকে বেইজিংয়ের গ্রেট হল অব দ্য পিপলে প্রায় আধা ঘণ্টা এ বৈঠক চলে। বৈঠকের পর দুই প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে দুদেশের মধ্যে নয়টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকে সই হয়। বেলা পৌনে ১১ টার দিকে শেখ হাসিনা গ্রেট হল অব দ্য পিপলে পৌঁছালে তাকে স্বাগত জানান লি খ্য ছিয়াং। গ্রেট হলের সামনে তিয়েনআনমেন স্কয়ারে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এরপর সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার দেয়। তোপধ্বনির পর সুসজ্জিত একটি বাদক দল দুই দেশের জাতীয় সংগীত বাজিয়ে শোনায়। অভ্যর্থনার আনুষ্ঠানিকতা শেষে শুরু হয় বৈঠক। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, “পুনরায় নির্বাচিত হওয়ায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে চীনের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশ চায়নার পার্টনার। চায়না বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে মূল্য দেয়। আমরা এই সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে চাই।এখন আমাদের (চীন) সাথে বাংলাদেশের স্ট্র্যাটেজিক সম্পর্ক আছে। এটা আরও গভীর হবে, শক্তিশালী হবে বলে তারা আশা করে। তারা মনে করে যে, বাংলাদেশে যে উন্নয়ন হয়েছে এটা অব্যাহত থাকবে এবং এ ব্যাপারে তারা বাংলাদেশকে সহায়তা করবে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যে, আমরা শান্তি, স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নকে গুরুত্ব দিই। মানুষের কল্যাণে যাতে শান্তিপূর্ণ উন্নয়ন বিঘ্নিত না হয় তার জন্য আমরা একসঙ্গে কাজ করে যাব। আমাদের বিনিময় করার মতো অনেক কিছু আছে।” দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে রোহিঙ্গা সংকটসহ পাঁচটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব। অন্য বিষয়গুলো হচ্ছে- অর্থ ও বাণিজ্য, প্রকল্প বাস্তবায়নের অগ্রগতি পর্যালোচনা, বিসিআইএম বা কানেকটিভিটি ও ভিসা। গতবছর বাংলাদেশ ও চীনের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ১৬ শতাংশ বেড়েছে, যার বেশিরভাগই চীনের পক্ষে। “বৈঠকে শেখ হাসিনা বলেছেন, যেহেতু বাণিজ্য চায়নার পক্ষে, সেক্ষেত্রে এই অসমতা চিহ্নিত করতে হবে। চায়নারা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে কারখানা ও শিল্প গড়ে তুলতে পারে। এ বিষয়ে চীনের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমরা ভারসাম্যপূর্ণ বাণিজ্য সম্পর্ক চাই। বাণিজ্য ভারসাম্য তৈরির জন্য কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন উনি।” চীনে ৯৭ শতাংশ বাংলাদেশি পণ্য শুল্কমুক্ত সুবিধা পায়। বাণিজ্য সমতা ফেরানোর জন্য এখন বাংলাদেশের ৩ শতাংশ পণ্যের ওপর যে করারোপ করা আছে সেটা দূর করতেও দেশটির প্রধানমন্ত্রী চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন। পররাষ্ট্র সচিব বলেন, “চীনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আমরা একটা ভারসাম্যপূর্ণ বাণিজ্য সম্পর্ক চাই। একথা আগে তারা বলেনি।”  চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিন পিংয়ের বাংলাদেশ সফরের সময় যেসব সমঝোতা স্মারক সই হয়েছিল তার বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করা ও শর্তাবলী শিথিল করার কথা বলেছেন শেখ হাসিনা। “চীনের প্রধানমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন যে, উনি এ জিনিসটা দেখবেন।” শহীদুল হক বলেন, “ডেল্টা পরিকল্পনা বাস্তবায়নে চায়নার সহায়তার কথা বলেছেন। একইসঙ্গে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার বিষয়েও চীনের অব্যাহত সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় বাংলাদেশ জলবায়ু অভিযোজন কেন্দ্র করার উদ্যোগ নিয়েছে। এ বিষয়ে চায়নার সহায়তা চেয়েছেন।” ‘তিস্তা রিভার কমপ্রিহেনসিভ ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড রিস্টোরেশন’ প্রকল্প বাস্তবায়ন এবং ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার পর্যন্ত হাই স্পিড ট্রেন চালুর বিষয়েও শেখ হাসিনা চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন বলে জানান শহীদুল হক। চীনারা বাংলাদেশে অন অ্যারাইভাল ভিসা পেলেও বাংলাদেশিরা চীনে তা পায় না। তাই ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীরাদের অন অ্যারাইভাল ভিসা দেওয়ার অনুরোধ করেছেন শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ, চীন, ভারত, মিয়ানমার কানেকটিভিটি করিডোর নিয়েও দুই প্রধানমন্ত্রী আলোচনা করেছেন বলে জানান শহীদুল হক। “দুই প্রধানমন্ত্রী বিসিআইমের গুরুত্ব, আঞ্চলিক যোগাযোগ ও বাজার সম্প্রসারণের যে সম্ভাবনা আছে সেটা তুলে ধরেছেন এবং বিসিআইএম দ্রুত বাস্তবায়নে দুই দেশই সম্মত হয়েছে।” গ্রেট হলে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন তার মেয়ে বাংলাদেশের অটিজম বিষয়ক জাতীয় উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারপারসন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন। এছাড়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, প্রধানমন্ত্রীর শিল্প ও বেসরকারি খাত উন্নয়ন বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে।