বায়ু দূষণ রোধে চাই আইনের যথাযথ প্রয়োগ এবং কার্যকর জবাবদিহিতা নিশ্চিতে সনাক কুষ্টিয়ার মানববন্ধন 

টিআইবি দেশব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে বায়ু দূষণ রোধে নাগরিকদের সচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি এ খাতসমূহে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, নাগরিক অংশগ্রহণ এবং শুদ্ধাচার নিশ্চিত করাসহ ১১ দফা দাবি জানিয়েছে সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) কুষ্টিয়া। বিশ^ পরিবেশ দিবস ২০১৯ উদযাপনের অংশ হিসেবে কুষ্টিয়া শহরের চার রাস্তার মোড়ে আয়োজিত মানববন্ধনে এসব দাবি তুলে ধরে সনাক ও টিআইবি। ১৯৭৪ সাল থেকে প্রতি বছর ৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালন করা হয়। তবে এ বছর ঐ সময়ে ঈদুল ফিতরের ছুটি থাকায় বাংলাদেশ সরকার ২০ জুন তারিখে দিবসটি উদযাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। উল্লেখ্য, বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০১৯ এর মূল প্রতিপাদ্য হলো ‘‘বায়ু দূষণ” এবং শ্লোগান হলো ‘‘আসুন বায়ু দূষণ রোধ করি”। জাতিসংঘ ঘোষিত ‘‘টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা’’র অভীষ্ট ৩ এর লক্ষ্যমাত্রা ৩.৯ এ বায়ু দূষণ রোধের মাধ্যমে স্বাস্থ্য ঝুঁকি কমানো এবং অভীষ্ট ১১ এর লক্ষ্যমাত্রা ১১.৬ এর মাধ্যমে বায়ুর গুণগত মান নিশ্চিত করে নগরসমূহে পরিবেশের ওপর নেতিবাচক প্রভাব কমিয়ে আনার গুরুত্ব প্রদান করা হয়েছে। উপস্থিত বক্তারা বলেন, সাম্প্রতিক সময়ের বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত থেকে দেখা যায় যে, বিশ্বের অনেক অংশে বায়ুমানের মাত্রা হ্রাস পাচ্ছে, বিশেষত নিম্ন এবং মধ্যম আয়ের দেশগুলোতে এই চিত্র আশঙ্কাজনক। অপরিকল্পিত শিল্পায়ন, আইনের যথাযথ প্রয়োগ না থাকা এবং সচেতনতার অভাব অনিয়ন্ত্রিত বায়ু দূষণের অন্যতম কারণ। যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক হেলথ ইফেক্ট ইন্সটিটিউট (এইচইআই) পরিচালিত ‘দ্যা স্টেট অফ গ্লোবাল এয়ার ২০১৯’ গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী, বায়ু দূষণ বিশ্বব্যাপী মানুষের জীবন প্রত্যাশা গড়ে ১ বছর ৮ মাস হ্রাস করেছে। উল্লেখ্য, বায়ু দূষণ বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ঝুঁকির পঞ্চম প্রধান কারণ এবং বায়ু দূষণের কারণে প্রতিবন্ধিতা, আগাম মৃত্যু, শ্বাসযন্ত্রের রোগ, হৃদরোগ, স্ট্রোক, ফুসফুস ক্যান্সার, ডায়াবেটিস এবং নিউমোনিয়ার মতো সংক্রামক রোগ বৃদ্ধি পাচ্ছে।’ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তথ্যানুসারে, বাংলাদেশ সহ নিম্ন এবং মধ্যম আয়ের দেশগুলোর প্রায় ৯৮ শতাংশ শহর বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার বায়ু গুণমানের নির্দেশিকা পূরণ করে না। এনভায়রনমেন্টাল পারফরমেন্স ইনডেক্স (ইপিআই)-২০১৮ অনুযায়ী, ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৭৯তম, অর্থাৎ পরিবেশ দূষণ রোধে ব্যর্থ দেশগুলোর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। ‘বাংলাদেশ পরিবেশ সমীক্ষা-২০১৭’ অনুযায়ী, ‘‘বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি মাত্রার বায়ু দূষণের উৎস ইটভাটা (৩৮%), এছাড়াও পরিবহণ (১৯%) এবং অনিয়ন্ত্রিত অবকাঠামো নির্মাণের ধূলিকণা (১৮%) অন্যতম”। প্রাকৃতিক পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য কমপক্ষে ২৫ শতাংশ বনভূমির প্রয়োজন হলেও বাস্তবে বাংলাদেশ বিশ্বের সবচেয়ে কম বনভূমি পরিবেষ্টিত দেশগুলোর মধ্যে একটি, যেখানে বনভূমির হার মাত্র ৬.৭%। টিআইবি এর এরিয়া ম্যানেজার মো. আরিফুল ইসলামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), কুষ্টিয়ার সভাপতি নজরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি হালিমা খাতুন, সদস্য মো: রফিকুল আলম টুকু, মো: খলিলুর রহমান মজু, আক্তারী সুলতানা, সমাজকর্মী কারসেদ আলম। উপস্থিত ছিলেন সনাক, স্বজন, ইয়েস, ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্য, টিআইবি’র কর্মীবৃন্দ, শিক্ষার্থী, সাংবাদিকবৃন্দ, বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিগণ এবং নানা শ্রেণী পেশার মানুষ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

কুষ্টিয়া সদর থানা ও শহর কৃষক দলের কমিটি গঠন

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী কৃষকদল কুষ্টিয়া সদর থানা ও শহর কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জেলা বিএনপির কার্যালয়ে কেন্দ্রিয় কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ এ কমিটি গঠন করা হয়। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য কেন্দ্রিয় কৃষকদলের যুগ্ম আহবায়ক ও জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন জেলা কৃষকদলের আহবায়ক এসএম গোলাম কবির এ কমিটি অনুমোদন দেন। এ সময় সদর থানা বিএনপির সভাপতি বশিরুল আলম চাঁদ, শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক একে বিশ^াস বাবুসহ জেলা, থানা ও শহর বিএনপির অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। কৃষকদল কুষ্টিয়া সদর থানায় মিজানুর রহমান মিজানকে সভাপতি,  ফরিদ আহম্মেদকে সিনিয়র সহ-সভাপতি, মোকারম হোসেন মোকাকে সাধারণ সম্পাদক, শরিফুল ইসলাম সবুজকে সিনিয়র সহ-সাধারণ সম্পাদক ও ইশারত আলী মোল্লাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়েছে। অন্যদিকে কৃষকদল কুষ্টিয়া শহর শাখায় বাবলা আমিন চৌধুরীকে সভাপতি, এসএম আনোয়ার উদ্দিন লাল্টুকে সিনিয়র সহ-সভাপতি, শফিকুল ইসলাম স্বাধীনকে সাধারণ সম্পাদক, আসাদুজ্জামান মিলনকে সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ও কোকন মুন্সিকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

কালুখালীতে নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলিউজ্জামান চৌধুরী (টিটো’র) সাথে সাংবাদিকদের শুভেচ্ছা বিনিময়

ফজলুল হক ॥ কালুখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলিউজ্জামান চৌধুরীকে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান করেছেন কালুখালী প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ। সকাল ১০টায় চেয়ারম্যানের নিজ বাসভবনে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে প্রেসক্লাবের সভাপতি দৈনিক যায়যায়দিনের কালুখালী উপজেলা প্রতিনিধি মুহাম্মদ ফজলুল হক, সাধারণ সম্পাদক দৈনিক নয়াদিগন্তের কালুখালী উপজেলা প্রতিনিধি মোখলেছুর রহমান, দৈনিক বাংলাদেশের খবরের কালুখালী উপজেলা প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম, কালুখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য খায়রুল ইসলাম খায়ের, কালিকাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আতিউর রহমান নবাব, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মনিরুজ্জামান চৌধুরী (মবি), যুগ্ম আহবায়ক সোহেল আলী মোল্লা, ইউপি সদস্য ইউসুফ হোসেন, সাংবাদিক রাশেদুল হক, হাসমত আলী ও কবি টিটু খানসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়: রইল বাকি ৪

ঢাকা অফিস ॥ আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী রোরি স্টুয়ার্ট ছিটকে পড়ায় যুক্তরাজ্যের কনজারভেটিভ পার্টির প্রধান হওয়ার দৌড়ে প্রতিদ্বন্দ্বির সংখ্যা ৪ এ এসে ঠেকেছে। ক্ষমতাসীন এ দলটির নতুন শীর্ষ নেতাই প্রধানমন্ত্রী পদে টেরিজা মে-র স্থলাভিষিক্ত হবেন। বুধবার টোরি সাংসদদের মধ্যে তৃতীয় রাউন্ডের ভোটে ২৭ জনের সমর্থন পেয়ে রোরি পঞ্চম হন। আগের দফার চেয়ে এবার তিনি ১০ ভোট কম পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার চতুর্থ রাউন্ডের ভোট হওয়ার কথা; ওই রাউন্ডে কেবল একজন বাদ পড়লে শীর্ষ দুই প্রতিদ্বন্দ্বী বেছে নিতে সন্ধ্যায় পঞ্চম রাউন্ডের ভোটও মাঠে গড়াবে বলে জানিয়েছে বিবিসি। কনজারভেটিভ পার্টির এ নেতৃত্ব দৌড়ে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন এখনও অনেক এগিয়ে। তৃতীয় রাউন্ডের ভোটে তিনি মোট ১৪৩টি ভোট পেয়েছেন, যার আগের আগের দফার চেয়েও ১৭টি বেশি। ৫৪ ভোট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন জেরমি হান্ট; ৫১ ভোট নিয়ে তার ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন মাইকেল গোভ। আপাতত টিকে থাকা সাজিদ জাভিদ ব্যাগে পুরেছেন ৩৮ জনের সমর্থন। প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে বাদ পড়ার পর হতাশা লুকাননি রোরি। বলেছেন, চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট নিয়ে তার আশঙ্কা ‘সম্ভবত সত্য বলেই প্রমাণিত হবে’; কিন্তু মানুষ এখনও তা শুনতে প্রস্তুত নয়। মঙ্গলবার বিবিসিতে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে অনুষ্ঠিত বিতর্ক প্রতিযোগিতায় ভালো না করায় এ আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রীর সমর্থন কমে যায় বলে ধারণা করা হচ্ছে। লাইভ ওই বিতর্কে নিজের উপস্থাপনাকে নিজেই ‘নি®প্রভ’ অ্যাখ্যা দিয়েছিলেন রোরি। নির্দিষ্ট প্রতিদ্বন্দ্বীকে ছেঁটে ফেলতে অনেকে তাদের বাড়তি ভোট তুলনামূলক দুর্বল প্রার্থীকে ধার দিচ্ছে বলেও বাদ পড়ার পর অভিযোগ করেন পেনরিথ অ্যান্ড দ্য বর্ডারের এ টোরি সাংসদ। দ্বিতীয় রাউন্ডের চেয়ে ৫ ভোট বেশি পেয়ে টিকে থাকা সাজিদ জাভিদ নেতৃত্ব নির্বাচনের দৌড়ে অংশ নেওয়া রোরিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। শীর্ষ দুইয়ের মধ্যে থাকতে পারলে জনসনের বিরদ্ধে  ‘গঠনমূলক প্রতিদ্বন্দ্বিতা’ গড়ে তুলতে পারবেন বলেও আশ্বাস দিয়েছের মে-র মন্ত্রিমভায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা সাজিদ। লড়াইয়ে থাকা শীর্ষ দুইজনের মধ্যে একজনকে বেছে নিতে ২২ জুন থেকে কনজারভেটিভ পার্টির এক লাখ ৬০ হাজার কিংবা তারও বেশি সদস্যের মধ্যে ভোট হবে। চূড়ান্ত লড়াইয়ে বিজয়ী হয়ে কে হচ্ছেন যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী, তা জানতে জুলাইয়ের চতুর্থ সপ্তাহ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

উত্তর কোরিয়ায় প্রথম সফরে শি জিনপিং

ঢাকা অফিস ॥ চীনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার ৬ বছর পর শি জিনপিং উত্তর কোরিয়ায় প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর করছেন। দুইদিনের সফরে বৃহস্পতিবার তিনি পিয়ংইয়ং পৌঁছেছেন বলে চীনা রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি। উত্তরের শীর্ষ নেতা কিম জং উনের সঙ্গে বৃহস্পতিবারই তার এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে মিলিত হওয়ার কথা। বেইজিং পিয়ংইয়ংয়ের প্রধান ব্যবসায়িক অংশীদার হলেও ১৪ বছরের মধ্যে এবারই প্রথম চীনের কোনো প্রেসিডেন্ট উত্তর কোরিয়ায় গেলেন। এ সফরে শি নিষেধাজ্ঞা জর্জরিত উত্তর কোরিয়ার জন্য  বেশকিছু অর্থনৈতিক সহযোগিতা প্রকল্প নিয়ে গেছেন বলেও ধারণা করা হচ্ছে। জাপানে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের এক সপ্তাহ আগে চীনা প্রেসিডেন্টের এ সফরে পিয়ংইয়ং-ওয়াশিংটন সম্পর্কের উত্থান-পতন নিয়েও আলোচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। জি-২০ সম্মেলনে শি-র সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতায় আসায় পর থেকে এ নিয়ে ৪ বার চীন সফর করেছেন কিম। অন্যদিকে ২০০৫ সালে চীনের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট হু জিনতাওয়ের সফরকালে উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতায় ছিলেন কিমের বাবা কিম জং ইল। উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক কার্যক্রমের কারণে দেশটির ওপর ধারাবাহিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে জাতিসংঘ। বেইজিং এসব নিষেধাজ্ঞায় সমর্থন দিলেও শি-র এবারের সফর দুই দেশের সম্পর্কের উন্নতিতে ভূমিকা রাখবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

উত্তর কোরিয়ায় চীনা প্রেসিডেন্টের এ সফর ‘বেইজিং-পিয়ংইয়ং সম্পর্কে নতুন অধ্যায় যোগ করবে’ বলে মন্তব্য করেছে চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভি।

রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে করা ধর্ষণচেষ্টার মামলা খারিজ

ঢাকা অফিষ ॥ জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে করা মামলা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। মামলাটি মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় বুধবার তা খারিজ করে দেন জেলা জজ নিতাই চন্দ্র সাহা। পরে আইনজীবী জানান, মামলার বাদী মামলার আবেদন, জবানবন্দি ও দাখিল করা কাগজপত্রে তার বয়স ৪৫ বছর উল্লেখ করেছেন।

কিন্তু জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী বর্তমান বয়স ৫৩ বছর। তিনি তার প্রকৃত বয়স গোপন করেন। মামলায় তিনি নিজের এবং আসামিদের স্থায়ী ঠিকানা উল্লেখ করেননি। এসব কারণে আদালত মামলা খারিজ করে দেন।

 

 

‘হাত-পা ও চোখ বেঁধে’ ফেলে যাওয়া হয় সৌরভকে

ঢাকা অফিষ ॥ চট্টগ্রাম থেকে ‘নিখোঁজ’ হওয়ার ১১ দিন পর উদ্ধার হয়েছেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজের ভাগ্নে ইফতেখার আলম সৌরভ। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে ময়মনসিংহের তারাকান্দায় একটি রাইস মিলের সামনে একটি গাড়ি থেকে সৌরভকে ফেলে যাওয়া হয়।

পরে পুলিশের পাহারায় ২৮ বছর বয়সী এই যুবককে ঢাকার বনানীতে সোহেল তাজের বাসায় মা-বাবার কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।  গত ১১ দিন সৌরভের কোথায় কীভাবে কেটেছে, সে বিষয়ে পুলিশ কিছু জানাতে পারেনি। ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার শুধু বলেছেন, সৌরভকে কোথাও আটকে রাখা হয়েছিল। আর সৌরভের মামা সোহেল তাজ বলেছেন, তারাকান্দায় ফেলে যাওয়ার সময় তার ভাগ্নের হাত-পা ও চোখ ছিল বাঁধা; পরনে ছিল শুধু পাজামা।  সোহেল তাজের মামাতো বোনের ছেলে সৌরভ চট্টগ্রামের পাঁচলাইশ এলাকায় বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকেন; ঢাকায় ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভাসির্টিতে পড়াশোনার পর চট্টগ্রামের একটি স্কুলে তিনি শিক্ষকতা করছিলেন। গত ৯ জুন চট্টগ্রামের পাঁচলাইশ এলাকার আফমি প্লাজার সামনে থেকে নিখোঁজ হন সৌরভ। তার পরিবার অভিযোগ করে, ঢাকার এক ব্যবসায়ীর মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের জের ধরে তাকে অপহরণ করা হয়েছে। এর পেছনে সরকারি কোনো বাহিনীর কর্মকর্তাদের হাত রয়েছে বলেও এক ফেইসবুক পোস্টে সন্দেহ প্রকাশ করেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ। এরপর সোমবার সৌরভের মা সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান ও বাবা সৈয়দ মো. ইদ্রিস আলমকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান তিনি। সৈয়দা ইয়াসমিন আরজুমান ওই সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত ৮ জুন দুপুরে সৌরভের কাছে একটি ফোন আসে। তাকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে সব কাগজপত্র তৈরি রাখতে বলা হয়। পরদিন বেলা ৩টায় আবার ফোন করে সৌরভকে চট্টগ্রাম মিমি সুপার মার্কেটের আগোরার সামনে থাকতে বলা হয়। “সন্ধ্যা ৭টায় চাকরির প্রয়োজনীয় কাগজ, পাসপোর্ট দিতে গিয়ে আমার ছেলে আমাদের কাছ থেকে গিয়ে ফিরে আসে নাই। তার মোবাইল বন্ধ।” ওই ব্যবসায়ীর মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের কারণে এর আগেও কয়েকবার সৌরভকে তুলে নিয়ে গিয়ে হুমকি দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ করা হয় সেই সংবাদ সম্মেলনে।

পরদিন মঙ্গলবার সচিবালয়ে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ কাজ শুরু করেছে, সৌরভকে শিগগিরই পাওয়া যাবে বলে তিনি আশা করছেন। এরপর বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় ফেইসবুক লাইভে এসে সৌরভের উদ্ধার হওয়ার খবর জানান মামা সোহেল তাজ। তিনি বলেন, ভোর ৫টা ২৭ মিনিটে সৌরভের মায়ের কাছে একটি ফোন আসে। সেখানে বলা হয়, সৌরভকে একটি গাড়ি থেকে রাস্তার পাশে ফেলে দিয়ে যাওয়া হয়েছে। সোহেল তাজ এরপর চট্টগ্রামে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের উপ কমিশনারের সঙ্গে যোগোযোগ করেন। উপ কমিশনার যোগাযোগ করেন পুলিশ সুপারের সঙ্গে। পরে পুলিশ সুপার নিজে গিয়ে সৌরভকে পুলিশের নিরাপত্তা হেফাজতে নেন। বিপদের সময় সঙ্গে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সোহেল তাজ ফেইসবুক লাইভে বলেন, এরকম ঘটনা আর কারও ক্ষেত্রে ঘটবে না বলেই তিনি আশা করছেন। ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন সকালে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসে বলেন, তারাকান্দার বটতলা এলাকার জামিল রাইস মিলের সামনে সৌরভকে ফেলে যাওয়া হলে ওই মিলের এক কর্মচারী বিষয়টি সৌরভের পরিবারকে জানায়। সৌরভ কেমন আছে জানতে চাইলে পুলিশ সুপার তখন বলেন, “সে বর্তমানে সুস্থ আছে, এই মুহূর্তে এর বেশি বলতে পারছি না, কারণ তার সাথে কথা বলার মত অবস্থা হয়নি। সে বলেছে যে সে পরে কথা বলবে।” এই ১১ দিন কোথায় কীভাবে ছিলেন- সে বিষয়ে সৌরভ কিছু বলেছেন কি না, তা জানতে চেয়েছিলেন একজন সাংবাদিক। উত্তরে শাহ আবিদ হোসেন বলেন, “সে এটা বলতে পারে না। তবে তাকে আটকে রাখা হয়েছিল, এটাই বলেছে শুধু। “সে আসলে কোনো কিছুই এ মুহূর্তে বলতে পারছে না। তার বাহ্যিকভাবে কোনো সমস্যা আমরা দেখছি না। আমরা খাবার খাইয়ে তাকে পাঠিয়ে দিয়েছি। “ সৌরভকে কারা সেখানে ফেলে রেখে গেছে- এই প্রশ্নে পুলিশ সুপার বলেন, “এটা তদন্তের বিষয়।” বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আবারও ফেইসবুক লাইভে আসেন সোহেল তাজ। প্রথমে তিনি বনানীর বাড়ির সামনে অপেক্ষায় থাকা সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। সৌরভ কেমন আছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “সৌরভের কনডিশন ভালো ছিল না, যেটা শুনতে পাচ্ছি, ওকে বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেছে। ওর গায়ে কোনো জামা ছিল না, শুধু পাজামা পরা ছিল। চোখ বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেছে।” সোহেল তাজ জানান, সৌরভকে উদ্ধার করার পর ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার তাকে নিজের বাসায় নিয়ে যান।   “এসপি সাহেব উনার বাসায় নিয়ে গোসলের ব্যবস্থা করে দেন। এবং কিছু নাশতার ব্যবস্থা করে দেন, কারণ ও ক্ষুধার্ত ছিল। ও তো বুঝেই উঠতে পারেনি ও কোথায়। কারণ আপনারা তো বুঝতেই পারছেন, ও কী অবস্থায় ছিল।” সাবেক এই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আগে বলেছিলেন, যদি সৌরভকে মুক্ত করে দেওয়া না হয়, তাহলে যারা তাকে ধরে নিয়ে গেছে, তিনি তাদের নাম বলবেন। এখন সৌরভের মুক্তির পর তিনি কী করবেন- তা জানতে চেয়েছিলেন একজন সাংবাদিক। জবাবে সোহেল তাজ বলেন, “১১ দিন ধরে ছেলেটি নিখোঁজ ছিল। এখন সময় হচ্ছে এই ফ্যামলির মুখে একটু হাসি দেওয়া। এখন এই প্রশ্নের জবাব দেওয়ার সময় না। আমরা এখন জাস্ট ছেলেটাকে রিসিভ করতে চাচ্ছি।… ওকে একটু স্বস্তি দেওয়া। “আপানারা বুঝতে পারছেন, ও যেখানেই ছিল, ও শান্তিতে ছিল না। ও যেখানেই ছিল, ও অলরেডি আমাকে আভাস ইংগিত করেছে, ওর কী দুরবস্থা ছিল। আমি ওকে আশ্বস্ত করেছি, ওর ওপর কোনো ধরনের চাপ দেওয়া যাবে না, ও মানসিকভাবে একেবারে বিধ্বস্ত। আমরা এ বিষয় নিয়ে এখন আলাপ করব না।” সোহেল তাজ ফেইসবুক লাইভে থাকতে থাকতেই একটি মাইক্রোবাসে করে পুলিশ পাহারায় সৌরভকে বনানীর ওই বাসায় নিয়ে আসা হয়। গাড়ি থেকে নেমে প্রথমে মাকে এবং পরে বাবাকে জড়িয়ে ধরতে দেখা যায় সৌরভকে। সাংবাদিকরা সেখানে উপস্থিত থাকলেও সৌরভ তাদের সঙ্গে কোনো কথা বলেনি। মা-বাবা আর মামার সঙ্গে তিনি লিফটে ওঠার পর সোহেল তাজের ফেইসবুক লাইভ শেষ হয়।

 

ইউএনও’র হস্তক্ষেপে ৯৪ হাজার টাকা উদ্ধার

মাজিহাট হাইস্কুলের সাবেক সভাপতি ওমর চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার মাজিহাট হাইস্কুলের সাবেক সভাপতি ওমর আলী চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাতের  অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম জামাল আহম্মেদের হস্তক্ষেপে ৯৪ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, মাজিহাট হাইস্কুলের সভাপতি থাকার সময় জাসদ নেতা কুর্শা ইউপির চেয়ারম্যান ওমর আলী কর্তৃক দুর্নীতির মাধ্যমে আত্মসাত করা ৯৪ হাজার টাকা দীর্ঘ ৮ মাস তদন্ত করে ওমর আলী চেয়ারম্যান এর নিকট মাজিহাট হাইস্কুলে এই পাওনা হয়। মাজিহাট হাইস্কুলের ৩টি দোকান লীজ বাবদ ওমর আলী চেয়ারম্যান স্কুলের সভাপতি থাকা অবস্থায় ৩ লক্ষ ৫০ হাজার করে  ১০ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা গ্রহন করে। কিন্তুু দোকান নির্মানের জন্য খরচ করেন ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা বাকী  ৬ লক্ষ টাকা ওমর আলী চেয়ারম্যান প্রভাব খাটিয়ে আত্মসাত করে। বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ইকরামুল হক বলেন, মিরপুর উপজেলার নির্বাহী অফিসার এস. এম জামাল আহম্মেদ এবং উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব কামারুল আরেফীনের হস্তক্ষেপে আমার স্কুলের সাবেক সভাপতি ওমর আলীর নিকট থেকে ৯৪ হাজার টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। বাকী ৬ লক্ষ  টাকা যেন স্কুলের উন্নয়নের স্বার্থে দ্রুত ফিরে পায় সেইজন্য আমি সকলের একান্ত সহযোগীতা কামনা করছি। বিদ্যালয়ের বর্তমান আহবায়ক কমিটির সভাপতি আ.লীগ সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান বলেন, একজন চেয়ারম্যানের নৈতিকার কতটা অধপতন হলে এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের টাকা প্রভাব খাটিয়ে দুর্নীতির মাধ্যমে আত্মসাত করতে পারে, তা আমার জানা নেই। এই দুনীতির তদন্ত করার জন্য কুষ্টিয়া জেলার দুর্নীতি দমন কমিশন, জেলা প্রশাসক ও মিরপুর উপজেলা প্রশাসক এর সুদৃষ্টি কামনা করছি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের টাকা আত্মসাত ঘটনায় এলাকার মানুষ ফুঁসে উঠেছে।

 

কুষ্টিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ এবং আইনী সহায়তা বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

গতকাল নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে কুষ্টিয়া জেলায়  নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ এবং আইনী সহায়তা বিষয়ক কর্মশালা, সকাল ১০টায় চিলিস ফুড পার্কে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মুুুুুুুুুুুুুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা, নির্বাহী পরিচালক, জাতীয় নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ফেরামের সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ আরা বেগম। ধারনাপত্র পাঠ করেন তুহিন সুলতানা, প্রোগাম সমন্বয়কারী, জাতীয় নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ফোরাম। প্রধান অতিথি হিসাবে কর্মশালা উদ্বোধন করেন জেলা আাইনজীবি সমিতির সভাপতি  এ্যাড: অনুপ কুমার নন্দী। অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় মহিলা সংস্থার সভাপতি কুষ্টিয়া ও কলকাকলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জেব-উন- নেসা সবুজ, সাংবাদিক মিজানুর রহমান লাকী, নুরুন নাহার বেগম, সিনিয়ার প্রোগ্রাম অফিসার, এ্যাকশন এইড বাংলাদেশ, আসমা আক্তার মুক্তা, নির্বাহী পরিচালক, রাসিন, ফরিদপুর, মো: আসাদুজ্জামান, নির্বাহী পরিচালক মানব উন্নয়ন কেন্দ্র (মউক), খালেকুজ্জামান, প্রজেক্ট অফিসার, দি ল্যাপ্রসি মিশন বাংলাদেশ, আজাহারুল ইসলাম, আইন কর্মকর্তা, ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার, এ্যাড: আব্দুর রশিদ রানা, জজ কোর্ট, কুষ্টিয়া, এস এম কাদেরী শাকিল, সহ-সভাপতি, কুষ্টিয়া চেম্বার অবকমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি, সালমা সুলতানা, নির্বাহী পরিচালক, নিকুশিমাজ, কুষ্টিয়া, ফেরদৌস আরা রুবী, নির্বাহী পরিচালক নিকুঞ্জ, দিশা সংস্থার  এ্যাড: কামরুন্নাহার ময়না, জেলা প্রতিনিধি, ব্র্যাক, কুষ্টিয়া, মোতাহার হোসেন, সাংবাদিক ইব্রাহিম খলিল, ব্লাস্টের প্রতিনিধি শেখ ইসতিয়াক, আব্দুর রাজ্জাক, সাধারন সম্পাদক মানবাধিকার সংরক্ষন পরিষদ।  আলোচকগন বলেন সকল নাগরিক আইনের দৃষ্টিতে সমান এবং আইনের সমান আশ্রয় লাভের অধিকারী। ধনী-দরিদ্র নারী-পুরুষ সকলেই সমান। নাগরিকের অধিকার ও কর্তব্য নিরুপন করে আইনী প্রতিকার দেওয়া। পিতৃতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থার কারনে নারী ও কন্যা শিশুর মানবাধিকার লংঘিত হচ্ছে। নারী ও শিশু নির্যাতন এতো ভয়াবহ মাত্রায় আসার একটা অন্যতম কারন বিচার না হওয়া। বিচারিক প্রক্রিয়ার দীর্ঘসুত্রিতা, অপরাধীরা যদি সাজা পেত তাহলে নারীর প্রতি সহিংসতা কমে আসতো নারীর অধিকার রক্ষা করা সম্ভব হতো। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন এ্যাড: শামিমা আক্তার বন্যা, জজ কোর্ট, কুষ্টিয়া, আলো সংস্থার প্রতিনিধি মেঘ,  মানবাধিকার সংরক্ষন পরিষদের সভাপতি উৎপল কুমার সেনগুপ্ত, মুকুল খসরু, সভাপতি, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা, কুষ্টিয়া,  এডিডির প্রতিনিধি কহিনুর খাতুন ও আইনী সহায়তা প্রাপ্ত ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তিগন। সভায় সঞ্চালকের দ্বায়িত্ব পালন করেন মুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার কর্মসূচী সমন্বয়কারী জায়েদুল হক মতিন ও প্রশিক্ষক সমন্বয়কারী কাজী শফি উল্লাহ। সার্বিক সহযোগিতা করেন মুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার আহসান হাবীব রিপন, নুরুন্নাহার বেগম ও শ্যামলী খাতুন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

গাংনীতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত

গাংনীতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিতগাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের  গাংনীতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করে গাংনী উপজেলা প্রশাসন।  বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার সময় এ উপলক্ষ্যে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যাালিটি গাংনী উপজেলা শহরের প্রধান-প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, গাংনী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মেহেরপুর জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক  এমএ খালেক। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন,  গাংনী উপজেলা কৃষি অফিসার কেএম শাহাবুদ্দিন আহমেদ, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সাংস্কৃতিক সংগঠক সিরাজুল ইসলাম স্যার, গাংনী উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি মাষ্টার। গাংনী  উপজেলা জনস্বাস্থ্য বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আসম মাহফুজুর রহমান কল্লোল-এর সঞ্চালনায় এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গাংনী ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি এনামুল হক, মেহেরপুর জেলা আ.লীগের সাবেক কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, গাংনী সরকারী ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক নাসিরউদ্দীন,  গাংনী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিরুল ইসলাম অল্ডাম, চৌগাছা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রকিবুল ইসলাম প্রমুখ। আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন গাংনী উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও সন্ধানী স্কুল এন্ড কলেজের শতাধিক শিক্ষার্থী।

দৌলতপুরে বিশ্ব পরিবেশ দিবসের র‌্যালি 

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে র‌্যালি বের হয়ে বিভিন্ন সড় প্রদক্ষিন করে। এতে অংশ নেন দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার, দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) আজগর আলী, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনালী খাতুনসহ উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ ও আমন্ত্রিত সুধীজন।

দৌলতপুর সীমান্তে ফেনসিডিল, গাঁজা ও মদ উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে ২২বোতল ফেনসিডিল, ২ কেজি গাঁজা ও ২০৩ ভারতীয় মদ উদ্ধার হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে জামালপুর বিওপি’র টহল দল উপজেলার সীমান্ত সংলগ্ন জামালপুর পূর্বমাঠে অভিযান চালিয়ে মালিক বিহীন অবস্থায় ২৫বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ২টার দিকে প্রাগপুর বিওপি’র টহল জামালপুর দক্ষিণ মাঠে অভিযান চালিয়ে মালিক বিহীন অবস্থায় ৫১ বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। বুধবার রাত ১২টার দিকে কাজীপুর বিওপি’র টহল দল কাজীপুর বর্ডারপাড়া মাঠে অভিযান চালিয়ে ২০ বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। একইদিন রাত সাড়ে ১১টার দিকে রামকৃষ্ণপুর বিওপি’র টহল নীচপাড়া মাঠে অভিযান চালিয়ে ৩০ বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। এছাড়াও একই রাত সাড়ে ৮টার দিকে চিলমারী বিওপি’র টহল দল মরারপাড়া নামক স্থানে অভিযান চালিয়ে ৬৭ বোতল ভারতীয় জেডি মদ উদ্ধার করেছে। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে রামকৃষ্ণপুর বিওপি’র টহল চল্লিশপাড়া মাঠ অভিযান চালিয়ে ২কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে। একইদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বিলগাথুয়া বিওপি’র টহল দল চকবিলগাথুয়া মাঠে অভিযান চালিয়ে ২২ বোতল ফেনসিডিল ও ১০ বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। তবে বিজিবি’র এসব মাদক বিরোধী অভিযানে কোন মাদক ব্যবসায়ী বা পাচারকারী আটক হয়নি।

মাহবুবউল আলম হানিফ এমপির শোক

কুষ্টিয়ার বীর মুক্তিযোদ্ধা আদম আলীর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া হাউজিং নিবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা আদম আলী বুধবার বিকেলে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নাইলাইহি রাজিউন)। আদম আলী মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির অর্ডারলী পিয়ন হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তার মৃত্যুতে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোক প্রকাশ করেছেন আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, কুষ্টিয়া সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় কুষ্টিয়া হাউজিং ঈদগাহ মাঠে তার জানাজার নামাজ  ও গার্ড অব অনার প্রদান  শেষে কুষ্টিয়া পৌর গোরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদেরের দাফন সম্পন্ন করা হয়। এর আগে তাঁর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন কুষ্টিয়া জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের পক্ষে সাবেক কমান্ডার মানিক কুমার ঘোষ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুবায়ের হোসেন চৌধুরী, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতাসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মৃত্যুকালে তিনি এক পুত্র ও ৫ কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

কুষ্টিয়া কালেক্টরেট স্কুলে জাতীয় শিশু কিশোর প্রোগ্রাম প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

সুজন কর্মকার ॥ কুষ্টিয়া কালেক্টরেট স্কুলে এন্ড কলেজের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় শিশু কিশোর প্রোগ্রাম প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিন দিনব্যাপী অনলাইন প্রশিক্ষণ শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রোগ্রামের সিনিয়র ও জুনিয়র প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক ও কুষ্টিয়া কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি মোঃ আসলাম হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও কুষ্টিয়া কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের সহ-সভাপতি মোঃ আজাদ জাহান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও কুষ্টিয়া কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের সহ-সভাপতি লুৎফুন নাহার, রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর (আর.ডি.সি) পার্থ প্রতিম শীল, কুষ্টিয়া কালেক্টরেট স্কুলে এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক মৃনাল কান্তি সাহা প্রমুখ। জেলা কডিনেটর ল্যাপটপ ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মাঝে প্রোগ্রামিংয়ে  উৎসাহিত করার লক্ষ্যে সরকারের এই প্রোগ্রাম বাস্তবায়নে কুষ্টিয়ার খুদে প্রোগ্রামাররা অংশ গ্রহণ করে।

কুমারখালীতে আ’লীগের দুই গ্র“পের সংঘর্ষে ১ জন নিহত, আহত- ৫

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে আওয়ামী লীগের দুই গ্র“পের মুখোমুখি সংঘর্ষে আজম মুন্সী (৪৮) নামের একজন নিহত এবং ৫ জন আহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলা বাগুলাট ইউনিয়নের বাঁশগ্রাম কারিগর পাড়ায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ওই এলাকায় অতিরিক্ত সংখ্যক পুলিশ  মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানাগেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন যাবৎ আওয়ামী লীগ সমর্থিত কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ সদস্য মফিজ গ্র“পের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আলী গ্র“পের বিরোধ চলে আসছিল। এরই ধরাবাহিকতায় বুধবার সন্ধ্যায় মফিজ সমর্থিতদের সঙ্গে আলী সমর্থিতদের বাগবিতন্ডের এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার জের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে আলী সমর্থিতরা অতর্কিত আজম মুন্সীর বাড়িতে হামলা করে। এ সময় হামলাকারীরা কুপিয়ে আজম মুন্সী সহ পরিবারের ৫ জনকে আহত করে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সকাল ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজম মুন্সী মারা যায়। নিহত আজম মুন্সী বাঁশগ্রাম কারিগর পাড়া গ্রামের মৃত. আইয়ুব মুন্সীর ছেলে। এ ঘটনায় আহত অন্যান্যরা কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদিকে, নিহত আজম মুন্সীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে নেওয়া হয়েছে। এদিকে, আজম মুন্সীর মারা যাওয়ার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে প্রতিপক্ষের বাড়িতে ভাংচুর ও মালামাল লুটপাট শুরু করে মফিজ সমর্থিতরা। স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানাগেছে, আলী সমর্থিতদের বাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর ও গবাদি পশুসহ মালামাল লুটপাট করা হয়েছে। কুমারখালী থানার অফিসার ওসি এ, কে এম মিজানুর রহমান দীর্ঘদিন যাবৎ ওই এলাকার মফিজ-আলী গ্র“পের বিরোধের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এই মুহুর্তে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ইউজিসি’র সঙ্গে ইবি’র বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি সাক্ষর সম্পন্ন

প্রতি বছরের ন্যায় বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন ও দেশের সকল পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়গুলোর মধ্যে বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান গতকাল বৃহস্পতিবার পৃথক-পৃথকভাবে সম্পন্ন হয়েছে। কমিশনের অন্যতম সদস্য প্রফেসর ড. এম. শাহ নওয়াজ আলি’র সভাপতিত্বে বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন মিলনায়তনে সকাল ১০টায় শুরু আগামী ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের জন্য এ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ। কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ আখতার হোসেন, প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগম, প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন ও প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর এবং সচিব ড. মোঃ খালেদ বিশেষ অতিথি হিসাবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (রাশিদ আসকারী)-এর উপস্থিতিতে বিশ^বিদ্যালয়ের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস. এম. আব্দুল লতিফ। বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন কমিশনের সচিব ড. মোঃ খালেদ। এসময় এপিএ ফোকাল পয়েন্ট উপ-রেজিস্ট্রার (প্রশাসন) মোঃ নওয়াব আলী খান সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

মিরপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে মহিলা নিহত

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে কুলসুম (৪৫) নামের এক মহিলা নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পশুহাট রেলগেটে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত কুলসুম পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার রূপপুর জিগাতলা এলাকার জনি আলীর স্ত্রী। মিরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ষ্টেশন অফিসার রূহুল আমিন জানান, কুলসুম তার স্বামীর সাথে মিরপুর হোটেল এ বাবুর্চির কাজ করেন। নতুন ভাড়া বাসা খোজার জন্য তারা রেললাইন দিয়ে হাটতেছিলো। এমন সময় ঈশ্বরদী থেকে খুলনাগামী সাগড়দাড়ী এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই ছিন্ন ভীন্ন হয়ে মারা যায়।

রেকর্ড গড়েও জয় পেল না বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসের সর্বোচ্চ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয় পেল না বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের করা ৩৮১ রানের জবাবে বাংলাদেশের ইনিংস থেমেছে ৩৩৩ রানে। যা কি-না ওয়ানডে ইতিহাসে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ এবং বিশ্বকাপের ইতিহাসে দ্বিতীয় ইনিংসে তৃতীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। তবু ম্যাচ শেষে বাংলাদেশের পরাজয়ের ব্যবধান ৪৮ রানের। এ পরাজয়ের ফলে সেমিফাইনালে খেলার আশা প্রায় শেষই হয়ে গেল বলা চলে। বিশ্বকাপে আজকের ম্যাচের আগে তিনবার ৩০০’র বেশি রান করেছিল বাংলাদেশ, জয় এসেছিল প্রতিবার। কিন্তু আজকের ম্যাচে নিজেদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ রান করেও জয়ের বন্দরে পৌঁছানো হলো না মাশরাফি-সাকিবদের। অস্ট্রেলিয়ার করা ৩৮১ রানের বিশাল সংগ্রহের জবাবে বাংলাদেশ নিজেদের ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে করতে পেরেছে ৩৩৩ রান। মুশফিকুর রহীমের প্রথম বিশ্বকাপ সেঞ্চুরি ও তামিম-মাহমুদউল্লাহর ফিফটির পরও পরাজয়ের ব্যবধানটা তাই ৪৮ রানের। বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইনিংসের চতুর্থ ওভারেই বাংলাদেশ শিবিরে আসে বড় ধাক্কা। দুর্ভাগ্যজনক রানআউটের শিকার হন সৌম্য সরকার। প্যাট কামিন্সের বলটি মিডঅনে ঠেলে দিয়ে দৌড় দিয়েছিলেন তামিম ইকবাল, মাঝে ভুল বোঝাবুঝিতে ফেরত আসেন স্ট্রাইকিং এন্ডে। কিন্তু ননস্ট্রাইক এন্ডে সৌম্য ফিরতে পারেননি, অ্যারন ফিঞ্চের সরাসরি  থ্রোতে ভেঙে যায় স্ট্যাম্প। ৮ বলে ২ বাউন্ডারিতে সৌম্য সাজঘরের পথ ধরেন ব্যক্তিগত ১০ রানেই। দ্বিতীয় উইকেটে ৭৯ রানের জুটি গড়েন সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সাকিব ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন বিশ্বকাপে টানা পঞ্চম ফিফটির। কিন্তু দলীয় ১০২ রানের মাথায় তিনি আউট হন ব্যক্তিগত ৪১ রানে। এর আগে অবশ্য প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বকাপের এক আসরে ৪০০’র বেশি রান করার কৃতিত্ব দেখান বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার। পাঁচ ইনিংসে ১০৬.২৫ গড়ে এখনও পর্যন্ত তার সংগ্রহ ৪২৫ রান। সাকিবের বিদায়ের পর তামিম তুলে নেন চলতি বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ফিফটি। মুশফিকের সঙ্গে তার জুটিতে দলীয় সংগ্রহটাও এগুচ্ছিলো বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়েই। কিন্তু সুখ যেনো বেশিক্ষণ সয়নি তামিমের। মিচেল স্টাকের করা ২৫তম ওভারের প্রথম বলটি ছিলো অফস্টাম্পের বেশ বাইরে। থার্ডম্যান দিয়ে গলাতে গিয়ে উল্টো স্ট্যাম্পে টেনে নেন তামিম। থেমে যায় তার ৭৪ বলে খেলা ৬২ রানের ইনিংসটি। আগের ম্যাচের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে উইকেটে আসেন লিটন কুমার দাস। কিন্তু প্রথম বলেই তাকে মরণঘাতী এক বাউন্সার দেন স্টার্ক। যা আঘাত হানে সোজা হেলমেটে। বেশ কিছুক্ষণ বন্ধ থাকে খেলা। প্রাথমিক সেবা নিয়ে খেলা শুরু করেন লিটন। তখন আর মনেই হয়নি প্রথম বলেই মাথায় আঘাত পেয়েছেন তিনি। দারুণ ৩টি চারের মারে ১৬ বলে করে ফেলেন ২০ রান। কিন্তু আউট হয়ে যান লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিভিউ নেন লিটন। রিপ্লেতে দেখা যায় আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত না দিলে বেঁচে যেতে পারতেন তিনি। কিন্তু ‘আম্পায়ার্স কল’ আউট থাকায় ত্রিশতম ওভারের দ্বিতীয় বলে দলীয় ১৭৫ রানের মাথায় সাজঘরেই ফিরে যেতে হয় লিটনকে। এরপরই জুটি বাঁধেন মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ। ত্রিশতম ওভারে লিটন কুমার দাস আউট হয়ে যাওয়ার পর অনেকেই দেখছিলেন টাইগারদের বড় পরাজয়। কিন্তু পঞ্চম উইকেটে জুটি গড়ে এখনও জয়ের আশা বাঁচিয়ে রেখেছেন দুই ভায়রা ভাই মুশফিকুর রহীম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দুজনই রান করছেন বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে। জুটিতেও পূরণ হয়েছে শতরান। তবে এখনও পাড়ি দিতে হবে অনেক লম্বা পথ। কারণ জয়ের জন্য লক্ষ্যটা যে আকাশছোঁয়া। যা তাড়ায় টাইগার ভক্তদের জয়ের আশা বাঁচিয়ে রাখে মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহর জুটি। ওভারপ্রতি প্রায় ১৫ রানের চাহিদায়, প্রতি ওভারেই একটি-দুইটি করে বাউন্ডারি হাঁকাচ্ছিলেন দুজনে। অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের যথাযথ জবাব দিয়ে দুজন মিলে গড়ে ফেলেন শতরানের জুটি, যেখানে ফিফটি হয়ে যায় দুই ব্যাটসম্যানেরই। লক্ষ্যটা বিশাল হওয়ায় আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের পরেও শেষের পাঁচ ওভারে বাকি থাকে ৮২ রান। সে ওভার করতে এসেই মূলত বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেন নাথান কোল্টার নিল। তার করা ৪৬ ওভারের তৃতীয় বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে ডিপ স্কয়ার লেগে ধরা পড়েন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আউট হওয়ার আগে ৫ চার ও ৩ ছক্কার মারে ৫০ বলে ৬৯ রান করেন তিনি। পরের বলেই সরাসরি বোল্ড হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন সাব্বির রহমান। এরপর আর একার পক্ষে বেশিকিছু করা সম্ভব ছিল না মুশফিকের পক্ষে। তবু তিনি দলীয় সংগ্রহটাকে নিয়ে যান ৩৩৩ রান পর্যন্ত, তুলে নেন বিশ্বকাপে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি। ওয়ানডে বিশ্বকাপের ইতিহাসে মাত্র তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে তিন অঙ্কের দেখা পেলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম। নটিংহ্যামের ট্রেন্টব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এ মাইলফলকে পৌঁছলেন তিনি। তার আগে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের জার্সি গায়ে সেঞ্চুরি করেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (২০১৫) এবং সাকিব আল হাসান (২০১৯)। আগের দুইজনই করেছেন ২টি করে সেঞ্চুরি, তাও পরপর দুই ম্যাচে। মুশফিকও তা পারবেন কিনা তা জানা যাবে পরের ম্যাচেই। তবে আজকের সেঞ্চুরিটি করতে মুশফিক বল খেলেছেন ৯৫টি। ৯ চার ও ১ ছয়ের মারে সাজিয়েছেন নিজের সেঞ্চুরি। শেষপর্যন্ত বাংলাদেশের ইনিংস থামে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩৩৩ রানে। মুশফিক অপরাজিত থাকেন ৯৭ বলে ১০২ রান করে। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ২টি উইকেট নেন নাথান কোল্টার নিল, মিচেল স্টার্ক ও মার্কস স্টয়নিস। এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বেশ সতর্কতার সঙ্গে শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ আর ডেভিড ওয়ার্নার বাংলাদেশি বোলারদের দেখেশুনে খেলছিলেন। সেঞ্চুরি জুটিও গড়েন তারা। কিছুতেই কিছু হচ্ছিল না। ফ্রন্টলাইন বোলাররা অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিংকে বিপদে ফেলতে পারছিলেন না। অবস্থা বেগতিক দেখে ২১তম ওভারে পার্টটাইমার সৌম্য সরকারের হাতে বল তুলে দেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। অধিনায়কের এমন বুদ্ধিদীপ্ত সিদ্ধান্ত কাজে লেগে যায় সঙ্গে সঙ্গে। নিজের প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে এসে অ্যারন ফিঞ্চকে শর্ট থার্ড ম্যানে রুবেল হোসেনের ক্যাচ বানান সৌম্য। ফিঞ্চ ৫১ বলে করেন ৫৩ রান। ১২১ রানের ওপেনিং জুটি ভাঙায় স্বস্তি ফিরে বাংলাদেশ শিবিরে। তবে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে সে স্বস্তিকে আবারও অস্বস্তিতে রূপ দেন ওয়ার্নার আর উসমান খাজা। এর মধ্যে ওয়ার্নার এবারের বিশ্বকাপে তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরিও তুলে নেন। সেটা দেড়শোতে নিয়েও থামেননি। ১৯২ রানের বিশাল এই জুটিটি শেষপর্যন্ত ভাঙেন ওই সৌম্য সরকারই। যেন ফিঞ্চের আউটের পুণরাবৃত্তি। শর্ট থার্ড ম্যানে রুবেলই নিয়েছেন ক্যাচ। ১৪৭ বলে ১৪ বাউন্ডারি আর ৫ ছক্কায় ওয়ার্নারের উইলো থেকে আসে ১৬৬ রান। এরপর উইকেটে এসে ছোটখাটো এক ঝড় তুলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ৪৭তম ওভারে এসে আবারও চমক দেখান সৌম্য। ১০ বলে ২ চার আর ৩ ছক্কায় ৩২ রান করা ম্যাক্সওয়েল শর্ট ফাইন লেগে বল ঠেলে বেরিয়ে গিয়েছিলেন। রুবেল হোসেন সরাসরি থ্রোতে স্ট্যাম্প ভেঙে দেন। ওই ওভারেরই পঞ্চম বলে উসমান খাজাকে মুশফিকুর রহীমের ক্যাচ বানান সৌম্য। ৭২ বলে ১০ বাউন্ডারিতে ৮৯ রানে সাজঘরের পথ ধরেন খাজা, সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে। পরের ওভারের প্রথম বলে স্টিভেন স্মিথকে মাত্র ১ রানেই এলবিডব্লিউ করেন মোস্তাফিজুর রহমান। শেষদিকে মার্কাস স্টয়নিসের ১৭ আর অ্যালেক্স কারের ১১ রানে ৩৮১তে থামে অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশের পক্ষে বল হাতে সবচেয়ে সফল পার্টটাইমার সৌম্য সরকারই। ৮ ওভারে ৫৮ রান খরচায় তিনি নেন ৩টি উইকেট।

ভিক্ষুক পুনর্বাসন কার্যক্রমের আওতায় কুমারখালীতে ৭ জনকে গরুসহ সহায়তা সমাগ্রী প্রদান

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ ভিক্ষুক পুনর্বাসন কার্যক্রমের আওতায় কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৭ জনকে গরুসহ সহায়তা সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ চত্বরে পুনর্বাসিত ব্যক্তিদের হাতে গরুসহ সহায়তা সামগ্রী তুলে দেন জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেন। এ সময় সমাজ সেবা অধিদপ্তর কুষ্টিয়ার উপ পরিচালক রোখসানা পারভীন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান, সহকারি কমিশনার (ভুমি) মুহাম্মদ নূর- এ আলম, উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মুহাম্মদ আলী সহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় পুনর্বাসিত ব্যক্তিরা জেলা প্রশাসকের সামনে গরুসহ মুদি দোকানের সামগ্রী পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ সহ চিরতরে ভিক্ষাবৃত্তি পেশা ত্যাগের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।   উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার জানান, ভিক্ষুক পুনর্বাসন কার্যক্রমের আওতায় ৩ লক্ষ ৩১ হাজার টাকা ব্যয়ে উপজেলার কালোয়া গ্রামের মো: মফিজ উদ্দিন ব্যাপারী, সুলতানপুর গ্রামের মকবুল খাঁ, সন্তোষপুর গ্রামের মো: জহর আলী, মোছা: জহুরা খাতুন, কালোয়া গ্রামের মো: তইজ উদ্দিনকে গরু (গাভী) এবং যোত ভালুকা গ্রামের মো: আব্দুল মালেক ও বড় ভালুকা গ্রামের মো: আশরাফ উদ্দিন সেখকে মুদি দোকানের সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

জিয়া কখনই নিজেকে স্বাধীনতার ঘোষক দাবি করেননি -তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিষ ॥ তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, জিয়াউর রহমান কখনই নিজেকে স্বাধীনতার ঘোষক দাবি করেননি, যা বিএনপি করছে। আওয়ামী লীগ নেতা এম এ হান্নান সর্বপ্রথম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠ করেন। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা এম এ হান্নানের মৃত্যবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বলেন, জিয়া কখনই দাবি করেননি যে তিনি স্বাধীনতার ঘোষকৃ কিন্তু বিএনপি জিয়ার মৃত্যুর পর সবসময় ইতিহাস ধ্বংসের চেষ্টা করেছে। তিনি বলেন, আমি তাদের (বিএনপি) স্মরণ করিয়ে দিতে চাই বিদেশেও সুস্পষ্ট দলিলপত্রের ভিত্তিতে বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস লেখা হয়েছে। জননেতা এম এ হান্নান স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত অনুষ্ঠানে তাঁর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ হান্নান চট্টগ্রাম কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে সর্বপ্রথম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠ করেন। এরপর তৎকালীন আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ঘোষণাপত্র পাঠ করার জন্য সেনা সদস্য হিসেবে জিয়াউর রহমানকে আহ্বান জানান উল্লেখ করে বলেন, জিয়া একজন সামরিক কর্মকর্তা হিসেবে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের নির্দেশনা অনুসরণ করেছেন। ড. হাছান বলেন, আসলে বিএনপি’র রাজনীতি মিথ্যার ওপর প্রতিষ্ঠিত এবং দলের জন্মও অবৈধ। তথ্যমন্ত্রী বলেন, এখন বিএনপি’র সংসদ সদস্যরা বলছেন এই সংসদ অবৈধ কিন্তু তারা সংসদে গিয়েছেন। তাই তারাও এখন সংসদের অবৈধ সদস্য হয়ে গেছেন। তিনি বিএনপিকে একটি অবৈধ দল হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, কেউ বিএনপিকে রাজপথে দেখতে পায় না, তাদের রাজনীতি নয়াপল্টনে তাদের কার্যালয় কেন্দ্রীক। বিএনপি নেতা রিজভী আহমেদের বক্তব্যের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার ব্যাপারে সরকার কোন হস্তক্ষেপ করছে না। তিনি বলেন, বেগম জিয়া ইতোমধ্যেই কয়েকটি মামলায় জামিন পেয়েছেন। তার মুক্তির আর কোন বিকল্প পথ নেই, তাই তিনি মুক্তি পাবেন কি পাবেন না, তা একমাত্র আদালতই ঠিক করবেন। অনুষ্ঠানে এম এ হান্নানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে প্রধান অতিথি ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, তিনি ছিলেন আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত প্রাণ। হান্নান চট্টগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের প্রথমে সাংগঠনিক সম্পাদক এবং পরে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

 

ডিআইজি মিজানের সম্পদ ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব জব্দ

ঢাকা অফিষ ॥ অসাধু উপায়ে অর্জিত সম্পদ বা সম্পত্তির বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে তা বেহাত হয়ে যাওয়ার আশংকা আছে বলে ডিআইজি মিজানুর রহমানের স্থাবর সম্পত্তি ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক মঞ্জুর মোরশেদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশ সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দেন। এর আগে গত ১২ জুন পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমানের সম্পদ অনুসন্ধানে দায়িত্ব দেয়া হয় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক মঞ্জুর মোরশেদকে। ঘুষগ্রহণ ও তথ্য পাচারের অভিযোগে আগের অনুসন্ধান কর্মকর্তা দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত করার পর এই নিয়োগ দেয়া হয়। প্রসঙ্গত, ‘তুলে নিয়ে বিয়ে করলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার!’ শিরোনামে ৭ জানুয়ারি যুগান্তরে ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে বহুল আলোচিত রিপোর্ট প্রকাশিত হয়।

‘এক সংবাদপাঠিকার জীবনও বিষিয়ে তুলেছেন ডিআইজি মিজান’ শিরোনামে পরদিন ৮ জানুয়ারি আরও একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হলে দেশজুড়ে তীব্র ক্ষোভ ও সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে। এরপর নানা জল্পনা-কল্পনা শেষে বিতর্কিত এই ডিআইজি মিজানকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনারের পদ থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ সদর দফতরে সংযুক্ত করা হয়। এদিকে পুলিশ সদর দফতরে সংযুক্ত বিতর্কিত ডিআইজি মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে বিপুল অংকের অবৈধ সম্পদের খোঁজ পায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।